বিপিএল ক্রিকেট উন্মাদনা শুরু কাল

বিপিএল ক্রিকেট উন্মাদনা শুরু কাল

দুই বছর পর আগামীকাল শুক্রবার থেকে বহুল প্রত্যাশিত বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) শুরু হচ্ছে। ছয় দলকে নিয়ে মাঠে গড়াবে ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক এবারের টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট। বিপিএল দিয়ে উন্মাদনায় মেতে উঠবে দেশের ক্রিকেট। চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স এবং ফরচুন বরিশালের মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে দুপুর দেড়টায় পর্দা উঠবে টুর্নামেন্টের অষ্টম আসরের। দিনের অন্য ম্যাচে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় খেলবে মিনিস্টার গ্রুপ ঢাকা ও খুলনা টাইগার্স। ম্যাচগুলো সরাসরি সম্প্রচার করবে গাজী টিভি ও টি স্পোর্টস। টুর্নামেন্টের অন্য দু’টি দল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ও সিলেট সানরাইজার্স।

দু’টি ম্যাচই হবে মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। প্রতিদিন দু’টি করে ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। শেরে বাংলা স্টেডিয়াম ছাড়াও চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম (জেডএসিএস) এবং সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে (এসআইসিএস) হবে খেলা।

কোভিড-১৯ এর কারণে গত দুই বছর টুর্নামেন্ট আয়োজন করতে পারেনি বিসিবি। এই বছরও টুর্নামেন্টটি করোনাভাইরাসের নতুন রূপের (ওমিক্রন) মধ্যেই অনুষ্ঠিত হচ্ছে। কিন্তু কোভিড-১৯এর হুমকির মধ্যে টুর্নামেন্ট এবং আন্তর্জাতিক সিরিজ পরিচালনার জন্য যথেষ্ট অভিজ্ঞ থাকায় কোন সমস্যা ছাড়াই বিপিএল শেষ করতে আত্মবিশ্বাসী বিসিবি।

ছয়টি ফ্র্যাঞ্চাইজির খেলোয়াড়, সাপোর্ট স্টাফ এবং অন্যান্য স্টোকহোল্ডাররা বায়ো-বাবলে প্রবেশ করার আগে, বিসিবি মেডিকেল টিম ঘন ঘন পরীক্ষা করেছে। কিছু খেলোয়াড় এবং কর্মকর্তাদের কোভিড পজিটিভ পাওয়া গিয়েছে। তাদের আইসোলেশনে নেয়া হয়েছে। যেকোনও ঝুঁকি এড়াতে মেডিকেল টিম ঘন ঘন পরীক্ষা চালিয়ে যাবে।

বিপিএলের টাইটেল স্পন্সর বিবিএস ক্যাবলস এবং পাওয়ার স্পন্সর ওয়ালটন। ২৭ দিনের প্লে অফ ও ফাইনাল সহ মোট ৩৪টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। চ্যাম্পিয়ন দল পাবে ১ কোটি টাকা এবং রানার্স আপ পাবে ৫০ লাখ টাকা।

যদিও পিএসএলের একই সময়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে বিপিএল। তবে পিএসএলকে বাদ দিয়ে আন্দ্রে রাসেল, ফাফ ডু-প্লেসিস, মঈন আলি, সুনীল নারাইন, ডোয়াইন ব্রাভো, ক্রিস গেইল এবং আরও কিছু তারকা বিদেশী খেলোয়াড় আছেন, যারা বিপিএলের ব্র্যান্ড ভ্যালু।

কিন্তু এখনও কিছু ত্রুটি রয়েছে, যার মধ্যে ডিআরএস না থাকাটা প্রধান। তবে খেলোয়াড় কিংবা কর্মকর্তারা কেউই অন্তত প্রকাশ্যে উদ্ব্গ্নি নন।

দেশে করোনাভাইরাসের উর্ধ্ব গতির সংক্রমন বিবেচনায় দর্শক ছাড়া, ফাঁকা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে এবারের বিপিএল।

বিপিএলের সচিব, ইসমাইল হায়দার মল্লিক জানিয়েছেন, এই বিপিএলের পর ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোর সাথে দীর্ঘমেয়াদী চুক্তি করবেন তারা।

তিনি বলেন, ‘পরবর্তী বিপিএলটি সঠিকভাবে হবে, কারণ আমরা ফ্র্যাঞ্চাইজির সাথে দীর্ঘমেয়াদী চুক্তি করবো, যাতে তারাও দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা নিয়ে এখানে আসতে পারে।’

এদিকে আগামীকাল যে চারটি দল মাঠে নামছে, সকলেই এবারের আসরে ভালো করার ব্যাপারে আশাবাদি। মিনিস্টার গ্রুপ ঢাকার অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ বলেন, ‘টুর্নামেন্টের শুরু থেকেই ছন্দে থাকাটা অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। তাই উদ্বোধনী ম্যাচে ভালো শুরু করতে চাই।’

দল হিসেবে খেলতে চান ফরচুন বরিশাল অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। তিনি বলেন, ‘কোন চাপ নেই। যদিও আমরা জানি যে, ছয়টি দলের সকলেই শক্তির দিক থেকে সমান। আমরা পুরো টুর্নামেন্ট জুড়ে একটি ইউনিট হিসাবে খেলতে চাই।’

চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের অধিনায়ক মেহেদি হাসান মিরাজ বলেন, বুদ্ধিমত্তার সাথে অধিনায়কত্বের দায়িত্ব সামলাতে চান তিনি। মিরাজ বলেন, ‘আমাদের একটি ভারসাম্যপূর্ণ দল আছে এবং আমি আশা করি আমরা একটি কাঙ্খিত ফলাফল পাবো। একজন অধিনায়ক হিসাবে আমি একটি উদাহরণ তৈরি করতে চাই।’

সামনে থেকে নেতৃত্ব দেয়ার লক্ষ্য খুলনা টাইগার্সের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমের। তিনি বলেন, ‘গত বছর, আমরা শিরোপা জয়ের খুব কাছাকাছি গিয়েছিলাম। কিন্তু পারিনি। এ বছর আমরা অধরা ট্রফিটি পাবার চেষ্টা করবো। আশা করি আমরা পারবো এবং টুর্নামেন্টটিকে আমাদের জন্য স্মরণীয় করে রাখতে পারবো।’

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD