এক গ্রীষ্মেই ৩২শ’ কোটি টাকা ক্ষতি ইসিবি’র

এক গ্রীষ্মেই ৩২শ’ কোটি টাকা ক্ষতি ইসিবি’র

করোনাভাইরাসের কারণে আগামী ২৮ মে পর্যন্ত নিজ দেশের সবধরনের ক্রিকেট বন্ধ করেছে ইংল্যান্ড এন্ড ‌ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)। আন্তর্জাতিকের সাথে ঘরোয়া আসরও বন্ধ। এই পরিস্থিতি যদি আগামী ৪/৫ মাস অব্যাহত থাকে, তবে বড় ধরনের ক্ষতি মুখে পড়তে যাচ্ছে ইসিবি।

ইসিবির প্রধান নির্বাহী টম হ্যারিসন জানিয়েছেন, ‘এবারের গ্রীষ্মে যদি একদমই ক্রিকেট না হয় ইংল্যান্ডে, তাহলে ইসিবির ক্ষতির পরিমাণ দাঁড়াবে ৩০ কোটি পাউন্ড (যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৩২শ’ কোটি টাকা)। এত বড় ক্ষতি কখনো হয়নি আমাদের। আর যদি এই পরিস্থিতি আরও বেড়ে যায়, তবে কঠিন অবস্থায় পড়তে হবে ইসিবিকে।’

কিন্তু এমন ক্ষতি থেকে রক্ষা পেতে যেকোনো মূল্যে মাঠে ক্রিকেট ফেরাতে চায় ইসিবি। এরই মধ্যে প্রায় ৬৩৬শ’ কোটি টাকার ‘সাহায্য প্যাকেজ’ ঘোষণা করেছে তারা। করোনার কারণে হওয়া ক্ষতি পুষিয়ে নিতে ঐ অর্থ ব্যবহার করা হবে।

ইতোমধ্যে মাঠে খেলার ফেরানোর আহ্বান জানিয়েছেন ইংল্যান্ডের ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক ইয়োইন মরগান। পাশাপাশি করোনাভাইরাসের কারণে যেকোন পরিস্থিতিতে পাশে থাকার আশ্বাসও দিয়েছেন তিনি।

ইসিবি ইতোমধ্যে জাতীয় দলের খেলোয়াড়দের বেতন থেকে কিছু অংশ কেটে রাখার কথা চিন্তা-ভাবনা করছে। চুক্তিবদ্ধ কিছু ক্রিকেটাররা এতে বিরোধিতাও করেছে। তবে এখনো কোন চূড়ান্ত সিদ্বান্ত নেয়নি ইসিবি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD