তামিমের শেষ লাইভ শো’তে‌ও থাকছেন না সাকিব

তামিমের শেষ লাইভ শো’তে‌ও থাকছেন না সাকিব

ফেসবুকে ধারাবাহিকভাবে করে যাওয়া লাইভ শো আগামী শনিবার শেষ করতে যাচ্ছেন বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল। প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের মধ্যে গেল তিন সপ্তাহ ধরে তামিমের এই লাইভ শো ভক্ত-সমর্থদের বেশ আনন্দ দিয়েছে। তামিমের শেষ লাইভ শো’তে থাকবেন মাশরাফি বিন মর্তুজা, মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। পঞ্চম পান্ডবের চারজনকে একত্রে শেষ লাইভ শো’তে দেখবেন ক্রিকেটপ্রেমিরা।

আশা করা হয়েছিলো তামিমের লাইভ শো’র শেষ পর্বে পঞ্চ পান্ডবের আরেক তারকা সাকিব আল হাসানকে পাওয়া যাবে। কিন্তু তামিম জানান, সাকিব বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে রয়েছেন, ব্যক্তিগত কারণে ঐ লাইভ’শোতে থাকতে পারবেন না তিনি।

আজ উইলিয়ামসনের সাথে লাইভ শো শেষে তামিম বলেন, ‘আগামী শনিবার আমাদের শেষ লাইভ শো’টি প্রচারিত হবে। অনেকেই শেষ শো’তে সাকিব উপস্থিতি থাকবেন কিনা, জানতে চেয়েছেন। আমি ১০-১২ দিন আগে সাকিবের সাথে যোগাযোগ করেছিলাম, কারণ আমি চাইছিলাম, আমাদের শেষ শো’তে আমরা পাঁচজন উপস্থিত থাকি। কিন্তু সাকিব জানিয়েছেন, ব্যক্তিগত কারণে সে আমাদের সাথে থাকতে পারবেন না।’

তিনি আরও বলেন, ‘সবারই ব্যক্তিগত বিষয় থাকতে পারে। তাই এটিতে কোন সমস্যা নেই। আমার মনে হয় না, ‘সাকিব কেন উপস্থিত থাকবে না’ এ নিয়ে আলোচনার প্রয়োজন রয়েছে। এটি কোন ইস্যু হতে পারেনা। যারা লাইভে আসতে চেয়েছেন, মাশরাফি-মাহমুদুল্লাহ ও মুশফিক এই তিনজন খেলোয়াড়ের কাছে আমি কৃতজ্ঞ। শনিবারের শো’টিই হবে শেষ পর্ব।

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের কারণে বিধ্বস্ত হয়ে পড়া দেশ ও দেশের বাইরের মানুষদের কিছুটা বিনোদন দিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনলাইনে লাইভ আড্ডার আয়োজন করেন তামিম।

গত ২ মে এই লাইভ আড্ডা শুরু করেন তামিম। তার প্রথম লাইভ আড্ডার অতিথি ছিলেন দেশের সাবেক অধিনায়ক মুশফিক। এরপর ইনস্টাগ্রামে বাংলাদেশের টি-২০ দলনেতা মাহমুদুল্লাহ রিয়াদকে নিয়ে আসেন তামিম। পরবর্তীতে ইনস্টাগ্রাম ছেড়ে ফেসবুক ও নিজের ইউটিউব চ্যানেলে বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজাকে ভক্তদের সামনে হাজির করেন তামিম।

আড্ডার ধারাবাহিকতা অব্যাহত রেখে ফেসবুক ও নিজের ইউটিউব চ্যানেলেই দেশের দুই পেসার তাসকিন আহমেদ-রুবেল হোসেনকে একত্রে লাইভে আনেন তামিম। এই লাইভের মাঝে কিছুক্ষনের জন্য ছিলেন জাতীয় দলের ব্যাটসম্যান নাসির হোসেনও।

দলের বর্তমান সতীর্থদের পর জাতীয় দলের সাবেক তিন অধিনায়ক- নাইমুর রহমান দুর্জয়, খালেদ মাহমুদ সুজন ও হাবিবুল বাশার সুমনকে নিয়ে লাইভ আড্ডায় মাতেন তামিম।

পরে দেশের গন্ডি পেরিয়ে বিদেশী খেলোয়াড়দের দিকে নজর দেন তামিম। তাই প্রথম বিদেশী খেলোয়াড় হিসেবে গত ১৩ মে দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক অধিনায়ক ও ডান-হাতি ব্যাটসম্যান ফাফ ডু-প্লেসিসকে লাইভে নিয়ে আসেন তামিম। সেটি ছিলো তামিমের ষষ্ঠ লাইভ শো।

এরপর নিজের লাইভ শো’তে আরও বড় চমক দেখান তামিম। ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও ওয়ানডে ক্রিকেটে তিনটি ডাবল-সেঞ্চুরির মালিক রোহিত শর্মাকেও লাইভে আনেন তিনি।

এরপর বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক মোমিনুল হক, সৌম্য সরকার ও লিটন দাস একত্রে তামিমের লাইভ শো’তে উপস্থিতি হন। এই শো’তে স্পিনার তাইজুল ইসলামও ছিলেন।

পরবর্তীতে ১৯৯৭ সালে বাংলাদেশের আইসিসি ট্রফি জয়ে প্রধান ভূমিকা রাখা আকরাম খান, মিনহাজুল আবেদিন নান্নু ও খালেদ মাসুদ পাইলটকে নিয়ে আড্ডা জমিয়ে তুলেন তামিম। সেখানে বিশেষ অতিথি ছিলেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ওয়াসিম আকরাম।

আর আজ নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনকে উপস্থিত করেছেন তামিম। তামিমের লাইভ সেশন আড্ডায় খেলোয়াড়দের না জানা অনেক মজার স্মৃতি ক্রিকেটপ্রেমিদের সামনে উন্মোচিত হয়েছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD