ক্রীড়াঙ্গনে রাশিয়া নিষিদ্ধ

ক্রীড়াঙ্গনে রাশিয়া নিষিদ্ধ

ইউক্রেনে যুদ্ধের আঁচ লেগেছে বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গনেও। এই আগ্রাসনের বিরোধীতা করে ইতিমধ্যে রাশিয়াকে সব ধরনের প্রতিযোগিতা থেকে নিষিদ্ধ করেছে ফিফা এবং উয়েফা। একই সিদ্ধান্ত নেয়ার পথে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটিও। তবে একে আন্তর্জাতিক ক্রীড়া আইনের পরিপন্থী বলে দাবি করেছে রাশিয়া।

কে ভেবেছিলেন পুতিন-ইনফান্তিনো সম্পর্কটা একসময় ১৮০ ডিগ্রীও ঘুড়ে যেতে পারে। ফিফার সভাপতি হিসেবে ইনফান্তিনোর বার্তাটা এখন পরিস্কার। যুদ্ধ বন্ধ করো পুতিন। ফিফা জানালো পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত সব ধরনের আন্তর্জাতিক ফুটবলে নিষিদ্ধ থাকবে রাশিয়া। যৌথ বিবৃতিতে উয়েফাও উল্লেখ করে, রাশিয়ান ক্লাবগুলো ইউরোপিয়ান কোন প্রতিযোগিতায় খেলতে পারবেনা। এতে কোরে বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব থেকে নিষিদ্ধ হলো রাশিয়া। প্রেক্ষাপট বলছে কাতার বিশ্বকাপ খেলা হচ্ছেনা তাদের। ইউরোপার শেষ ষোলোয় নিষিদ্ধ হলো রুশ ক্লাব স্পার্তাক মস্কো।

কিন্ত রাশিয়ান ফুটবল ইউনিয়ন এমন সিদ্ধান্তকে স্পোর্টিং স্পিরিট এবং আন্তর্জাতিক ক্রীড়া আইনের পরিপন্থী দাবি করে এর বিরুদ্ধে আপিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তারা বলছে, এই ধরনের কাজ বিশ্ব ক্রীড়া সম্প্রদায়কে বিভক্ত করবে। এবং এটা স্পষ্টতই বৈষম্যমুলক। আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির বোর্ড সভায় পরিচালকরা রাশিয়ান এবং বেলারুশের অ্যাথলেটদের সব ধরনের খেলায় অনুমতি না দেয়ার প্রস্তাব তুলেছেন।

ন্যাশনাল হকি লিগ ঘোষণা দিয়েছে রাশিয়ার সাথে সব ধরনের বানিজ্যিক সম্পর্ক ছিন্ন করতে চলেছে তারা। আন্তর্জাতিক আইস হকি ফেডারেশন রাশিয়া ও বেলারুশকে সব ধরনের প্রতিযোগিতা থেকে নিষিদ্ধ করেছে। একই সিদ্ধান্ত নেয়ার পদক্ষেপ নিয়েছে ওয়ার্ল্ড কার্লিং ফেডারেশন এবং রাগবির সর্বোচ্চ সংস্থাও। সব মিলিয়ে প্রবল চাপে রাশিয়ার ক্রীড়াঙ্গন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD