ম্যাথুজের শততম টেস্টের প্রথম দিন ৬ উইকেটে ৩১৫ রান শ্রীলংকার

ম্যাথুজের শততম টেস্টের প্রথম দিন ৬ উইকেটে ৩১৫ রান শ্রীলংকার

সাবেক অধিনায়ক এ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজের মাইলফলক স্পর্শ করা শততম টেস্টের প্রথম দিন শেষে সফরকারী পাকিস্তানের বিপক্ষে শক্ত অবস্থানে স্বাগতিক শ্রীলংকা। গল-এ পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ  টেস্টের প্রথম দিন ৬ উইকেটে ৩১৫ রান করেছে শ্রীলংকা। ৪২ রান করে ম্যাচের প্রথম ইনিংসে আউট হয়েছেন ম্যাথুজ। সিরিজ হার বাচাঁনোর মিশনে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নামে শ্রীলংকা। দলকে দারুন সূচনা এনে দেন লংকান দুই ওপেনার ওশাদা ফার্নান্দো ও অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে। ১২৩ বলে ৯২ রানের জুটি গড়েন তারা। ১৫তম ওভারে দলের রান ৫০এ নিয়ে যান ফার্নান্দো ও করুনারত্নে।

২৩তম ওভারের দ্বিতীয় বলে ছক্কা মেরে টেস্ট ক্যারিয়ারের সপ্তম হাফ-সেঞ্চুরি পুর্ন করেন ওশাদা। কিন্তু পরের বলেই পাকিস্তানের বাঁ-হাতি স্পিনার মোহাম্মদ নাওয়াজের বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে বিদায় নেন তিনি। ৭০ বল খেলে ৪টি চার ও ৩টি ছক্কায় ৫০ রান করেন ওশাদা। ওশাদার বিদায়ে উইকেটে আসেন কুশল মেন্ডিস। ব্যাট হাতে সুবিধা করতে পারেননি তিনি। করুনারত্নের সাথে ভুল বুঝাবুঝিতে রান আউট হওয়ার আগে ১০ বলে ৩ রান করেন কুশল।

দলীয় ৯২ ও ৯৬ রানে প্রথম দুই উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে শ্রীলংকা। সেই চাপ থেকে দলকে মুক্ত করার চেষ্টা করেন করুনারত্নে ও ম্যাথুজ। কিন্তু জুটিতে খুব বেশি রান তুলতে পারেননি তারা। জুটি বড় হবার আগেই তাদের পথের কাটা হয়ে দাঁড়ান পাকিস্তানের আরেক স্পিনার ইয়াসির শাহ। রিভার্স  সুইপ করতে গিয়ে নাসিম শাহকে ক্যাচ দেন ১৪৩ বল খেলে ২টি চারে ৪০ রান করা করুনারত্নে।

১২০ রানে শ্রীলংকার তৃতীয় উইকেট পতনের পর ক্রিজে জুটি বাঁধেন দুই সাবেক অধিনায়ক ম্যাথুজ ও দিনেশ চান্ডিমাল। পাকিস্তান বোলারদের সামনে ধৈর্য্যর পরীক্ষা দেন তারা। তাই উইকেট ধরে খেলতে থাকেন ম্যাথুজ ও চান্ডিমাল। ফলে এই জুটিতেই দলীয় রান ২শ স্পর্শ করার পথেই ছিলো। কিন্তু দলীয় স্কোর ২শ যাবার আগেই, ম্যাথুজ ও চান্ডিমালের জুটি বিচ্ছিন্ন করেন সিরিজে প্রথমবারের মত খেলতে নামা পাকিস্তানের আরেক বাঁ-হাতি স্পিনার নোমান আলি।

উইকেটের পেছনে মোহাম্মদ রিজওয়ানের দারুন এক ক্যাচে শেষ হয় ৫টি চারে ১০৬ বল খেলে ৪২ রান করা ম্যাথুজের ইনিংস। চান্ডিমালের সাথে ১৭৭ বলে ৭৫ রান যোগ করেন তিনি।

দলীয় ১৯৫ রানে ম্যাথুজ ফেরার পর ৯৯ বলে টেস্ট ক্যারিয়ারের ২৪তম হাফ-সেঞ্চুরির দেখা পান চান্ডিমাল।

ম্যাথুজের পর আবারও বড় জুটিতে অবদান রাখেন চান্ডিমাল। এতে সেঞ্চুরির পথেই ছিলেন তিনি। কিন্তু সেঞ্চুরির সম্ভাবনা জাগিয়ে আরও একবার থামেন ইনফর্ম চান্ডিমাল। পঞ্চম উইকেটে ধনাঞ্জয়া ডি সিলভার ৯১ বলে ৬৩ রান তুলে ফিরেন তিনি। নাওয়াজের বল সামনের পায়ে খেলতে গিয়ে শর্ট থার্ডে ফাওয়াদ আলমকে সহজ ক্যাচ দেন চান্ডিমাল। ৯টি চার ও ২টি ছক্কায় ১৩৭ বলে ৮০ রান করেন চান্ডিমাল।

চান্ডিমাল ফেরার ছয় ওভার পর প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন ধনাঞ্জয়াও। পাকিস্তানের পেসার নাসিম শাহর বলে বোল্ড হন তিনি। ৬১ বলে ৩৩ রান করেন ধনাঞ্জয়া। ইনিংসে ৩টি চার ও ১টি ছক্কা মারেন তিনি।

দিনের ৮২তম ওভারে ষষ্ঠ উইকেট হারায় শ্রীলংকা। এরপর ২৮ বল খেলা হবার পর, দিনের খেলার ইতি ঘটে। এসময় ২৫ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়েন উইকেটরক্ষক নিরোশান ডিকবেলা ও দুনিথ ওয়েললাগে। ডিকবেলা ৪৩ বলে ৪২ ও ওয়েললাগে ৬ রানে অপরাজিত আছেন।  

পাকিস্তানের নাওয়াজ ২টি, নাসিম-নোমান ও ইয়াসির ১টি করে উইকেট নেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD