১০ জনের চেলসির সঙ্গে‌ও জিতল না লিভারপুল

১০ জনের চেলসির সঙ্গে‌ও জিতল না লিভারপুল

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ

প্রিমিয়ার লিগের নতুন মৌসুমে প্রথম হেভিওয়েট ম্যাচে লিভারপুল-চেলসির মধ্যে কেউ জিততে পারেনি। অ্যানফিল্ডে দ্বিতীয়ার্ধের প্রায় পুরোটা সময় চেলসি ১০জন নিয়ে খেললেও শেষ পর্যন্ত স্বাগতিক লিভারপুল তা কাজে লাগাতে পারেনি। ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্র হয়েছে। 

প্রথমার্ধের ইনজুরি টাইমে রিস জেমস লাল কার্ড দেখে মাঠে বাইরে চলে গেলে বাকি সময় একজন কম নিয়েই খেলতে হয়েছে চেলসিকে। তার আগে ২২ মিনিটে কেই হাভার্টজের গোলে এগিয়ে গিয়েছিল ব্লুজরা। নিজেদের গোললাইনে হ্যান্ডবলের অপরাধে জেমস লাল কার্ড দেখেন, বিপরীতে লিভারপুল পেনাল্টি উপহার পায়। স্পট কিক থেকে রেডসের সমতায় ফেরান মোহাম্মদ সালাহ। কিন্তু এরপর ইউরোপীয়ান চ্যাম্পিয়নদের কঠোর প্রতিরোধের মুখে জার্গেন ক্লপের দল আর পেরে উঠেনি।

এই দুই দল ছাড়াও ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডো ফিরে আসায় ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডও এবারের মৌসুমে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটির উপর যে শিরোপা জয়ে দারুন একটি চাপ ফেলবে তা নি:সন্দে বলা যায়। মৌসুমের প্রথম বড় ম্যাচে তার প্রমানও পাওয়া গেছে। এ্যানফিল্ডে পুরো ৯০ মিনিটই একে অপরের সাথে পাল্লা দিয়ে লড়াই করে গেছে দুই দল। গত মৌসুমে বেশ কিছু তারকা খেলোয়াড়ের দীর্ঘ ইনজুরি শিরোপা ধরে রাখতে লিভারপুলের পথে বাঁধার সৃষ্টি করেছিল। তবে রক্ষনভাগের কেন্দ্রে কাল ভার্জিল ফন ডাইক ও জোয়েল মাটিপ গত মৌসুমের ইনজুরি কাটিয়ে নিজেদের প্রমান করেছেন। তাদের সাথে সমন্বয় করে জর্ডান হেন্ডারসন ও ফ্যাবিনহো তাদের পরিচিত মধ্যমাঠের দায়িত্ব সঠিকভাবেই পালন করেছেন। নীচে থেকে চাপ সৃষ্টি করা ও একের পর এক কাউন্টার এ্যাটাক থেকে এগিয়ে যাওয়াই কাল রেডসদের ম্যাচের প্রথমভাগে অনেকটাই এগিয়ে রেখেছিল। থিয়াগো আলচানতারাকে বেঞ্চে বসিয়ে কাল ক্লপ ১৮ বছর বয়সী ইংলিশ মিডফিল্ডার হার্ভি এলিয়টকে মাঠে নামিয়েছিলেন। এনিয়ে প্রিমিয়ার লিগে দ্বিতীয়বারের মত মূল একাদশে সুযোগ পেলেন এলিয়ট।

স্বাগতিকদের হয়ে তিনিই প্রথম শটটি নিয়েছিলেন। কিন্তু অল্পের জন্য তা বাইরে চলে যায়। ট্রেন্ট আলেক্সান্দার-আর্নল্ডের নিখুঁত ক্রস থেকে হেন্ডারসেনর বাম পায়ের ভলি গোলের ঠিকানা খুঁজে পায়নি। ২২ মিনিটে জেমসের কর্ণার থেকে হাভার্টজের হেডে এগিয়ে যাবার আগ পর্যন্ত চেলসি তেমন একটা সুযোগ সৃষ্টি করতে পারেনি। প্রথমার্ধের শেষ মুহূর্তে গেম পরিবর্তনকারী ঘটনাটি না ঘটলে এ্যানফিল্ডে কাল চেলসির দাপটই দেখা যেত। গত সপ্তাহে আর্সেনালের বিপক্ষে চেলসির হয়ে অভিষিক্ত রোমেলু লুকাকু অবশ্য কাল ফন ডাইকের বিপক্ষে খুব একটা সুবিধা করতে পারেননি। এলিয়টের আরো একটি শট গোলবারের উপর দিয়ে বাইরে চলে যায়। স্টপেজ টাইমে কর্ণার থেকে মূল ঘটনাটির সূত্রপাত। জোয়েল মাটিপের হেড ক্রসবারে লাগার পর  সাদিও মানের প্রচেষ্টা গোললাইন থেকে ফেরান জেমস, কিন্তু বল চেলসি ডিফেন্ডারের হাতে লাগায় পেনাল্টির জোরালো আবেদন করেন লিভারপুলের খেলোয়াড়রা। ভিএআরের সাহায্যে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি, আর জেমসকে সরাসরি দেখান লাল কার্ড। স্পট কিকে বল জালে পাঠাতে ভুল করেননি সালাহ। পেনাল্টির সিদ্ধান্তটি কোনভাবেই মেনে নিতে পারেননি চেলসি খেলোয়াড়রা। গোলের পর বিতন্ডায় চেলসি গোলরক্ষক এডুয়ার্ড মেন্ডি ও ডিফেন্ডার এন্টোনিও রুডিগারকে হলুদ কার্ড দেখানো হয়।

বিরতির পর ইনজুরির কারনে আর মাঠে নামতে পারেননি মিডফিল্ডার এন’গোলে কান্টে, যা চেলসি বস থমাস টাচেলের জন্য আরো একটি দু:সংবাদ ছিল। রক্ষনভাগে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে হাভার্টজের পরিবর্তে এবারের মৌসুমে প্রথমবারের মত টাচেল মাঠে নামান থিয়াগো সিলভাকে। শেষ পর্যন্ত স্বাগতিকরা অবশ্য একজন বেশী নিয়ে খেলার সুবিধাকে আর কাজে লাগাতে পারেনি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD