নিয়মের বেড়াজালে এবারের আইপিএল

নিয়মের বেড়াজালে এবারের আইপিএল

কঠিন আর কড়াকড়ি নিয়মের মধ্য দিয়েই খেলতে হবে আইপিএলে অংশ নে‌ওয়া দলগুলোকে। ইতোমধ্যে আইপিএলের জন্য ‘এসওপি’ (স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসিডিয়োর) তৈরি করে ফেলেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। জৈব সুরক্ষা বলয় তৈরি করতে যে সব কঠোর নিয়মের মধ্যে দিয়ে যেতে হবে আট দলের সব সদস্যকে, তাতে চক্ষু কপালে ওঠার জোগাড়।

টসের সময় কাগজে লেখা ক্রিকেটারদের তালিকা আদানপ্রদানের প্রথা তুলে দিয়ে ইলেকট্রনিক টিমলিস্ট চালু করার কথা ভাবা হচ্ছে। টস করতে হবে দূরত্ব বিধি মেনে এবং চিরকালের প্রথা মেনে টসের আগে বা পরে করমর্দনও করা চলবে না। কোনও ম্যাসকট ঢুকতে পারবে না। ডাগ-আউটেও বসতে হবে দূরত্ব বিধি মেনে।

টুর্নামেন্ট ভেন্যু সংযুক্ত আরব আমিরাতে পৌঁছনোর পর ছয়দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে সব সদস্যকে। এই ছ’দিনে তিনবার করোনাভাইরাস পরীক্ষা করা হবে সকলের। যতক্ষণ না তিনটি পরীক্ষার ফলই ‘নেগেটিভ’ আসছে, কেউ নিজেদের হোটেলের ঘর ছেড়ে বেরোতে পারবেন না। এমনকি, একই দলের ক্রিকেটারেরা একে অন্যের সঙ্গে দেখা করতে পারবেন না।

ক্রিকেটারদের পরিবার সঙ্গে গেলে একসঙ্গে থাকতে পারবে হোটেলে। তবে টিমবাসে তাঁরা কেউ যেতে পারবেন না। অনুষ্কা শর্মা স্টেডিয়ামে খেলা দেখতে যেতে পারেন। কিন্তু মাঠে নেমে স্বামী বিরাট কোহালির সঙ্গে দেখা করার রাস্তা বন্ধ।

দ্বাদশ ব্যক্তি মাঠে পানি নিয়ে ঢোকার আগে হাতে স্যানিটাইজ়ার লাগিয়ে নেবেন। প্রত্যেক বিরতিতে ক্রিকেটারদের স্যানিটাইজ়ার ব্যবহার করতেও দেখা যাবে।

দলের ফিজি‌ও বা ট্রেনারকে যদি কোনও খেলোয়াড়কে স্পর্শ করে শুশ্রূষা করার দরকার পড়ে, তা হলে তাঁকে ‘পিপিই’ (পার্সোনাল প্রোটেক্টিভ ইকুইপমেন্ট) কিট পরে আসতে হবে। খেলার সময় ছাড়া সকলকে মাস্ক পরে থাকতে হবে। খেলছেন না এমন সদস্যদের ‘ফেস শিল্ড’ ব্যবহার করার পরামর্শও দেয়া হয়েছে।

দলের সব সদস্যের কাছে নিজের নাম লেখা পানির বোতল থাকতে হবে। অন্যের জিনিস ব্যবহার করা যাবে না। সাংবাদিকদের মাঠে আসার অনুমতি দেওয়া হলেও সংবাদ সম্মেলনে ক্রিকেটারেরা অংশ নেবেন ভিডি‌ও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে। সশরীরে হাজির হওয়ার রীতি বন্ধ।

প্রত্যেক দলের সঙ্গে একজন ডাক্তার রাখতে হবে। ড্রেসিংরুমে কম সময় কাটানোর কথা বলা হয়েছে আইপিএল নির্দেশিকাতে। টিম মিটিং হবে খোলা মাঠে।

আটটি দলকে আলাদা আলাদা হোটেলে থাকতে বলা হয়েছে। হোটেলে অন্য অতিথিদের মধ্যে গিয়ে প্রাতরাশ, মধ্যাহ্নভোজ বা নৈশভোজ করা যাবে না। নিজেদের ঘরে বসেই খাবার খেতে হবে।

আমিরাতে রওনা হওয়ার আগে প্রত্যেক ভারতীয় ক্রিকেটারকে তাঁর দলের শহরে উপস্থিত হয়ে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। দেশি, বিদেশি সবাইকে দু’টি ‘নেগেটিভ’ রিপোর্ট নিয়ে আমিরাতে আসতে হবে। এমনি আরো অনেক নিয়মের মধ্যদিয়ে আয়োজন করা হবে এবারের আইপিএল আসর।

" class="prev-article">Previous article

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD