শেষ মুহূর্তের দুই গোলে ভিয়ারিয়ালকে হারাল বার্সেলোনা

শেষ মুহূর্তের দুই গোলে ভিয়ারিয়ালকে হারাল বার্সেলোনা

নতুন কোচ জাভি হার্নান্দেজের অধীনে এই মৌসুমে প্রথম এ্যাওয়ে ম্যাচে জয় পেয়েছে বার্সেলোনা। মেমফিস ডিপে ও ফিলিপ কুটিনহোর শেষ মুহূর্তের দুই গোলে শনিবার লা লিগায় ভিয়ারিয়ালকে ৩-১ গোলে বিধ্বস্ত করে কাতালানরা। এর আগে এবারের মৌসুমে প্রথম পাঁচটি এ্যাওয়ে ম্যাচে জয়হীন ছিল বার্সা। কিন্তু জাভি আসাতে প্রথম ম্যাচেই জয়ের দেখা পেল স্প্যানিশ ক্লাবটি। এ নিয়ে ৪১ বছর বয়সী সাবেক তারকা জাভির কল্যানে লা লিগার দুটি ম্যাচে জয়ে পেয়েছে বার্সা। এছাড়া সপ্তাহের মাঝামাঝিতে বেনফিকার সাথে ন্যু ক্যাম্পে গোলশুন্য ড্র করেছে।

কালকের পুরো ম্যাচে নিজেদের মাাঠে বেশ কিছু ভাল সুযোগ নষ্ট করেছে ভিয়ারিয়াল। তবে ৮৮ মিনিটে রক্ষনভাগের ভুলে ডিপে বার্সাকে এগিয়ে দেবার সুযোগ পান। ইনজুরি টাইমে পেনাল্টি স্পট থেকে ব্যবধান বাড়িয়েছেন কুটিনহো। এর আগে প্রথমার্ধ শুন্য থাকার পর ফ্রেংকি ডি জংয়ের গোলে বিরতির পরপরই এগিয়ে গিয়েছিল সফরকারীরা। ভিয়ারিয়ালের হয়ে ৭৬ মিনিটে সমতা ফেরান স্যামুয়েল চুকওয়েইজি।

ম্যাচ শেষে জাভি বলেছেন, ‘এই ম্যাচটিতে আমরা অপেক্ষাকৃত কম প্রাধান্য বিস্তার করে খেলেছি, কিন্তু শেষ পর্যন্ত আমরাই জয়ী হয়েছি। এর আগে মঙ্গলবার আমাদের জয় পাওয়া উচিত ছিল, কিন্তু আমরা ড্র করে পয়েন্ট হারিয়েছি। আজকের ম্যাচের জয়টা সত্যিই জরুরী ছিল।’

এই জয়ের পরেও শীর্ষে থাকা রিয়াল মাদ্রিদের তুলনায় সাত পয়েন্ট পিছিয়ে ৭ম স্থানে রয়েছে কাতালানরা। ২৬ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের চতুর্থ স্থানে রয়েছে এ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ।

কাল ম্যাচের সবচেয়ে হতাশাজনক বিষয় ছিল জোডি আলবার ইনজুরি। ইনজুরির কারনে ৭১ মিনিটে মাঠ ছাড়তে বাধ্য হন এই স্প্যানিশ ডিফেন্ডার। দুই সপ্তাহ পর বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্বে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে এখন আলবাকে পাওয়া নিয়ে শঙ্কা দেখা দিয়েছে।

ম্যাচের প্রথম ৯ মিনিটে একের পর এক আক্রমনে ভিয়ারিয়ালকে অনেকটাই কোনঠাসা করে ফেলেছিল বার্সেলোনা। তারই ধারাবাহিকতায় বার্সার দুটি শট পোস্টে লেগে ফেরত আসে। মরক্কোর ১৯ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড আবদে এজ্জালজুলির হেড কোনরকমে কর্ণারের মাধ্যমে রক্ষা করেন ভিয়ারিয়াল গোলরক্ষক জেরোনিমো রুলি। এরিক গার্সিয়ার ব্যাকপাস মাঝ পথ থেকে কেড়ে নিয়ে পোস্টে শট করেছিলেন আরনাত ডাজুমা। কিন্তু স্লাইডিং করে তা ব্লক করেন জেরার্ড পিকে। ইয়েরেমি পিনো ও প’ টরেসের হেড পোস্টের উপর দিয়ে বাইরে চলে গেলে এগিয়ে যাওয়া হয়নি ভিয়ারিয়ালের। দারুনভাবে বার্সেলোনাকে রুখে দিয়ে প্রথমার্ধ গোলশুন্য ভাবে শেষ করে স্বাগতিকরা।

কিন্তু বিরতির তিন মিনিটের মধ্যে আলবার ভলি থেকে আবদের ক্রসব্যাকে ডি জং বার্সেলোনাকে এগিয়ে দেন। কিন্তু এই গোলের পর ক্রমশই ম্যাচের নিয়ন্ত্রন হারাতে থাকে বার্সা। তার উপর ইনজুরির কারনে আলবার মাঠত্যাগে বার্সেলোনা আরো কিছুটা পিছিয়ে পড়ে। এই সুযোগে চুকওয়েইজি ভিয়ারিয়ালকে সমতায় ফেরান। মানু ট্রিগুয়েরোসের দুটি প্রচেষ্টা ব্যর্থ হলে এগিয়ে যাওয়া হয়নি স্বাগতিকদের। ভিয়ারিয়ালের রক্ষনভাগের ছন্নছাড়া পারফরমেন্সে আবারো এগিয়ে যাবার সুযোগ পায় বার্সা। এবার সুযোগটি কাজে লাগিয়েছেন ডিপে। বদলী খেলোয়াড় পারভিস এস্তাপিনানের ফ্লিকে রাওল আলবিওল বল ধরনে ব্যর্থ হলে ডিপে দারুন ফিনিশিংয়ে আবারো বার্সাকে এগিয়ে দেন। অতিরিক্ত সময়ে কুটিনহোকে ফাউল করা হুয়ান ফয়েথের বিপক্ষে পেনাল্টি আদায় করে নেয় বার্সা। স্পট কিক থেকে ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার কুটিনহো কোন ভুল করেননি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD