সন্ধ্যা ৭:৪৮, শুক্রবার, ২৩শে জুন, ২০১৭ ইং

এক নজরে

আইসিসির টেস্ট ও ওয়ানডে লিগ বাস্তবায়ন হওয়াটা এখন মাত্র সময়ের ব্যাপার। গত সপ্তাহের শেষদিকে আইসিসির প্রধান নির্বাহীদের কমিটির আলোচনা সভা শেষে ওয়ানডে ও টেস্ট লিগের সম্ভাব্য সূচি তৈরি করা হয় । এ লিগ শুরুর সম্ভাবনা ২০১৯ বিশ্বকাপের পর থেকে। চার বছরের প্রস্তাবিত এ টেস্ট লিগের সূচিতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশের কোন টেস্ট সিরিজ নেই। ক্রিকেটের জন্মভূমি ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মুশফিক-সাকিব-মিরাজরা কোন টেস্ট সিরিজ খেলতে না পারার হতাশা থাকলেও বাংলাদেশ খেলবে মোট ১২টি টেস্ট সিরিজ।
২০১৯ থেকে ২০২৩ সাল পর্যন্ত টেস্ট র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষ ৯টি দলই খেলবে ১২টি টেস্ট সিরিজ। সিরিজগুলো হবে হোম ও অ্যাওয়ে ভিত্তিতে । জিম্বাবুয়ে এবং দুই নতুন টেস্ট দল আয়ারল্যান্ড ও আফগানিস্তানকে এই লিগে বিবেচনায় আনা হয়নি। ভারত, অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, নিউজিল্যান্ড, ইংল্যান্ড, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও বাংলাদেশ অংশ নেবে।

ক্রিকইনফো দলগুলোর প্রস্তাবিত টেস্ট সিরিজের সূচি ইতোমধ্যে প্রকাশ করেছে। বাংলাদেশ খেলবে অস্ট্রেলিয়া, ভারত, শ্রীলঙ্কা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, নিউজিল্যান্ড, পাকিস্তান ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। প্রত্যেক সিরিজ কমপক্ষে ২ ম্যাচের হবে। চার বছরের মধ্যে বাংলাদেশ একটি করে সিরিজ খেলবে অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। এছাড়া প্রত্যেকের বিপক্ষে হোম ও অ্যাওয়ে ভিত্তিতে দুটি টেস্ট সিরিজ খেলবে তারা। সূচি অনুযায়ী বাংলাদেশের প্রথম প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া, হোম ভেন্যুতে। আর ২০২৩ সালে এ সূচির ভিত্তিতে বাংলাদেশের শেষ ম্যাচ হবে দক্ষিণ আফ্রিকায়। তবে সবকিছু জানার জন্য অপেক্ষায় থাকতে হবে আরো কিছুটা সময়।

প্রস্তাবিত টেস্ট লিগে বাংলাদেশের ১২ সিরিজ

আইসিসির টেস্ট ও ওয়ানডে লিগ বাস্তবায়ন হওয়াটা এখন মাত্র সময়ের ব্যাপার। গত সপ্তাহের শেষদিকে আইসিসির প্রধান নির্বাহীদের কমিটির আলোচনা সভা শেষে ওয়ানডে ও টেস্ট লিগের সম্ভাব্য সূচি তৈরি করা হয় । এ লিগ শুরুর সম্ভাবনা ২০১৯ বিশ্বকাপের পর থেকে। চার বছরের প্রস্তাবিত এ টেস্ট লিগের সূচিতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশের কোন টেস্ট সিরিজ নেই। ক্রিকেটের জন্মভূমি ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মুশফিক-সাকিব-মিরাজরা কোন টেস্ট সিরিজ খেলতে না পারার হতাশা থাকলেও বাংলাদেশ খেলবে মোট ১২টি টেস্ট সিরিজ।
২০১৯ থেকে ২০২৩ সাল পর্যন্ত টেস্ট র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষ ৯টি দলই খেলবে ১২টি টেস্ট সিরিজ। সিরিজগুলো হবে হোম ও অ্যাওয়ে ভিত্তিতে । জিম্বাবুয়ে এবং দুই নতুন টেস্ট দল আয়ারল্যান্ড ও আফগানিস্তানকে এই লিগে বিবেচনায় আনা হয়নি। ভারত, অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, নিউজিল্যান্ড, ইংল্যান্ড, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও বাংলাদেশ অংশ নেবে।

ক্রিকইনফো দলগুলোর প্রস্তাবিত টেস্ট সিরিজের সূচি ইতোমধ্যে প্রকাশ করেছে। বাংলাদেশ খেলবে অস্ট্রেলিয়া, ভারত, শ্রীলঙ্কা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, নিউজিল্যান্ড, পাকিস্তান ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। প্রত্যেক সিরিজ কমপক্ষে ২ ম্যাচের হবে। চার বছরের মধ্যে বাংলাদেশ একটি করে সিরিজ খেলবে অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। এছাড়া প্রত্যেকের বিপক্ষে হোম ও অ্যাওয়ে ভিত্তিতে দুটি টেস্ট সিরিজ খেলবে তারা। সূচি অনুযায়ী বাংলাদেশের প্রথম প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া, হোম ভেন্যুতে। আর ২০২৩ সালে এ সূচির ভিত্তিতে বাংলাদেশের শেষ ম্যাচ হবে দক্ষিণ আফ্রিকায়। তবে সবকিছু জানার জন্য অপেক্ষায় থাকতে হবে আরো কিছুটা সময়।

ক্রিকেট

প্রস্তাবিত টেস্ট লিগে বাংলাদেশের ১২ সিরিজ

আইসিসির টেস্ট ও ওয়ানডে লিগ বাস্তবায়ন হওয়াটা এখন মাত্র সময়ের ব্যাপার। গত সপ্তাহের শেষদিকে আইসিসির প্রধান নির্বাহীদের কমিটির আলোচনা সভা শেষে ওয়ানডে ও টেস্ট লিগের সম্ভাব্য সূচি তৈরি করা হয় । এ লিগ শুরুর সম্ভাবনা ২০১৯ বিশ্বকাপের পর থেকে। চার বছরের প্রস্তাবিত এ টেস্ট লিগের সূচিতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশের কোন টেস্ট সিরিজ নেই। ক্রিকেটের জন্মভূমি ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মুশফিক-সাকিব-মিরাজরা কোন টেস্ট সিরিজ খেলতে না পারার হতাশা থাকলেও বাংলাদেশ খেলবে মোট ১২টি টেস্ট সিরিজ।
২০১৯ থেকে ২০২৩ সাল পর্যন্ত টেস্ট র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষ ৯টি দলই খেলবে ১২টি টেস্ট সিরিজ। সিরিজগুলো হবে হোম ও অ্যাওয়ে ভিত্তিতে । জিম্বাবুয়ে এবং দুই নতুন টেস্ট দল আয়ারল্যান্ড ও আফগানিস্তানকে এই লিগে বিবেচনায় আনা হয়নি। ভারত, অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, নিউজিল্যান্ড, ইংল্যান্ড, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও বাংলাদেশ অংশ নেবে।

ক্রিকইনফো দলগুলোর প্রস্তাবিত টেস্ট সিরিজের সূচি ইতোমধ্যে প্রকাশ করেছে। বাংলাদেশ খেলবে অস্ট্রেলিয়া, ভারত, শ্রীলঙ্কা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, নিউজিল্যান্ড, পাকিস্তান ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। প্রত্যেক সিরিজ কমপক্ষে ২ ম্যাচের হবে। চার বছরের মধ্যে বাংলাদেশ একটি করে সিরিজ খেলবে অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। এছাড়া প্রত্যেকের বিপক্ষে হোম ও অ্যাওয়ে ভিত্তিতে দুটি টেস্ট সিরিজ খেলবে তারা। সূচি অনুযায়ী বাংলাদেশের প্রথম প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া, হোম ভেন্যুতে। আর ২০২৩ সালে এ সূচির ভিত্তিতে বাংলাদেশের শেষ ম্যাচ হবে দক্ষিণ আফ্রিকায়। তবে সবকিছু জানার জন্য অপেক্ষায় থাকতে হবে আরো কিছুটা সময়।

ফুটবল

এবার হবে সেমির লড়াই

কনফেডারেশন্স কাপের ‘এ’ গ্রুপে সেমিফাইনালের দৌড়ে টিকে রয়েছে মেক্সিকো-পর্তুগাল-রাশিয়া। আগামীকাল শনিবার ‘এ’ গ্রুপে নিজ নিজ খেলায় জয় বা ড্র করলেই সেমিফাইনাল নিশ্চিত হবে তাদের। তাই সেমির টিকিট পাওয়ার আশাতেই গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচ খেলতে নামছে মেক্সিকো-পর্তুগাল-রাশিয়া। মেক্সিকোর প্রতিপক্ষ রাশিয়া এবং পর্তুগালের প্রতিপক্ষ নিউজিল্যান্ড।
‘এ’ গ্রুপে ২টি করে ম্যাচ খেলেছে মেক্সিকো-পর্তুগাল-রাশিয়া-নিউজিল্যান্ড। মেক্সিকো ও পর্তুগাল ১টি করে জয় ও ড্র’তে ৪ পয়েন্ট করে সংগ্রহে রাখতে পেরেছে মেক্সিকো ও পর্তুগাল। আর এক জয় ও হারে৩ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তৃতীয়স্থানে স্বাগতিক রাশিয়া। তবে ২ খেলায় দু’টিতে হেরে কোন পয়েন্ট এখনো অর্জন করতে পারেনি নিউজিল্যান্ড। কিন্তু কাগজে-কলমে ঠিকই সেমির আশা কিছুটা বেঁচে রয়েছে কিউইদের।
এজন্য পর্তুগালকে হারাতে হবে নিউজিল্যান্ডকে এবং রাশিয়ার বিপক্ষে মেক্সিকোকে জিততে হবে। সেক্ষেত্রে গোল গড়ের হিসেবে সেমিতে যেতে পারবে নিউজিল্যান্ড। তবে কাজটি বেশ কঠিন। কারণ গোল গড়ে বেশ পিছিয়ে রয়েছে তারা। তবে সেমিফাইনালের দৌড়ে বেশ ভালোভাবেই টিকে রয়েছে মেক্সিকো-পর্তুগাল-রাশিয়া। নিজ নিজ খেলায় যারা জিতবে, তারা সহজেই সেমির টিকিট পেয়ে যাবে। আর যদি ‘এ’ গ্রুপের দু’টি ম্যাচই ড্র হয়, তবে সেমিতে খেলবে মেক্সিকো ও পর্তুগাল।
সেমিফাইনাল খেলতে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে আক্রমণাত্মক ফুটবল উপহার দিতে চান রাশিয়ার কোচ স্তানিসলাভ চেরচেসভ, ‘পর্তুগালের বিপক্ষে আগের ম্যাচে ভালো খেলেও আমরা ম্যাচটি হেরেছি। তবে আমাদের সামনে এখন অন্য সমীকরণ। সেমিফাইনালে খেলতে হলে জিততেই হবে। আর ড্র করলে অন্য ম্যাচের ফলের দিকে তাকিয়ে থাকতে হবে। তাই মেক্সিকোর বিপক্ষে ম্যাচে অন্য পরিকল্পনা নিয়ে আমরা মাঠে নামবো। দলের কম্বিনেশনে বেশ পরিবর্তন নিয়ে আসবো।’


ভিডিও
ICC #WT20 England Women vs Bangladesh Women Match Highlights
New Zealand vs Bangladesh world T 20 2016 Highlights HD
More Video
ফেইসবুক

হ্যান্ডবল
গলফ
দাবা
হকি
লন-টেনিস
আর্ন্তজাতিক
সাক্ষাৎকার
সাঁতার
এ্যাথলেটিকস্