আরও একবার চ‍্যাম্পিয়ন জকোভিচ

আরও একবার চ‍্যাম্পিয়ন জকোভিচ

আরও একবার চ‍্যাম্পিয়ন হলেন নোভাক জকোভিচ। রবিবার রোঁলা গারোয় ফরাসি ওপেনের ফাইনালে স্টিফানোস সিসিপাসকে হারিয়ে শেষ হাসি হাসলেন সার্বিয়ার এই তারকা। এতে প্রথমবারের মতো গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের ইচ্ছে অধরাই রয়ে গেল সিসিপাসের ৷ প্রথম দুই সেট হারলে‌ও রুদ্ধশ্বাস ফাইনালের পরের সেটগুলো জিতে ফ্রেঞ্চ ‌ওপেন শিরোপা নিজের করে নেন জকোভিচ। জয় পান তিনি ৬-৭ (৬-৮), ২-৬, ৬-৩, ৬-২ ‌ও ৬-৩ গেমে।

এই জয়ের ফলে জকোভিচ এখনও পযর্ন্ত ১৯টি গ্র‍্যান্ড স্লামে চ্যাম্পিয়ন হলেন। ২০ টি করে জিতেছেন রাফায়েল নাদাল ও রজার ফেদেরার।

অবশ্য টেনিসপ্রেমীরা বলেন, ফরাসি ওপেনে যিনি রাফায়েল নাদালকে পরাজিত করেন, তিনি ফাইনালে জিততে পারেন না। ২০০৯-এ রবিন সোডারলিং হেরেছিলেন রজার ফেডেরারের কাছে। ২০১৫-এ নোভাক জোকোভিচ হারেন স্ট্যানিসলাস ওয়ারিঙ্কার কাছে। কিন্তু একই ভুল দ্বিতীয়বার করলেন না জকোভিচ। দু’সেট পিছিয়ে পড়েও গ্রিসের স্টিফানোস সিসিপাসকে হারিয়ে দিলেন ফরাসি ওপেনের ফাইনালে।

ফরাসি ওপেন জিতে ৫২ বছরের পুরনো একটি রেকর্ডও স্পর্শ করলেন জকোভিচ। রয় এমার্সন এবং রড লেভারের পর তিনিই হলেন একমাত্র খেলোয়াড় যিনি প্রত্যেকটি গ্র্যান্ড স্ল্যাম অন্তত দু’বার করে জিতলেন। প্রথম গ্রিক টেনিস খেলোয়াড় হিসেবে ফরাসি ওপেন জেতার স্বপ্ন অধরাই রয়ে গেল সিসিপাসের।

যে অনবদ্য টেনিস সার্বিয়ার খেলোয়াড় উপহার দিলেন, তা নিঃসন্দেহে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কাছে উদাহরণ হয়ে থাকবে। একই প্রতিযোগিতায় দু’বার অবিস্মরণীয় প্রত্যাবর্তন দেখা গেল জকোভিচের থেকে। এই নিয়ে ১৯টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম হল জকোভিচের। রজার ফেদেরার এবং রাফায়েল নাদালের থেকে মাত্র একটি গ্র্যান্ড স্ল্যাম পিছিয়ে তিনি।

সিসিপাস যে সহজে ছেড়ে দেবেন না, সেটা বোঝা যাচ্ছিল প্রথম সেট থেকেই। অভিজ্ঞতায় তাঁর থেকে অনেক এগিয়ে থাকা জকোভিচের বিরুদ্ধে প্রাণপাত লড়াই চালিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি। অথচ শুরুটা হয়েছিল খারাপভাবেই। জকোভিচ প্রথম পয়েন্ট পান সিসিপাসের ডাবল ফল্টের কারণে। প্রথম সেটে যে যাঁর মতো নিজের সার্ভ ধরে রাখছিলেন। দ্বিতীয় সেটে দু’বার জকোভিচের সার্ভিস ভাঙেন সিসিপাস। কার্যত দাঁড়াতেই দিলেন না সার্বিয়ার খেলোয়াড়কে।

ম্যাচ হাত থেকে বেরিয়ে যাচ্ছে বুঝতে পেরেই নিজের তুরপূণ থেকে সেরা অস্ত্রগুলি বের করতে থাকলেন জকোভিচ। প্রথম দুই সেট জিতে আত্মবিশ্বাসে ফুটতে থাকা সিসিপাসকে লম্বা র‌্যালি খেলিয়ে ধীরে ধীরে ক্লান্ত করে দিতে থাকলেন। ফোরহ্যান্ড, একহাতে ব্যাকহ্যান্ড, ড্রপ শট— সব ধরনের শটই বেরিয়েছে সিসিপাসের র‌্যাকেট থেকে। কিন্তু জোকোভিচের কাছে সবেরই উত্তর ছিল। দারুণ দারুণ সব রিটার্ন দিতে থাকলেন তিনি।

তৃতীয় এবং চতুর্থ সেটে কার্যত আত্মসমর্পণ করার পর পঞ্চম তথা নির্ণায়ক সেটে কিছুটা প্রতিরোধ দেখা গেল সিসিপাসের কাছ থেকে। কিন্তু ততক্ষণে অনেক দেরি হয়ে গেছে।

খেলতে নেমেছিলেন সাদা জার্সি পরে। কিন্তু তৃতীয় সেট থেকে জার্সির রং বদলে গেল লালে, যে রংয়ের জার্সিতে নাদালকে হারিয়েছিলেন জকোভিচ। সেই জার্সিই ট্রফি এনে দিল জকোভিচকে। প্রতিক্রিয়ায় প্রতিপক্ষের প্রশংসা করে নোভাক জকোভিচ জানান, 'জীবনের প্রথম গ্র্যান্ড স্ল্যাম ফাইনালে ভাল খেলে হেরে যাওয়া খুব কষ্টের। তবে আমি মনেকরি এই হার কিন্তু সিসিপাসকে ভবিষ্যতে শিক্ষা দেবে।' পরে তিনি সিসিপাসের দেশ গ্রিসের প্রশংসা‌ও করেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD