ট্রফির সঙ্গে র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে‌ও আলকারাজ

ট্রফির সঙ্গে র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে‌ও আলকারাজ

ক্যারিয়ারে প্রথম গ্র্যান্ড স্ল্যাম শিরোপা জয় করেছেন স্প্যানিশ টিনএজার কার্লোস আলকারাজ। রোববার ইউএস ওপেনের পুরুষ এককের ফাইনালে ১৯ বছর বয়সী আলকারাজ নরওয়ের কাসপার রুডকে ৬-৪, ২-৬, ৭-৬ (৭/১), ৬-৩ গেমে পরাজিত করে শিরোপা জয়ের কৃতিত্ব দেখান। এই শিরোপা জয়ের পাশাপাশি সবচেয়ে কম বয়সী খেলোয়াড় হিসেবে বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষস্থানটিও দখল করেছেন আলকারাজ।

২০০৫ সালে ফ্রেঞ্চ ওপেনের শিরোপা জিতে এতদিন পর্যন্ত এই রেকর্ডটি ধরে রেখেছিলেন রাফায়েল নাদাল। এছাড়াও ১৯৯০ সালে পিট সাম্প্রাসের পর সবচেয়ে কম বয়সী খেলোয়াড় হিসেবে নিউ ইয়র্কে শিরোপা জিতলেন আলকারাজ।

কাল ম্যাচে ৫৫টি উইনিং শটের পামাপাশি ১৪টি এস মেরেছেন আলকারাজ। এই টুর্নামেন্টে আরো একটি অনন্য রেকর্ড গড়েছেন আলকারাজ। একটি একক গ্র্যান্ড স্ল্যামে সবচেয়ে বেশী সময় ধরে কোর্টে থাকার রেকর্ড গড়েছেন তিনি। ফাইনালসহ সর্বমোট ২৩ ঘন্টা ২১ মিনিট আলকারাজকে শিরোপা জয়ে কোর্টে থাকতে হয়েছে। এই তালিকায় তিনি পিছনে ফেলেছেন ২০১৮ সালের উইম্বলডন রানার-আপ কেভিন এ্যান্ডারসনকে।

ইউএস ওপেনের শিরোপা জিততে পারলে রুডের সামনেও ছিল বিশ্ব র‌্যাঙ্কিয়ের এক নম্বরে ওঠার সুযোগ। এর আগে ফ্রেঞ্চ ওপেনের ফাইনালে নাদালের কাছে পরাজিত হবার পর এনিয়ে এ বছর দ্বিতীয় গ্র্যান্ড স্ল্যামের ফাইনালে হতাশ হতে হলো রুডকে।

উভয় খেলোয়াড়ই কাল নিজেদের প্রথম সার্ভিস গেমে ব্রেক পয়েন্ট রক্ষা করেছেন। প্রথম সেটে আলকারাজ শুধুমাত্র একবার ব্রেক পয়েন্ট অর্জন করে ৩-১ ব্যবধানে এগিয়ে যান। রুড এই গেমটি হারালেও অষ্টম গেমে ডাবল ব্রেক পয়েন্ট অর্জন করে ম্যাচে ফিরে আসেন। যদিও শেষ পর্যন্ত ১৩টি উইনিংস শট খেলে প্রথম সেটটি জিতে নিয়েছিলেন আলকারাজ।

রুডের বিপক্ষে এর আগে দুইবারের মোকাবেলায় দুটিতেই জয় তুলে নিয়েছিলেন আলকারাজ। দ্বিতীয় সেটে ২-২ সমতায় থাকার পর আলকারাজকে আর কোন সুযোগই দেননি রুড। একে একে ব্রেক পয়েন্ট তুলে নিয়ে অনেকটা একপেশে সেটে ৬-২ গেমে জয়ী হন এই নরওয়েজিয়ান। তৃতীয় সেটে আলকারাজ শুরুতেই ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে গিয়েছিরেন। ২৩ বছর বয়সী রুড ১২তম গেমে দুটি সেট পয়েন্ট পেলেও আলকারাজের পরপর দুটি ভলিতে শেষ পর্যন্ত সেটটি টাই ব্রেকে গড়ায়। চতুর্থ সেটে দুর্দান্ত সব এস দিয়ে আলকারাজ ৫-২ ব্যবধানে এগিয়ে যান। এই সেট আর রক্ষা করার সাধ্য ছিলনা রুডের। শেষ পর্যন্ত ৬-৩ গেমে জয়ী হয়ে আলকারাজ ইতিহাস রচনা করেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD