লিজেন্ডস ক্রিকেটে টানা দুই জয় একমি’র

লিজেন্ডস ক্রিকেটে টানা দুই জয় একমি’র

কক্সবাজারে শুরু হয়েছে বাংলাদেশের প্রথম টেন ডট টেন ফর্মেটের ক্রিকেট টুর্নামেন্ট লিজেন্ডস চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি। যেখানে ৬ দলের হয়ে অংশ নিয়েছেন বাংলাদেশের জাতীয় দল আর ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে খেলা সাবেক ক্রিকেটাররা। কক্সবাজার শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আসরের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক ইসমাঈল হায়দার মল্লিক ও বাংলাদেশের প্রথম স্পোর্টস চ্যানেল টি স্পোর্টস ও আয়োজক এসিই’র প্রধান নির্বাহী ইশতিয়াক সাদেক।

শেখ কামাল স্টেডিয়ামের এক নম্বর মাঠে দিনের প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিলো জেমকন টাইটানস ও একমি স্ট্রাইকার্স। আসরে জয় দিয়ে শুরু করে একমি স্ট্রাইকার্স। টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ৭০ বলে ৬ উইকেটে ১১২ করে একমি স্ট্রাইকার্স। মাহবুবুল আলম রবিন ১৩ বলে করেন ইনিংস সর্বোচ্চ ৩৩ রান। মুশফিকুর রহমানের ব্যাট থেকে আসে ২৭ আর মোহাম্মদ রফিক করেন ২২। ২ উইকেট করে নিয়েছেন হান্নান সরকার ও আশিক মজুমদার। জবাবে জাভেদ ওমর বেলিমের অপরাজিত ৪৯ আর হারুন অর রশীদের ৩৮ রানেও ৪ উইকেটে ৯৪ এর বেশি করতে পারেনি জেমকন। ২ উইকেট নিয়ে ম্যাচ সেরা স্পিনার মোহাম্মদ রফিক।

বৈশাখী বেঙ্গলস জয় পেয়েছে জাদুবে স্টার্সের বিপক্ষে। প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে জাদুবে স্টার্স করে ৭ উইকেটে ৯১ রান।  শুরুতেই ওপেনার ফরিদ উদ্দিন মাসুদের ৩২ বলে ৫০ আর ১৮ বলে মনিরুজ্জামান  টিংকুর ৩২ রানে ৯ উইকেটের সহজ জয় পায় বৈশাখী বেঙ্গলস। জয়ী দলের সেরা বোলার আলমগীর কবির ৪ উইকেট নিয়ে হয়েছেন ম্যাচ সেরা।

নিজেদের প্রথম ম্যাচে জয় পাওয়া বৈশাখী বেঙ্গলস ও একমি স্ট্রাইকার্স মুখোমুখি হয়। টানা ২য় ম্যাচেও জয় তুলে নিয়েছে একমি স্ট্রাইকার্স। ৩৮ রানে জেতা ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে ৩ উইকেটে ১১৫ করে একমি। ৩৯ বলে ৫৫ করেছেন রাশেদুল হক। জবাবে ৬ উইকেটে ৭৭ করে বৈশাখী বেঙ্গলস। ম্যাচ সেরা রাশেদুল হক। এই ম্যাচটা হয়েছে ৫৮ বলে।

এক্সপো রেইডার্সের বিপক্ষে ৪ উইকেটে ১২৫ করে নারায়ণগঞ্জ ওয়ারিয়র্স। রাজন ভূইয়া ৪০ ও কামরুল পায়েল ৩৫ করেন। জবাবে ১১২ রানে থামতে হয় এক্সপো রেইডার্সকে। ৪ উইকেট নিয়ে ওয়ারিয়র্সদের জয়ে ভূমিকা রেখে ম্যাচ সেরা হয়েছেন সাজু দত্ত।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD