‌ওকস-বাটলারে জয় ইংল্যান্ডের

‌ওকস-বাটলারে জয় ইংল্যান্ডের

ম্যাচ সেরা ক্রিস ওকস ও জস বাটলারের ১৩৯ রানের জুটিতে চার দিনেই ম্যানচেস্টার টেস্ট জিতে নিল ইংল্যান্ড। এই জয়ে তিন ম্যাচের সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে গেল তারা। ইংলিশরা ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্রাফোর্ডে পাকিস্তানকে ৩ উইকেটে পরাজিত করে।

প্রথম ইনিংসে ১০৭ রানে পিছিয়ে পড়ার পর বোলারদের চেষ্টায় তৃতীয়দিন দারুণভাবে ম্যাচে ফিরেছিল ইংল্যান্ড। অন্যদিকে প্রথম ইনিংসে বড় রানে লিড নেওয়ার পরেও দ্বিতীয় ইনিংসে তার ফায়দা তুলতে ব্যর্থ হয় পাকিস্তান। তৃতীয়দিন দ্বিতীয় ইনিংসে চূড়ান্ত ব্যাটিং বিপর্যয়ের সম্মুখীন হয় তারা।

ব্রড-আর্চারদের সামনে দ্বিতীয় ইনিংসে মুখ থুবড়ে পড়া পাকিস্তান ৮ উইকেটে ১৩৭ রান তুলে খেলা শেষ করে তৃতীয়দিন। এই অবস্থা থেকে পাকিস্তানের কাছে ম্যাচে ফেরার সম্ভাবনা ছিল ক্ষীণ। যদিও বোলারদের পাল্টা প্রত্যাঘাতে সেই আশা জাগিয়ে তুলেছিল আজহার আলীর দল।

কিন্তু জস বাটলার-ক্রিস ওকসের একটা জুটি গড়েই ম্যাচ ছিনিয়ে নেয় পাকিস্তানের থেকে। শুরুটা ভালো করেও ইংল্যান্ডের কাছে প্রথম টেস্টে ৩ উইকেটে হারল পাকিস্তান। চতুর্থদিন সকালে শেষ ২ উইকেটে ৩২ রান যোগ করে পাকিস্তান। তাতে দ্বিতীয় ইনিংসে ১৬৯ রানে অলআউট সফরকারীরা। দ্বিতীয় ইনিংসে ইংল্যান্ডের হয়ে সর্বোচ্চ ৩টি উইকেট নেন স্টুয়ার্ট ব্রড। দু’টি করে উইকেট নেন ক্রিস ওকস এবং বেন স্টোকস।

২৭৭ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে অধিনায়ক জো রুটের ৪২ রান সত্ত্বেও ১১৭ রানের মধ্যে প্রথম ৫ উইকেট হারায় ইংল্যান্ড। তখন ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে পাকিস্তানের ম্যাচ জয়ের ক্ষীণ সম্ভাবনা প্রবল করে তোলেন মোহাম্মদ আব্বাস, ইয়াসির শাহরা। কিন্তু পাকিস্তানের সম্ভাবনায় যেন হঠাৎ প্রতিরোধ গড়েন উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান জস বাটলার এবং অলরাউন্ডার ক্রিস ওকস।

ষষ্ঠ উইকেটে তাদের ১৩৯ রানের পার্টনারশিপেই পাকিস্তানের আশার সমাধি ঘটে। ১০১ বলে ৭৫ রানের ইনিংস খেলে বাটলার যখন ফিরলেন তখন‌ও জয়ের জন্য দরকার মাত্র ২১ রান।

এরপর ১২০ বলে ৮৪ রানে অপরাজিত ওকস নিশ্চিন্তে লক্ষ্যমাত্রায় পৌঁছে দেন দলকে। বাটলারের পর ব্রড ফিরে গেলেও বেসকে সঙ্গে নিয়ে ম্যাচ জেতানো ইনিংস খেলে সিরিজে দলকে এগিয়ে দেন ওকস। বোলিংয়ে ৪ উইকেট এবং ম্যাচ জেতানো ইনিংসে ম্যান অফ দ্য ম্যাচ ওকসই।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD