তামিমের রেকর্ডের দিনে ম্যাচে হার

তামিমের রেকর্ডের দিনে ম্যাচে হার

তামিম ইকবালের ফিফটির ফিফটি করার রেকর্ডের দিনে বাংলাদেশ ৫ উইকেটে হারলো নিউজিল্যান্ডের কাছে। দেশের ক্রিকেট ইতিহাসের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান তিনি, তাতে কোনো সন্দেহ নেই। পরিসংখ্যান বলছে, একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বাংলাদেশের সবচেয়ে ভালো ব্যাটসম্যান তিনিই। বাকি দুই ফরম্যাটের মতো এই ফরম্যাটেও তিনি সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক। এবার নতুন আরেক কীর্তি গড়েছেন তামিম ইকবাল। প্রথম বাংলাদেশী হিসেবে ফিফটির ফিফটি করে রেকর্ড বইয়ে স্থান করে নেন তামিম। 

বাংলাদেশ দলের ওয়ানডে অধিনায়ক বাংলাদেশের প্রথম ও একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে অর্ধশতকের অর্ধশতক করেন। অর্থাৎ, একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এখন তামিমের অর্ধশতকের (৫০ থেকে ৯৯ রানের মধ্যে ইনিংস) সংখ্যা পঞ্চাশটি।

মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে অল্পের জন্য শতকের দেখা পাননি তামিম। তবে শতক হয়ে গেলে এই রেকর্ড করা হত না। শুরুতেই লিটন দাসকে হারানোর পর ব্যাটিং অর্ডারকে আগলে রেখেছেন ৩০ ওভার পর্যন্ত। জিমি নিশামের পায়ের জাদুতে সাজঘরে ফিরেছেন ১০৮ বলে ৭৮ রান করে।

এর আগে ৪৯টি অর্ধশতক করা তামিম এই ইনিংসসহ মোট ৬৩টি বার ওয়ানডেতে পঞ্চাশ ছাড়ানো ইনিংস খেলেছেন। সেদিক থেকে বিশ্ব ক্রিকেটে তার অবস্থান ২৯তম। শুধু অর্ধশতকের হিসেব করলে, অর্থাৎ শতক বাদ দিলে তামিমের আগে অর্ধশতকের অর্ধশতক করেছেন ৫১ জন ক্রিকেটার। ভারত, শ্রীলঙ্কা, অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, পাকিস্তান, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, নিউজিল্যান্ড ও জিম্বাবুয়ের পর এবার সেই অভিজাত তালিকায় শোভা পাচ্ছে বাংলাদেশের কারও নাম।

বাংলাদেশিদের মধ্যে অর্ধশতকের অর্ধশতকের পথে আছেন সাকিব আল হাসান, ৪৮টি। একনজরে দেখে নিন ওয়ানডের অর্ধশতকের দিক থেকে বাংলাদেশের শীর্ষ ৫ জন ক্রিকেটারের তালিকা।

১. তামিম ইকবাল – ৫০টি
২. সাকিব আল হাসান – ৪৮টি
৩. মুশফিকুর রহিম – ৩৯টি
৪. মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ২২টি
৫. মোহাম্মদ আশরাফুল – ২০টি

শ্রীলঙ্কার সাবেক অধিনায়ক অর্জুনা রানাতুঙ্গা এবং নিউজিল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক স্টিফেন ফ্লেমিংকে পেছনে ফেলে ফিফটির ফিটটি করেন তামিম ইকবাল। চলতি বছরের ২২ জানুয়ারি শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ৪৯টি ফিফটি করে তাদেরকে ছুঁয়েছিলেন। নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে ফিফটি করে তাদেরকে ছাড়িয়ে গেলেন তামিম। 

তবে তার আগে ফিফটির হিসেবে সবচেয়ে বেশি করার রেকর্ড সেঞ্চুরির সেঞ্চুরিযান শচীন টেন্ডুলকারের। তিনি ‌ওয়ানডেতে ৪৯টি সেঞ্চুরির পাশাপাশি করেছেন ৯৬টি হাফ সেঞ্চুরি। আর এই তালিকার দ্বিতীয় স্থানে থাকা শ্রীলঙ্কার সাবেক অধিনায়ক কুমার সাঙ্গাকারা করেছেন ৯৩টি হাফ সেঞ্চুরি। তৃতীয় স্থানে থাকা দক্ষিণ আফ্রিকার জ্যাক ক্যালিসের ফিফটির সংখ্যা ৮৬টি। 
 

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD