মিয়ামিকে ৬-০ গোলে বিধ্বস্ত করেছে বার্সেলোনা

মিয়ামিকে ৬-০ গোলে বিধ্বস্ত করেছে বার্সেলোনা

বার্সেলোনার জার্সি গায়ে দুর্দান্ত অভিষেক হয়েছে ব্রাজিলিয়ান উইঙ্গার রাফিনহার। গতকাল ডেভিড বেকহ্যামের ইন্টার মিয়ামির বিপক্ষে প্রাক-মৌসুম প্রীতি ম্যাচে বার্সেলোনা ৬-০ গোলের উড়ন্ত জয় তুলে নিয়েছে। এই ম্যাচে রাফিনহা এক গোল করা ছাড়াও সতীর্থদের দুটি গোলে সহযোগিতা করেছেন। এর মাধ্যমে কাতালান জায়ান্টদের চার ম্যাচের যুক্তরাষ্ট্র সফরটা দারুনভাবে শুরু হলো।

এ মাসের শুরুতে ৬০ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে প্রিমিয়ার লিগের ক্লাব লিডস থেকে বার্সেলোনায় যোগ দেন রাফিনহা। ফ্লোরিডার ডিআরভি পিএসকে স্টেডিয়ামে পিয়েরে এমেরিক-অমাবেয়াংয়ের গোলে ১৯ মিনিটে এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। এই ম্যাচের যোগানদাতা রাফিনহা ২৫ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুন করেন। আনুষ্ঠানিক ভাবে চুক্তির ঘোষনা বুধবারের ম্যাচের আগে না আসায় আরেক নতুন চুক্তিভূক্ত রবার্ট লিওয়ানদোস্কি  কাল মাঠে ছিলেন না।

ম্যাচ শেষে রাফিনহা বলেছেন, ‘প্রথম গোল করতে পেরে আমি দারুন খুশী। আশা করছি নিজের সেরাটা দিয়ে বার্সেলোনাকে এগিয়ে যেতে প্রতিটি ম্যাচেই সহযোগিতা করতে পারবো। এই ক্লাবের পরিকল্পনার সাথে আমি সহজেই মানিয়ে নিতে পেরেছি, সে কারনেই আত্মবিশ্বাসটা আরো বেড়েছে।’ রাফিনহার সাথে কাল বার্সেলোনার জার্সি গায়ে মূল একাদশে আরো অভিষেক হয়েছে আন্দ্রেস ক্রিস্টেনসেনের। মৌসুমের শেষে চেলসি থেকে ক্রিস্টেনসেন বার্সায় যোগ দিয়েছেন।

এমএলএস দলটির বিপক্ষে বার্সেলোনা যে আধিপত্য দেখাবে তা প্রত্যাশিতই ছিল। বিরতির ঠিক আগে রাফিনহার আরো এক এ্যাসিস্টে আনসু ফাতি পোস্টের খুব কাছে থেকে ব্যবধান ৩-০’তে নিয়ে যান।

মিয়ামি কোচ ফিলিপ নেভিলে বলেছেন, ‘এটা আমাদের জন্য অনেক বড় একটি চ্যালেঞ্জ ছিল। আমরা বিশ্বের শীর্ষ খেলোয়াড়দের বিপক্ষে মাঠে নেমেছিলাম। ম্যাচটি আমাদের জন্য দারুন উপভোগ্য ছিল। আমার দলের বেশ কিছু তরুণ খেলোয়াড়ের জন্য এটি ছিল সারাজীবনের জন্য একটি অভিজ্ঞতা। এটা তাদের কারো কারোর জন্য ক্যারিয়ার  পরিবর্তনকারী ম্যাচ হতে পারে। আমরা জানতাম তাদের বিপক্ষে খেলাটা মোটেই সহজ নয়। ৬-০ গোলের পরাজয়টা আমরা ইতিবাচক হিসেবেই দেখছি। এটা আমাদের জন্য দারুন একটা শিক্ষনীয় ম্যাচ ছিল। এই অভিজ্ঞতা আমরা এমএলএস’এ কাজে লাগাবো। শনিবার নিউ ইয়র্ক সিটির বিপক্ষে আমাদের  বড় একটি ম্যাচ রয়েছে।’

বিরতির পর উভয় দলই বেশ কিছু পরিবর্তন করে। ৫৫ মিনিটে মেমফিস ডিপের কর্ণার থেকে গাভির দুর্দান্ত ফিনিশিংয়ে বার্সেলোনা চতুর্থ গোল উপহার পায়। ডাচ ফরোয়ার্ড ডিপে ৬৯ মিনিটে আরো এক গোল করেন। ২০ মিনিট বাকি থাকতে ওসমানে ডেম্বেলে বার্সেলোনার হয়ে ষষ্ঠ গোলটি করেন।

আগামী ১২ আগস্ট থেকে লা লিগার নতুন মৌসুম শুরু হবার আগে এই যুক্তরাষ্ট্র সফরে বার্সেলোনা চির প্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদ, ইতালিয়ান জায়ান্ট জুভেন্টাস ও নিউ ইয়র্ক রেড বুলসের বিপক্ষে মাঠে নামবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD