হ্যাটট্রিক আর ছয় ছক্কার ম্যাচে ‌ও.ইন্ডিজের জয়

হ্যাটট্রিক আর ছয় ছক্কার ম্যাচে ‌ও.ইন্ডিজের জয়

হ্যাটট্রিক আর এক ওভারে ছয় ছক্কার রোমাঞ্চকর ম্যাচে ৪ উইকেটে শ্রীলঙ্কাকে হারালো ‌ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তাতে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে গেলো কাইরন পোলার্ডের দল। হ্যাটট্রিক করার পরের ওভারেই ছয় ছক্কা হজম করতে হয় লংকান স্পিনার আকিলা ধনাঞ্জয়াকে। আর ছয় বলে ছক্কা ছয়টি মারেন ক্যারিবিয়ান অধিনায়ক কাইরন পোলার্ড।

সিরিজের প্রথম ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ১৩২ রানের লক্ষ্য দেয় শ্রীলঙ্কা। প্রথম তিন ওভারেই দুই ওপেনার লেন্ডল সিমন্স আর এভিন লুইসের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ৪৮ রান সংগ্রহ করে স্বাগতিকরা। পরের ওভারে আক্রমণে এসেই ম্যাচ ঘুরিয়ে দেন ধনাঞ্জয়া। ওভারের দ্বিতীয় বলে তিনি ফেরান এভিন লুইসকে। তুলে মারতে গিয়ে দানুশকা গুনাথিলাকার হাতে ক্যাচ দেন লুইস।

পরের বলেই লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়েন ক্রিস গেইল। প্রথমে আম্পায়ার শ্রীলঙ্কার আবেদনে সাড়া না দিলেও পরে রিভিউ নিয়ে গেইলকে ফেরায় লঙ্কানরা। হ্যাটট্রিক বলে ধনাঞ্জয়ার শিকার হন নিকোলাস পুরান। বল পুরানের ব্যাটের কানায় লেগে চলে যায় উইকেটরক্ষক নিরোশান ডিকওয়েলার হাতে।
 
আন্তর্জাতিক টি-২০ ক্রিকেটের ইতিহাসে এটি ১৪তম হ্যাটট্রিক। দৃশ্যপট বদলে দেন ধনাঞ্জয়া। তবে সেই হ্যাটট্রিকের আনন্দ মলিন হয়ে যায় তার পরের ওভারেই। ওভারের ছয় বলে ছয়টি ছক্কা হাঁকান কাইরন পোলার্ড। ধনাঞ্জয়ার চিরদিন মনে রাখার মতো এ ম্যাচটিতে এক দুঃস্বপ্ন উপহার দেন পোলার্ড।

লং অন ও লং অফের ওপর দিয়ে প্রথম তিন বলে ছক্কা মারেন পোলার্ড। চতুর্থ ছক্কা মারেন ডিপ মিড উইকেটের ওপর দিয়ে। এরপর পঞ্চম বলে ধনাঞ্জয়ার মাথার ওপর দিয়ে আর শেষ বলে আবার‌ও মিড উইকেট দিয়ে ছক্কা মেরে ওভার শেষ করেন পোলার্ড। সেই সঙ্গে জয়‌ও তুলে নেয় ক্যারিবিয়ানরা।

যুবরাজ সিংয়ের পর দ্বিতীয় ক্রিকেটার হিসেবে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে এক ওভারে ছয়টি ছক্কা মারার রেকর্ড গড়লেন পোলার্ড। এর আগে ২০০৭ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের স্টুয়ার্ট ব্রডের বলে এক ওভারে ছয়টি ছক্কা মেরেছিলেন ভারতের যুবরাজ সিং।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD