ঢাকাSunday , 26 March 2023
  1. অলিম্পিক এসোসিয়েশন
  2. অ্যাথলেটিক
  3. আইপিএল
  4. আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আরচারি
  7. এশিয়া কাপ
  8. এশিয়ান গেমস
  9. এসএ গেমস
  10. কমন ওয়েলথ গেমস
  11. কাবাডি
  12. কুস্তি
  13. ক্রিকেট
  14. টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ
  15. টেনিস

নাটকীয় জয়ে সিরিজ আফগানিস্তানের

parag arman
March 26, 2023 9:23 pm
Link Copied!

পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ জয়ের জন্য শেষ ২ ওভারে আফগানিস্তানের প্রয়োজন ছিল ২২ রান। ম্যাচ ঝুঁকে পড়তে পারে যে কোনো দিকে। মহাগুরুত্বপূর্ণ ১৯তম ওভারের জন্য নাসিম শাহকে আক্রমণে আনলেন শাদাব খান। সেই ওভারেই একটি করে ছক্কা মেরে সমীকরণ সহজ করে ফেললেন নাজিবউল্লাহ জাদরান ও মোহাম্মদ নবি। নাটকীয় লড়াইয়ে পাকিস্তানকে ফের হারিয়ে দিল আফগানিস্তান। শারজায় রোববার রাতে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ৭ উইকেটে জিতেছে রশিদ খানের দল। পাকিস্তানের ১৩০ তারা পেরিয়ে গেছে এক বল বাকি থাকতে।

প্রতিবেশী দেশটির বিপক্ষে প্রথম দ্বি-পাক্ষিক সিরিজ খেলার সুযোগ পেয়েই জিতে নিল আফগানিস্তান। ৩ ম্যাচের সিরিজে এগিয়ে গেল ২-০ ব্যবধানে। প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানকে ৯২ রানে থামিয়ে ৬ উইকেটে জিতেছিল তারা।

শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে পাকিস্তানের শুরুটা হয় দুঃস্বপ্নের মতো। ৩ বলের মধ্যে ফিরে যান টপ অর্ডারের দুই ব্যাটসম্যান সাইম আইয়ুব ও আব্দুল্লাহ শফিক। ফজলহক ফারুকির বলে দুর্দান্ত এক ক্যাচে সাইমকে বিদায় করেন রহমানউল্লাহ গুরবাজ। গোল্ডেন ডাকের স্বাদ পাওয়া শফিক সফল হননি এলবিডব্লিউর রিভিউ নিয়ে। প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে টানা চার টি-টোয়েন্টিতে শূন্য রানে আউটের অনাকাঙ্ক্ষিত রেকর্ড গড়েন তিনি।

পাল্টা আক্রমণ শুরু করে বেশিদূর যেতে পারেননি ওপেনার মোহাম্মদ হারিস। দুই অঙ্ক ছুঁয়ে ১৫ রানে বিদায় নেন তাইয়েব তাহির। দ্রুত ফেরেন আজম খান।

৬৩ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে ধুঁকতে থাকা পাকিস্তান লড়াইয়ের পুঁজি গড়ে ইমাদ ওয়াসিম ও শাদাব খানের ব্যাটে। ৫৪ বলে তারা গড়েন ৫৭ রানের জুটি। ৫৭ বলে দুই ছক্কা ও তিন চারে ৬৪ রানে অপরাজিত থাকেন ওয়াসিম। ২৫ বলে শাদাব করেন ৩২ রান।

আফগান বোলারদের মধ্যে ডাবল উইকেট মেডেন দিয়ে শুরু করা ফারুকি ১৯ রানে নেন ২ উইকেট। ৪ ওভারে কেবল ১৬ রান দেন অধিনায়ক রশিদ।

রান তাড়ায় শুরুতেই উসমান ঘানিকে হারায় আফগানিস্তান। দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে দলকে টানেন গুরবাজ ও ইব্রাহিম জাদরান। দুই জনে যোগ করেন ৫৬ রান। ৪৯ বলে ৪৪ রান করে গুরবাজ রান আউট হলে ভাঙে জুটি। এক ওভার পর বিদায় নেন ইব্রাহিম (৪০ বলে ৩৮)। তারা খুব একটা ঝুঁকি না নেওয়ায় শেষ দিকে কাজটা কঠিন হয়ে গিয়েছিল।

শেষ ৩ ওভারে প্রয়োজন ছিল ৩০ রান। তবে হাতে যথেষ্ট উইকেট থাকায় সম্ভাবনায় একটু এগিয়ে ছিল আফগানিস্তানই। নাসিমের করা ১৯তম ওভারে ১৭ রান নিয়ে ম্যাচ পুরোপুরি নিজেদের মুঠোয় নিয়ে আসেন নাজিবউল্লাহ ও নবি। শেষ ওভারে ৫ রান নিয়েও লড়াই করেন জামান খান, কিন্তু পেরে ওঠেননি দুই অভিজ্ঞ আফগান ব্যাটসম্যানের সঙ্গে। ১২ বলে ২৩ রানে অপরাজিত থাকেন নাজিবউল্লাহ। ৯ বলে নবি করেন ১৪।

একই মাঠে সোমবার পাকিস্তানকে হোয়াইটওয়াশ করার লক্ষ্যে নামবে আফগানিস্তান।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, Bangladesherkhela.com এর দায়ভার নেবে না।