রোনালদোর জোড়া গোলে জুভেন্টাসের জয়

রোনালদোর জোড়া গোলে জুভেন্টাসের জয়

ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর দুই গোলে সান সিরোতে ইতালিয়ান কাপের সেমিফাইনালের প্রথম লেগে ইন্টার মিলানকে ২-১ গোলে পরাজিত করেছে জুভেন্টাস। এতে ফাইনালের পথে একধাপ এগিয়ে গেলো আন্দ্রে পিরলোর দল।

গত সাত বছরে ষষ্ঠবারের মত ফাইনালে পৌঁছানোর পথে রেকর্ড ১৩ বারের চ্যাম্পিয়ন জুভেন্টাসকেই ফেবারিট মানা হচ্ছে। আগামী মঙ্গলবার তুরিনে ফিরতি লেগের ম্যাচের আগে এই জয় নিশ্চিতভাবেই ইতালিয়ান জায়ান্টদের অনেকটাই এগিয়ে রাখবে। জুভেন্টাস কোচ আন্দ্রে পিরলো ম্যাচ শেষে বলেছেন, ‘এটা শুধুমাত্র প্রথম লেগের ম্যাচ ছিল। আমরা এখনো কোনকিছুই অর্জন করতে পারিনি। এই জয় এটাই প্রমান করেছে যে আমরা ম্যাচটিতে পুরোপুরি মনোযোগী ছিলাম। আমাদের বিপক্ষে যেই খেলুক না কেন তাদের জন্যই ম্যাচগুলো কঠিন হয়ে দাঁড়ায়।’

গত মাসে সিরি-এ লিগে জুভেন্টাসকে ২-০ গোলে পরাজিত করছিল ইন্টার। যে কারনে ২০১১ সালের পর ইতালিয়ান কাপের শিরোপা প্রথমবারের মত ঘরে তোলার পথে ঐ জয়টা কিছুটা হলেও ইন্টারকে আত্মবিশ্বাস যোগাবে। যদিও ম্যাচটি তুরিনের মাঠে, যেখানে জুভেন্টাসকে হারানো সবসময়ই কঠিন। জুভেন্টাস মিডফিল্ডার আদ্রিয়েন রাবোয়িত বলেছেন, ‘এটা সত্যিকার অর্থেই একটি গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ ছিল। সিরি-এ ম্যাচটিতে ইন্টার প্রমান করেছিল তাদের বিপক্ষে খেলাটা মোটেই সহজ কাজ নয়। এখনো লড়াই শেষ হয়ে যায়নি। আরো একটি লেগ বাকি রয়েছে। আর সেই ম্যাচে নি:সন্দেহে আরো বেশী পরীক্ষা অপেক্ষা করছে।’

সান সিরোতে কাল ম্যাচের শুরুটা দুর্দান্ত করেছিল ইন্টার। নিকোলাস বারেলার লো ক্রসে লটারো মার্টিনেজ ডান পায়ের দুর্দান্ত ফিনিশিংয়ে জুভেন্টাস গোলরক্ষক গিয়ানলুইগি বুফনকে পরাস্ত করলে ৯ মিনিটে এগিয়ে যায় ইন্টার। কিন্তু প্রথমার্ধের মাঝামাঝিতে ম্যাচে ফিরে আসে জুভেন্টাস। হুয়ান কুয়াড্রাডো বল নিয়ে ডি বক্সের ভিতর ঢুকে পড়লে এ্যাশলে ইয়ং তাকে ফাউল করে বসেন। ভিএআর রিভিউ পেনাল্টির নির্দেশ দিলে স্পট কিক থেকে রোনালদো কোন ভুল করেননি। ২৬ মিনিটে তার দেয়া গোলে জুভেন্টাস সমতায় ফিরে। একইসাথে পর্তুগীজ এই সুপারস্টার মৌসুমের ২১তম গোল পূরণ করেন। ৩৫ মিনিটে ইন্টারের ইতালিয়ান ডিফেন্ডার আলেহান্দ্রো বাস্তোনি ও গোলরক্ষক সামির হানডানোভিচেড মারাত্মক এক ভুলে রোনাল্ডো বল পেয়ে ব্যবধান দ্বিগুন করেন।

নিষেধাজ্ঞার কারনে কাল ইন্টারের হয়ে মাঠে নামতে পারেননি সর্বোচ্চ গোলদাতা রোমেলু লুকাকু। বিরতির পর এ্যালেক্সিস সানচেজের শট অসধারণ দক্ষতায় লাইনের উপর থেকে ক্লিয়ার করেন মেরি ডেমিরাল। নাহলে তখনই সমতায় ফিরতে পারতো ইন্টার। এরপরেও স্বাগতিকরা সমতায় ফেরার জন্য চাপ সৃষ্টি করতে থাকে। মার্টিনেজে কার্লিং শট অল্পের জন্য বাইরে দিয়ে চলে যায়, মাত্তেও ডারমিয়ানের শট রুখে দেন বুফন।

ম্যাচ শেষের ১৪ মিনিট আগে আলভারো মোরাতার জন্য জায়গা ছেড়ে দিতে হয় রোনালদোকে। যদিও পিরলো এই সিদ্ধান্তে মোটেই খুশী হতে পারেননি পর্তুগীজ তারকা। রোববার রোমার বিপক্ষে সিরি-এ লিগের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচকে সামনে রেখেই রোনালদোকে বিশ্রামের তাগিদ অনুভব করেছেন পিরলো।

ম্যাচ শেষে জুভ কোচ বলেছেন, ‘আমি বুঝতে পেরেছি বদলী বেঞ্চে চলে আসায় রোনালদো কিছুটা অসন্তুষ্ট হয়েছে। কিন্তু আসন্ন সিরি-এ ম্যাচের আগে তাকে বিশ্রামে রাখাটা জরুরী। তা অল্প কিছু সময়ের জন্য হলেও বিষয়টা গুরুত্বপূর্ণ।’

৭৩ মিনিটে ইন্টার কোচ এন্টোনিও কন্টে এসি মিলানের বিপক্ষে শেষ আটে জয়সূচক গোল করা ড্যানিশ মিডফিল্ডার ক্রিস্টিয়ান এরিকসেনকে নামিয়েও সফল হননি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD