চেলসির সাথে ড্র করেছে ইউনাইটেড

চেলসির সাথে ড্র করেছে ইউনাইটেড

শনিবার চেলসির সাথে ঘরের মাঠে প্রিমিয়ার লিগে গোলশুন্য ড্র করেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। এর মাধ্যমে ৪৮ বছরের ইতিহাসে এই প্রথমবারের মত ওল্ড ট্রাফোর্ডে প্রথম তিনটি লিগ ম্যাচে জয়বিহীন থাকলো রেড ডেভিলসরা। উরুগুয়ের তারকা স্ট্রাইকার এডিনসন কাভানির কাল ইউনাইটেডের জার্সি গায়ে ইংলিশ লিগে অভিষেক হয়েছে।

দ্বিতীয়ার্ধে বদলী বেঞ্চ থেকে খেলতে নেমে কাভানি স্কোরশিটে প্রায় নাম লিখেই ফেলেছিলেন। কিন্তু চেলসির শক্তিশালী রক্ষনভাগকে ভাঙ্গার সামর্থ্য ছিলনা ইউনাইটেডের। এর আগে প্রিমিয়ার লিগের নতুন মৌসুমের প্রথম সপ্তাহে ক্রিস্টাল প্যালেসের কাছে পরাজয়ের পর ইউনাইটেড নিজেদের মাঠে টটেনহ্যামের কাছে ৬-১ গোলে বিধ্বস্ত হয়েছে। দর্শকবিহীন ওল্ড ট্রাফোর্ডে আরো একবার হতাশ হতে হলো ইউনাইটেডকে।

গত ছয়টি হোম ম্যাচে ওলে গানার সুলশারের দলের একমাত্র জয়টি এসেছিল গত মৌসুমে ইউরোপা লিগে অস্ট্রিয়ার দল এলএএসকে’র বিপক্ষে। ঐ ম্যাচে খেলার আগে প্রথম লেগে এ্যাওয়ে ম্যাচে ৫-০ গোলে জয়ী হয়েছিল ইউনাইটেড।

এই ড্রয়ে ৫ ম্যাচে ৭ পয়েন্ট নিয়ে ইউনাইটেড এখন টেবিলের সপ্তম স্থানে রয়েছে। এর মাধ্যমে ইউনাইটেডের শিরোপা জয়ের প্রত্যাশা নিয়ে যথেষ্ঠ শঙ্কা দেখা দিয়েছে। যদিও পিএসজির বিপক্ষে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্রথম ম্যাচে ২-১ গোলের জয় দিয়ে মৌসুম শুরু করায় অন্তত ইউরোপীয়ান আসরে নিজেদের কিছুটা হলেও এগিয়ে রেখেছে সুলশারের শিষ্যরা। আগামী সপ্তাহে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে ঘরের মাঠে লিপজিগকে ও প্রিমিয়ার লিগে আর্সেনালকে আতিথ্য দিবে ইউনাইটেড। দুটি ম্যাচেই ঘরের মাঠে একটু বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করতেই হচ্ছে।

চেলসির রক্ষনাত্মক কৌশলই শেষ পর্যন্ত ইউনাইটেডকে রুখে দিতে সফল হয়েছে। ব্লুজ বস ফ্রাংক ল্যাম্পার্ড ইতোমধ্যেই দলের রক্ষনভাগের দূর্বলতা নিয়ে বেশ সমালোচনার মুখে পড়েছেন। ওয়েস্ট ব্রুম ও সাউদাম্পটনের বিপক্ষে গত দুটি ম্যাচে তিনটি করে গোল হজম করেছে চেলসি। এর আগে ল্যাম্পার্ডের অধীনে ৪৩টি প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে ৬৩টি গোল হজম করেছিল ব্লুজরা। চেলসির কোন স্থায়ী কোচ হিসেবে যা সবচেয়ে বড় ব্যর্থতা।

সেভিয়ার বিপক্ষে গোলশুন্য ড্রয়ের মাধ্যমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের মৌসুম শুরু করায় সেই রক্তক্ষরণ কিছুটা হলেও বন্ধ হয়েছে। কালকের ম্যাচেও কোন গোল হজম না করে চেলসি অন্তত একটি বিষয় নিশ্চিত করেছে যে ল্যাম্পার্ড এই বিষয়টি নিয়ে কাজ শুরু করেছেন। একইসাথে আক্রমনভাগেও কাল তেমন কোন উল্লেখযোগ্য সুযোগ সৃষ্টি করতে পারেনি চেলসি। গত চারটি লিগ ম্যাচের তিনটিতে ড্র করে চেলসি বর্তমানে টেবিলের ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে।

এদিকে দিনের আরেক ম্যাচে পিছিয়ে পড়েও শেষ পর্যন্ত জয় পেয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন লিভারপুল। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে টানা দুই ম্যাচে পয়েন্ট হারানোর পর জয়ের দেখা পেয়েছে লিভারপুল। শেফিল্ড ইউনাইটেডের বিরুদ্ধে পিছিয়ে পড়েও ২-১ গোলে জয় তুলে নেয় জার্গেন ক্লপের শিষ্যরা। দলের হয়ে একটি করে গোল করেন রবার্তো ফিরমিনো ও দিয়েগো জোতা।

শনিবার ঘরের মাঠ এ্যানফিল্ডে লিভারপুল প্রথম মিনিটেই এগিয়ে যেতে পারতো। তবে ডি-বক্সের ভেতর সাদিও মানের শট রুখে দেন সফরকারী ডিফেন্ডাররা। উল্টো ১৩ মিনিটে লিড নেয় শেফিল্ড। পেনাল্টি থেকে গোলটি করেন সান্ডার বার্জ। লিভারপুলের ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার ফাবিনহো ফাউল করায় রেফারি শুরুতে ফ্রি-কিক দিলেও ভিএআরের সাহায্যে পেনাল্টির বাঁশি বাজান। ম্যাচের ৪১ মিনিটে স্বাগতিকদের সমতায় ফেরান ফিরমিনো। ডান দিক থেকে সতীর্থের ক্রসে মানের জোরালো হেড গোলরক্ষক ফেরানোর পর খুব কাছ থেকে ফাঁকা জালে বল পাঠান এই ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড।

দ্বিতীয়ার্ধে ৬১ মিনিটে মোহাম্মদদ সালাহ বল জালে পাঠালেও অফসাইডের কারণে গোল পায়নি লিভারপুল। একটু পরই অবশ্য জোতার গোলে এগিয়ে যায় তারা। বাঁ দিক থেকে মানের ক্রসে হেডের সাহায্যে জালের ঠিকানা খুঁজে নেন পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড। আর এ গোলই দলের জয় নিশ্চিত করে। লিগে ছয় ম্যাচে ১৩ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে আছে ক্লপের দল। এক ম্যাচ কম খেলে সমান পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে এভারটন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD