মেসি থাকছেন না বার্সেলোনায়

মেসি থাকছেন না বার্সেলোনায়

বার্সেলোনায় থাকছেন না আর্জেন্টাইন তালিসমান লি‌ওনেল মেসি। কিছুক্ষণ আগে ক্লাব বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। বার্সার ‌ওয়েবসাইটে দেয়া এক বিবৃতিতে জানায়, স্প্যানিশ লিগের রেজুলেশন অনুযায়ী আর্থিক বাধ্যবাধকতা থাকার কারণে মেসিকে ধরে রাখা যাচ্ছে না। 

প্রায় এক মাস দীর্ঘ ছুটি শেষে লিওনেল মেসি ফিরেছিলেন বার্সেলোনায়। কাতালানদের সঙ্গে নতুন চুক্তি করার অপেক্ষায় ছিলেন তিনি। স্প্যানিশ সংবাদ মাধ্যম শোনাচ্ছে নতুন খবর, ক্লাবের অর্থনৈতিক অবস্থা মেসিকে বার্সায় থাকতে দিচ্ছে না আর! অথচ অর্ধেক বেতন কমিয়ে নতুন চুক্তি নিয়ে আরও সপ্তাহ তিনেক আগেই সম্মত হয়েছিল বার্সা আর মেসি পক্ষ। 

স্প্যানিশ ক্রীড়াদৈনিক মার্কা, ইএসপিএন স্পেনা আর রেডিও কাতালুনিয়া জানায়, ‌‘মেসির নতুন চুক্তির পরিস্থিতি পুরোপুরি বদলে গেছে। পরিস্থিতি এমন দাঁড়িয়েছে যে এখন মেসির বার্সেলোনায় থাকাটা প্রায় অসম্ভব। সিভিসিকে নিয়ে লা লিগা যে প্রস্তাব দিয়েছে বার্সেলোনাকে, তা বার্সেলোনার পক্ষে মেনে নেওয়া অসম্ভব। এ কারণে ভবিষ্যতে সুপার লিগের মাঠে গড়ানোর সম্ভাবনা প্রায় শূন্যের কোঠায় নেমে আসবে।’

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক লগ্নিকারক প্রতিষ্ঠান সিভিসির সঙ্গে লা লিগার চুক্তির ফলে বার্সেলোনা পেতে পারত ২৭ কোটি ইউরোর মতো অর্থ। কিন্তু সেক্ষেত্রে ভবিষ্যতে সুপার লিগ আয়োজনের ভাবনা থেকে আসতে হবে সরে। লা লিগার এমন শর্তই মূলত বার্সেলোনাকে ফেলে দিয়েছে বিপাকে। সৃষ্টি হয় মেসি না সুপার লিগ? এমন পরিস্থিতি। বর্তমান ও ভবিষ্যত বিচারে যা বার্সেলোনায় দোটানার সৃষ্টি করে।

সুপার লিগের কথা ভেবে সিভিসির সঙ্গে সে চুক্তি নাকচ করলে বড় অঙ্কের অর্থ থেকে বঞ্চিত হবে বার্সা। এখন প্রশ্ন আসতে পারে, সেটা হলে মেসিকে রাখতে কী সমস্যা? পরিস্থিতি আগেই ঘোলাটে করে রেখেছে লিগের নতুন নিয়ম। করোনাকালে ক্লাবগুলোর আর্থিক পরিস্থিতি যেন আরও খারাপের দিকে না গড়ায়, সেজন্য দলগুলোর আয়ের ওপর নির্ভর করে খেলোয়াড়দের বেতনের জন্য নির্দিষ্ট একটা অঙ্ক বেঁধে দিয়েছে লা লিগা। 

স্প্যানিশ সংবাদ মাধ্যম জানায়, সংখ্যাটা বার্ষিক ২০০ মিলিয়ন ইউরোর কাছাকাছি। যেখানে বার্সেলোনার বার্ষিক খেলোয়াড়দের বেতন বাবদ খরচ হয় তার দ্বিগুণের কাছাকাছি। সেজন্যেই মেসি অর্ধেক বেতন কমিয়ে থেকে যাওয়ায় সম্মত হয়েছিলেন। কিন্তু পরিস্থিতি কঠিন করেছেন বার্সেলোনার অন্য খেলোয়াড়রা। মেসি ছাড়া বার্সার ‘পঞ্চপাণ্ডব’ জেরার্ড পিকে, সার্জিও বুস্কেটস, জর্দি আলবা, মার্ক আন্দ্রে টের স্টেগেন, আর সার্জি রবার্তো সবাই বেতন কমাতে সম্মত হলেও বাকিরা তাতে রাজি নন আদৌ। তাতেই লিগের বেঁধে দেওয়া সীমা অতিক্রম হয়ে যাচ্ছে বার্সার। 

এমন পরিস্থিতিতে সিভিসির ওই অর্থ এক পশলা শান্তির সুবাতাসই নিয়ে এসেছিল। কিন্তু এখন ভবিষ্যতের কথা ভেবে সে চুক্তিতে সায় না দিলে মেসি-বার্সার নতুন চুক্তির দেখা আদৌ মিলবে কিনা, তা নিয়েও সৃষ্টি হয়েছে শঙ্কা। 

এমন পরিস্থিতিতে ক্লাব এবং মেসি বিচ্ছেদই মেনে নেন। ক্লাবে না থাকলে‌ও মেসির সঙ্গে যে বার্সেলোনার সম্পর্ক শেষ হয়ে যাচ্ছে তা নয়। দুই পক্ষই এ ব্যাপারে সম্মত হয়েছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD