প্যারাগুয়েকে হারিয়ে শীর্ষেই ব্রাজিল

প্যারাগুয়েকে হারিয়ে শীর্ষেই ব্রাজিল

প্যারাগুয়েকে ২-০ গোলে পরাজিত করে বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের ম্যাচে জয় পেলো ব্রাজিল। এতে ২০২২ কাতার বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বের পথে অপ্রতিরোধ্য গতিতে এগিয়ে চলছে নেইমারদের দল। আজ বুধবার বাংলাদেশ সময় সকালে স্তাদিও দিফেনসোরেস দেল চাকোতে, শুরুতে নেইমারের গোলে এগিয়ে যায় পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। যোগ করা সময়ে দ্বিতীয় গোলটি করেন বদলি খেলোয়াড় লুকাস পাকুয়েতা।

এ জয়ে ৬ ম্যাচে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে ল্যাটিন আমেরিকা অঞ্চলে শীর্ষস্থান আরও মজবুত করল ব্রাজিল। সমান ম্যাচে ৭ পয়েন্ট নিয়ে ষষ্ঠ স্থানে আছে প্যারাগুয়ে। কলম্বিয়ার বিপক্ষে ২-২ গোলে ড্র করা আর্জেন্টিনা সমান ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে আছে দ্বিতীয় স্থানে।

ঘরের মাঠে এদিন ব্রাজিলের বিপক্ষে প্রায় সমান তালেই লড়াই করে প্যারাগুয়ে। বলের দখলও ছিল একেবারে সমান সমান। গোল করার মতো প্রথম সুযোগটা পেয়েছিল প্যারাগুয়েই। দ্বিতীয় মিনিটেই মিগেল আলমিরনের শট দানিলো ব্লক না করলে এগিয়ে যেতে পারতো স্বাগতিকরা। এর দুই মিনিট পরই গোল পায় ব্রাজিল। ডান প্রান্ত থেকে গ্যাব্রিয়েল জেসুস কাটব্যাক করেছিলেন রিচার্লসনের উদ্দেশ্যে। ঠিকভাবে ধরতে পারেননি এভারটনের এই ফরোয়ার্ড। তার পায়ে বল লেগে ফাঁকায় চলে যায় নেইমারের কাছে। বল ধরে দেখে শুনে সময় নিয়ে জালে পাঠান পিএসজির এই ফরোয়ার্ড।

৮ মিনিটে দূরপাল্লার বুলেট গতির শট নিয়েছিলেন ওমর আলদেরাত। তবে ঝাঁপিয়ে কর্নারের বিনিময়ে দলকে রক্ষা করেন ব্রাজিলিয়ান গোলরক্ষক এদেরসন মোয়ারেস। ১৩ মিনিটে ব্যবধান বাড়ানোর সহজ এক সুযোগ নষ্ট করেন রিচার্লিসন। ডান প্রান্ত থেকে ফ্রেডের বাড়ানো দারুণ থ্রু পাস নিয়ন্ত্রণে নিয়েছিলেন তিনি। সময়ও পেয়েছিলেন। কিন্তু ভালো শট নিতে পারেননি। গোলরক্ষক বরাবর শট নিলে নষ্ট হয় সে সুযোগ।

২৪ মিনিটে সমতায় ফেরার সুযোগ ছিল প্যারাগুয়ের। রবার্ট রোজাসের পাস থেকে নেওয়া আলমিরনের শট দারুণ দক্ষতায় ব্লক করেন এদের মিলিতাও। প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে বল জালে জড়িয়েছিলেন রিচার্লিসন। তবে অফসাইডের কারণে বাতিল হয় সে গোল। তাতে ১-০ গোলে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় ব্রাজিল।

বিরতি থেকে ফিরে খেলার ৪৮ মিনিটেও সমতায় ফেরার সুযোগ ছিল স্বাগতিকদের। থ্রো-ইন থেকে ভালো হেড নিয়েছিলেন গুস্তাভো গোমেজ। তবে এবারও বাঁধা হয়ে দাঁড়ান গোলরক্ষক এদেরসন। ছয় মিনিট পর নিজেদের অর্ধ থেকে তিন খেলোয়াড়কে কাটিয়ে জেসুসকে দারুণ এক পাস দিয়েছিলেন নেইমার। কিন্তু শট নিতে দেরি করায় তা ব্লক করেন প্যারাগুয়ের এক খেলোয়াড়। পরের মিনিটে কর্নার থেকে একেবারে ফাঁকায় হেড নেওয়ার সুযোগ পেয়েও লক্ষ্যে রাখতে পারেননি মার্কোইনহোস।

৫৯ মিনিটে রিচার্লিসনের দূরপাল্লার শট ঝাঁপিয়ে ঠেকান গোলরক্ষক প্যারাগুয়ে গোলরক্ষক অ্যান্তনি সিলভা। ছয় মিনিট পর অবিশ্বাস্য এক মিস করেন নেইমার। জেসুসের পাসে ডান প্রান্তে একেবারে ফাঁকায় বল পেয়েও বাইরে শট নেন পিএসজি তারকা। পাঁচ মিনিট পর নেইমারের পাস থেকে গোল করার সুযোগ ছিল জেসুসেরও। তবে দারুণ ট্যাকলে বিপদমুক্ত করেন গোমেজ।

৮৭ মিনিটে আলবার্তো এস্পোনোলার শট ফের ঠেকিয়ে প্যারাগুয়ের হতাশা বাড়ান ব্রাজিলিয়ান গোলরক্ষক এদেরসন। ম্যাচের যোগ করা সময়ে ব্যবধান বাড়ায় অতিথিরা। নেইমারের কাছ থেকে বল পেয়ে দারুণ এক কোনাকুনি শট নেন পাকুয়েতা। বারপোস্টে লেগে বল জড়ায় জালে। ফলে দারুণ জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ব্রাজিল।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD