নিউজিল্যান্ডের দরকার ৭ উইকেট

নিউজিল্যান্ডের দরকার ৭ উইকেট

মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে বক্সিং ডে টেস্ট জিততে ম্যাচের শেষ দিন নিউজিল্যান্ডের দরকার ৭ উইকেট। পক্ষান্তরে ৭ উইকেট হাতে থাকা পাকিস্তানের করতে হবে আরও ৩০২ রান। নিউজিল্যান্ডের ছুঁড়ে দেয়া ৩৭৩ রানের টার্গেটে চতুর্থ দিন শেষে ৩ উইকেটে ৭১ রান করে পাকিস্তান। প্রথম ইনিংসে নিউজিল্যান্ডের ৪৩১ রানের জবাবে ২৩৯ রানে অলআউট হয় পাকিস্তান। ফলে তৃতীয় দিন শেষে ১৯২ রানে এগিয়ে ছিলো নিউজিল্যান্ড।

চতুর্থ দিন নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করে নিউজিল্যান্ড। দলকে ১১১ রানের সূচনা এনে দেন কিউই দুই ব্যাটসম্যান টম লাথাম ও টম ব্লান্ডেল। দু’জনই হাফ-সেঞ্চুরি তুলে নেন। ৬৪ রান করা ব্লান্ডেলকে  বোল্ড করে নিউজিল্যান্ডের প্রথম উইকেটের পতন ঘটান পেসার মোহাম্মদ আব্বাস। এরপর লাথামকে বিদায় করেন পাকিস্তানের আরেক পেসার নাসিম শাহ। লাথামের ১১২ বলের ইনিংসে ৭টি চার ছিলো।

এরপর অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনের ২১, রস টেইলরের অপরাজিত ১২, হেনরি নিকোলসের ১১, উইকেটরক্ষক বিজে ওয়াটলিংএর ৫ ও মিচেল স্যান্টনারের অপরাজিত ৬ রানে ৫ উইকেটে ১৮০ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা করে নিউজিল্যান্ড। ফলে ম্যাচ জয়ের জন্য ৩৭৩ রানের টার্গেট পায় পাকিস্তান। দ্বিতীয় ইনিংসে পাকিস্তানের পক্ষে ৫৫ রানে ৩ উইকেট নেন নাসিম।

জয়ের জন্য ৩৭৩ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে শুরুতেই মহাবিপদে পড়ে পাকিস্তান। প্রথম ১৪ বলে রানের খাতাই খুলতে পারেনি, অথচ প্যাভিলিয়নে পাকিস্তানের দুই ওপেনার শান মাসুদ ও আবিদ আলী। আবিদকে ফেরান নিউজিল্যান্ডের পেসার ট্রেন্ট বোল্ট, আর মাসুদকে শিকার করেন কিউই আরেক পেসার টিম সাউদি।

শুরুতেই খাদের কিনারায় পড়ে যাওয়া পাকিস্তানকে এরপর রানের মুখ দেখান আজহার আলি ও হারিস সোহেল। ৩৭ রানের জুটিও গড়েন তারা। ৯ রান করা সোহেলকে বিদায় দিয়ে নিউজিল্যান্ডকে তৃতীয় উইকেট শিকারের আনন্দে মাতান সাউদি।

এরপর দিনের বাকী সময়ে আর কোন বিপদ ছাড়াই পাড় করেন আজহার ও ফাওয়াদ আলম। আজহার ৩৪ ও ফাওয়াদ ২১ রানে অপরাজিত আছেন। নিউজিল্যান্ডের সাউদি ২টি ও বোল্ট ১টি উইকেট নেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD