ভারতকে ১৬৫ রানে গুটিয়ে দিয়ে লিড নিউজিল্যান্ডের

ভারতকে ১৬৫ রানে গুটিয়ে দিয়ে লিড নিউজিল্যান্ডের

ভারতের বিপক্ষে ওয়েলিংটন টেস্টের দ্বিতীয় দিনই লিড নিলো স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড। প্রথম ইনিংসে ভারতকে ১৬৫ রানেই অলআউট করে দেয় কিউইরা। এরপর নিজেদের ইনিংস শুরু করে দ্বিতীয় দিন শেষে ৫ উইকেটে ২১৬ রান করেছে তারা। এতে ৫ উইকেট হাতে নিয়ে ৫১ রানে এগিয়ে নিউজিল্যান্ড।

প্রথম দিন বৃষ্টির কারণে ৫৫ ওভার খেলা হয়েছিলো। বৃষ্টির সাথে নিউজিল্যান্ড বোলারদের দাপটে ৫ উইকেটে ১২২ রান করেছিলো টস হেরে প্রথমে ব্যাটিংএ নামা ভারত। শেষ ৫ উইকেটে আজ মাত্র ৪৩ রান সংগ্রহ করতেসক্ষম হয় সফরকারীরা।

দলীয় ১০১ রানে পঞ্চম উইকেট পতনের পর ভারতের পক্ষে জুটি বাঁধেন আজিঙ্কা রাহানে ও উইকেটরক্ষক ঋসভ পান্থ। ৮৩ বল মোকাবেলা করে অবিচ্ছিন্ন ২১ রানের জুটি গড়েছিলেন রাহানে ও পান্থ। দিন শেষে রাহানে ৩৮ ও পান্থ ১০ রানে অপরাজিত ছিলেন।

দ্বিতীয় দিনের চতুর্থ ওভারের দ্বিতীয় বলে বিদায় নেন পান্থ। রান আউট হয়ে ১৯ রানে আটকে যান পান্থ। উইকেট গিয়ে ১ বলের বেশি খেলতে পারেননি স্পিনার রবীচন্দ্রন অশ্বিন। খালি হাতে ফিরেন তিনি।

ভারতের ভরসা হিসেবে ক্রিজে ছিলেন রাহানে। কিন্তু বড় ইনিংস খেলতে ব্যর্থ তিনি। নিউজিল্যান্ডের পেসার টিম সাউদির তৃতীয় শিকার হয়ে ৪৬ রানে বিদায় নেন রাহানে। ৫টি চারে ১৩৮ বলে ৪৬ রান করেন তিনি।

দলীয় ১৪৩ রানে অষ্টম ব্যাটসম্যান হিসেবে প্যাভিলিয়নে ফিরেন রাহানে। তাই দেড়শর নীচে গুটিয়ে যাবার শংকায় পড়ে ভারত। কিন্তু সেটি হতে দেননি দুই টেল-এন্ডার ইশান্ত শর্মা ও মোহাম্মদ সামি। সামির মারমুখী ব্যাটিং-এ দেড়শ পেরিয়ে ১৬৫ রান পর্যন্ত যেতে সক্ষম হওয়া ভারত ৬৮ দশমিক ১ ওভার ব্যাট করতে সক্ষম হয়। সামি ৩টি চারে ২০ বলে ২১ ও ইশান্ত ৫ রানে আউট হন। নিউজিল্যান্ডের হয়ে অভিষেক হওয়া খেলোয়াড় কাইল জেমিসন ৩৯ রানে ও সাউদি ৪৯ রানে ৪ উইকেট নেন।

মধ্যাহ্ন-বিরতির আগ মূর্হুতে নিজেদের ব্যাটিং শুরু করে নিউজিল্যান্ড। ১১তম ওভারে ভারতকে উইকেট শিকারের আনন্দের ভাসান পেসার ইশান্ত শর্মা। ওপেনার টম লাথামকে ১১ রানে আউট করেন তিনি। এরপর আরেক ওপেনার টম ব্লান্ডেল ও অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন ৪৭ রানের জুটি গড়েন। এই জুটিতেও ভাঙ্গন ধরান ইশান্ত। ৪টি চারে ৩০ রান করে ফিরেন ব্লান্ডেল।

দলীয় ৭৩ রানে দ্বিতীয় উইকেট পতনের পর ক্রিজে উইলিয়ামনের সঙ্গী হন শততম টেস্ট খেলতে নামা রস টেইলর। উইকেটের সাথে দ্রুত মানিয়ে নিয়ে নিউজিল্যান্ডের রানের চাকা সচল করেন উইলিয়ামসন-টেইলর। চা-বিরতির আগ পর্যন্ত অবিচ্ছিন্নই ছিলেন তারা। হাফ-সেঞ্চুরির দোড়গোড়ায় ছিলেন উইলিয়ামসন। তবে ভারতের ১৬৫ রানকে টপকে বিচ্ছিন্ন হন উইলিয়ামসন-টেইলর।

হাফ-সেঞ্চুরির কাছাকাছি গিয়ে ইশান্তের তৃতীয় শিকার হয়ে ৪৪ রানে থামেন টেইলর। তৃতীয় উইকেটে ৯৩ রান তুলে দলকে লিড এনে দেন উইলিয়ামসন-টেইলর।

টেস্ট ক্যারিয়ারের ৩২তম হাফ-সেঞ্চুরির স্বাদ নেয়া উইলিয়ামসন সেঞ্চুরির দিকেই হাটচ্ছিলেন। তবে নাভার্স-নাইন্টিতে পৌঁছানোর আগেই থেমে যান উইলিয়ামসন। ১১টি চারে ১৫৩ বলে ৮৯ রান করে ওমোহাম্মদ সামির শিকার হন উইলিয়ামসন।

দিনের শেষভাগে নিউজিল্যান্ডের আরও একটি উইকেটের পতন ঘটে। সেটি নিয়েছেন ভারতের স্পিনার রবীচন্দ্রন অশ্বিন। ১৭ রান করা হেনরি নিকোলসকে শিকার করেন অশ্বিন। তবে দিন শেষে উইকেটরক্ষক বিজে ওয়াটলিং ১৪ ও কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম ৪ রানে অপরাজিত আছেন। গোড়ালির ইনজুরির কারনে টেস্ট সিরিজে খেলা অনিশ্চিতই ছিলেন ইশান্তের। শেষ মূহূর্তে সুস্থ হয়ে ফিরেই ৩১ রানে ৩ উইকেট নিয়ে আজকের দিনে ভারতের সেরা বোলার তিনিই।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD