রাত ১২:৩৪, বৃহস্পতিবার, ২১শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং

এক নজরে

ইটালিয়ান জায়ান্ট জুভেন্টাসেই খেলেই খুশি আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড পা‌ওলো দিবালা। তিনি বেশ জোর দিয়েই এ কথা বলেন।

গত রাতেই আর্জেন্টিনার পক্ষে জীবনের প্রথম গোল করেন তিনি। অবশ্য এর আগে থেকেই দিবালার বায়ার্ন মিউনিখে যাোগ দেওয়ার ব্যাপারে গুঞ্জন ছিলো। সে সব উড়িয়ে দিয়ে তিনি জানান, ‘জুভেন্টাসে খেলেই আমি খুশি।’

এরপর দিবালা বলেন, ট্রান্সফার মার্কেটে আলোচনা চলতেই পারে। তাতে যে আমি জুভেন্টাসে খুশি নয় তেমনটা না, এই ক্লাবে খেলেই খুশি। দলবদল নিয়ে আমি ভাবছিনা। সেটা আলোচনার কোনো বিষয় নয়।

ম্যাক্স-বিএসপিএ বর্ষসেরা সাংবাদিক নোমান মোহাম্মদ

ম্যাক্স-বিএসপিএ নাইট ২০১৮’র বর্ষসেরা সাংবাদিকের স্বীকৃতি পেয়েছেন কালের কন্ঠের সিনিয়র রিপোর্টার নোমান মোহাম্মদ। আজ ফারস রিসোর্টস অ্যান্ড হোটেলের সিঁদুরপুর হলে আয়োজিত জমকালো পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে তার হাতে পুরষ্কার তুলে দেন দক্ষিণ এশিয়ার ফুটবল ফেডারেশন ও বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি ও সাবেক কৃতি ফুটবলার কাজী মোহাম্মদ সালাউদ্দিন।

বিএসপিএ সভাপতি মোস্তফা মামুনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ম্যাক্স গ্রুপের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার গোলাম মোহাম্মদ আলমগীর। সাবেক সাধারণ সম্পাদক রেজওয়ানুজ্জামান রাজীবের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিএসপিএর সাধারণ সম্পাদক সুদীপ্ত আহমেদ আনন্দ।

এবারই পরিসর বেড়েছে ম্যাক্স-বিএসপি অ্যাওয়ার্ডের। যুক্ত হয়েছেন ফটোসাংবাদিক ও অন্য দুই ক্রীড়াসাংবাদিক সংগঠনের সদস্যরাও। পুরষ্কারের মঞ্চেও ছিল তাদের গর্বিত পদচারণা। সেরা সাক্ষাৎকারের জন্য আতাউল হক মল্লিক ট্রফি জিতেছেন কালের কন্ঠ পত্রিকার বিশেষ প্রতিনিধি সনৎ বাবলা। রানার আপ একই প্রতিষ্ঠানের নোমান মোহাম্মদ ও মাসুদ পারভেজ। বর্ষসেরা এক্সক্লুসিভ রিপোর্টের জন্য বদি-উজ-জামান ট্রফি পেয়েছেন এটিএন নিউজের শেখ আশিক। রানার আপ হয়েছেন নোমান মোহাম্মদ ও চ্যানেল টোয়েন্টিফোরের রিয়াসাদ আজিম। সেরা সিরিজ রিপোর্টের জন্য আব্দুল হামিদ ট্রফি জিতেছেন নোমান মোহাম্মদ, রানার্স আপ শামীম চৌধুরী (এশিয়ানমেইল২৪ ডটকম) ও মাসুদ আলম (প্রথম আলো)। সেরা ফিচার রিপোর্ট/ডকুমেন্টারির জন্য রণজিৎ বিশ্বাস ট্রফি জিতেছেন ক্রিকইনফোর বাংলাদেশ প্রতিনিধি মোহাম্মদ ইসাম। রানার্স আপ রানা আব্বাস, শাহজাহান কবীর ও সনৎ বাবলা। সেরা আলোকচিত্রের জন্য বদরুল হুদা ট্রফি জিতেছেন নিউ এজ পত্রিকার সৌরভ লষ্কর। রানার আপ মীর ফরিদ ও প্রথম আলোর শামসুল হক টেংকু। বিশেষ স্বীকৃতি পেয়েছেন রাহেনুর ইসলাম, ফয়সাল তিতুমীর, রাশেদুল ইসলাম, আরিফুল ইসলাম রনি ও রফিকুল হায়দার ফরহাদ।

ম্যাক্স-বিএসপিএ নাইটের পুরস্কার

বদরুল হুদা চৌধুরি ট্রফি (সেরা ফটোগ্রাফ)- সৌরভ লস্কর।
রণজিৎ বিশ্বাস ট্রফি (সেরা ফিচার/ডকুমেন্টারি)- মোহাম্মদ ইসাম।
আব্দুল হামিদ ট্রফি (সেরা সিরিজ রিপোর্ট)- নোমান মোহাম্মদ।
বদি-উজ-জামান ট্রফি (সেরা এক্সক্লুসিভ রিপোর্ট)- শেখ আশিক।
আতাউল হক মল্লিক ট্রফি (সেরা সাক্ষাৎকার)- সনৎ বাবলা।
বর্ষসেরা ক্রীড়াসাংবাদিক- নোমান মোহাম্মদ।

ক্রিকেট

বৃষ্টি আইনে ভারতকে হারাল অস্ট্রেলিয়া

তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ডাকওয়ার্থ-লুইস পদ্ধতিতে ভারতকে ৪ রানে হারিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। তাতে সিরিজে ১-০-তে এগিয়ে গেলো স্বাগতিকরা। শেষ ওভার পর্যন্ত লড়াই করে‌ও জিততে পারল না ভারত। জয়ের খুব কাছে এসেও পরাজয়ের বেদনায় পুড়তে হলো তাদেরকে।

টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। কিন্তু বৃষ্টির কারণে সেটা হয়ে পরিণত হয়েছিল ১৭ ওভারের ম্যাচে। ব্রিসবেনে রোমাঞ্চকর এই লড়াইয়ে ভারতের লক্ষ্য ছিল ১৭৪ রানের। ওভার প্রতি ১০ রানের বেশি। শুরুর দিকটায় মোটামুটি কক্ষপথেই ছিল বিরাট কোহলির দল। ১০ ওভার শেষে তাদের রান ছিল ২ উইকেটে ৯৩। তবে ছোট হয়ে আসা ম্যাচ, মাথার উপর রানের চাপ। পরের দিকে চালিয়ে খেলতে গিয়ে দ্রুত কয়েকটি উইকেট হারিয়ে ফেলে ভারত।

ওপেনিংয়ে রোহিত শর্মাকে নিয়ে ২৫ বলে ৩৫ রানের জুটি গড়েন ধাওয়ান। ধাওয়ান আসলে একাই খেলেছেন। রোহিত ৮ বলে ৭ রান করে আউট হন। লোকেশ রাহুল ফেরেন ১২ বলে ১৩ রানে। ৮ বল খেলে বিরাট কোহলির সংগ্রহ মাত্র ৪ রান। ১ উইকেটে ৮৪ রানে থাকা ভারত ১০৫ রানের মধ্যে খুইয়ে বসে ৪ উইকেট।

৪২ বলে ১০ বাউন্ডারি আর ২ ছক্কায় ৭৬ রান করে সাজঘরের পথ ধরেন সেট ব্যাটসম্যান ধাওয়ান। তখন ভারত ব্যাকফুটে। সেখান থেকে পঞ্চম উইকেটে দিনেশ কার্তিক আর রিশাভ পান্ত মিলে দারুণ এক জুটি গড়ে দলকে জয়ের স্বপ্ন দেখিয়েছিলেন। পান্ত ১৫ বলে ২০ রান করে আউট হলে ভাঙে এই জুটিটি। শেষ ওভারে ভারতের শেষ আশাটাও শেষ হয়ে যায় ১৩ বলে ৩০ রান করে কার্তিক ফিরলে। অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে ২টি করে উইকেট নেন অ্যাডাম জাম্পা আর মার্কাস স্টয়নিস।

এর আগে গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, ক্রিস লিন আর মার্কাস স্টয়নিসের বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ে ১৭ ওভারে ৪ উইকেটে ১৫৮ রান তুলে অস্ট্রেলিয়া। ২৪ বলে ৪ ছক্কায় ৪৬ রান করেন ম্যাক্সওয়েল। ক্রিস লিন ২০ বলে করেন ৩৭ আর শেষদিকে স্টয়নিস মাত্র ১৯ বলে ৩ বাউন্ডারি আর ১ ছক্কায় খেলেন হার না মানা ৩৩ রানের ইনিংস।

ভারতের পক্ষে ২৪ রানে ২টি উইকেট নেন কুলদ্বীপ যাদব। একটি করে উইকেট জাসপ্রিত বুমরাহ আর খলিল আহমেদের। সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচটি হবে মেলবোর্নে আগামী শুক্রবার।

ফুটবল

জুভেন্টাসেই খুশি দিবালা

ইটালিয়ান জায়ান্ট জুভেন্টাসেই খেলেই খুশি আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড পা‌ওলো দিবালা। তিনি বেশ জোর দিয়েই এ কথা বলেন।

গত রাতেই আর্জেন্টিনার পক্ষে জীবনের প্রথম গোল করেন তিনি। অবশ্য এর আগে থেকেই দিবালার বায়ার্ন মিউনিখে যাোগ দেওয়ার ব্যাপারে গুঞ্জন ছিলো। সে সব উড়িয়ে দিয়ে তিনি জানান, ‘জুভেন্টাসে খেলেই আমি খুশি।’

এরপর দিবালা বলেন, ট্রান্সফার মার্কেটে আলোচনা চলতেই পারে। তাতে যে আমি জুভেন্টাসে খুশি নয় তেমনটা না, এই ক্লাবে খেলেই খুশি। দলবদল নিয়ে আমি ভাবছিনা। সেটা আলোচনার কোনো বিষয় নয়।


ভিডিও
জার্মানির দু:সময় কাটছেই না
ব্রাজিলের কাছে হার আর্জেন্টিনার
More Video
ফেইসবুক

হ্যান্ডবল
গলফ
দাবা
হকি
লন-টেনিস
আর্ন্তজাতিক
সাক্ষাৎকার
সাঁতার
এ্যাথলেটিকস্