ব্যালন ডি’অর জয়: লড়াই জমার অপেক্ষা

ব্যালন ডি’অর জয়: লড়াই জমার অপেক্ষা

উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ১৬’র লড়াই থেকে ছিটকে পড়েছে বার্সেলোনা ও জুভেন্টাস। তাতে দুটি দলের এই দুই সুপারস্টার লিওনেল মেসি ও ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর জন্য ব্যালন ডি’অর জয়ের সম্ভাবনা অনেকটাই ক্ষীণ হয়ে গেছে। সেই সুযোগে অন্যান্য প্রার্থীদের জেতার দরজা উন্মুক্ত হয়েছে।

২০২০ সাল থেকে মূলত এই পুরস্কার অর্জনের ক্ষেত্রে রোনালদো-মেসি যুগের অবসান ঘটতে শুরু করে। গত মৌসুমে করোনা মহামারীর কারণে এই পুরস্কার দেয়া না হলেও এই তালিকায় সুস্পষ্ট ফেবারিট হিসেবে এগিয়ে ছিলেন বায়ার্ন মিউনিখের পোলিশ তারকা রবার্ট লিওনডোস্কি। ইউরোপিয়ান ক্লাব ফুটবলের সর্বোচ্চ আসর থেকে বার্সা ও জুভেন্টাসের বিদায়ে এবারও শতাব্দীর সেরা দুই খেলোয়াড়ের এই পুরস্কার পাবার সম্ভাবনা কম বলেই ধারনা করা হচ্ছে।

যদিও বার্সেলোনা এখনও লিগ শিরোপা ও কোপা ডেল রে’র শিরোপা জয়ের লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে। অন্যদিকে জুভেন্টাস সিরি-এ শিরোপা লড়াইয়ে শীর্ষ দুই ক্লাব ইন্টার ও এসি মিলানের থেকে পিছিয়ে রয়েছে। তবে কোপা ইতালিয়ান ফাইনাল নিশ্চিত করেছে তুরিনের জায়ান্টরা।

এ বছর ব্যালন ডি’অর জয়ের ইতিহাসে আরো একটি মাইলফলক যোগ হতে পারে। ধারনা করা হচ্ছে আর্জেন্টাইন ও পর্তুগীজ দুই তারকা তাদের ক্যারিয়ারের শেষ ব্যালন ডি’অর ইতোমধ্যেই জয় করে ফেলেছেন। বাজিকরদের মতে এবারের এই তালিকায় বিশ্বের সেরা খেলোয়াড় হিসেবে এগিয় আছেন পিএসজির তারকা কিলিয়ান এমবাপ্পে। ইতোমধ্যেই এই ফরাসি তরুণ নিজেকে বিশ্বের অন্যতম সেরা স্ট্রাইকার হিসেবে প্রমান করেছেন। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ১৬’র লড়াইয়ে বার্সেলোনার বিপক্ষে ক্যাম্প ন্যুয়ে হ্যাটট্রিক করে নিজেকে নিয়ে গেছেন অনন্য এক উচ্চতায়।

দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন লিওনডোস্কি। কিছুটা হলেও তিনি এমবাপ্পের থেকে পিছিয়ে রয়েছেন। গত মৌসুমে ফিফা বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের খেতাব ছিনিয়ে নেয়া এই পোলিশ তারকা এবারও নিজেকে প্রতিটি ম্যাচেই সমানতালে প্রমান করে চলেছেন। নতুন প্রজন্মের আরেক প্রতিনিধি আর্লিং ব্রট হালান্ডের সম্ভাবনাকেও উড়িয়ে দেয়া যায়না। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে সম্ভবত তার কারনেই বরুশিয়া ডর্টমুন্ড এখনো প্রতিযোগিতায় টিকে আছে।

বিশ্বের সেরা এই পুরস্কারের জন্য নেইমার দীর্ঘদিন ধরেই অপেক্ষায় আছে। কিন্তু ২০২১ সালে ইনজুরির কারণে ইতোমধ্যেই এই তালিকা থেকে বেশ খানিকটা দুরে সড়ে গেছেন। অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদকে লা লিগার শিরোপা উপহার দিতে পারলে লুইস সুয়ারেজও নিজেকে ব্যালন ডি’অর জয়ের জন্য একজন শক্ত প্রার্থী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে পারবেন। এই তালিকায় কিছুটা পিছিয়ে থাকলেও সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে আরো রয়েছেন কেভিন ডি ব্রুইন, ব্রুনো ফার্নান্দেজ ও হ্যারি কেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD