আবার‌ও হার বাংলাদেশের মেয়েদের

আবার‌ও হার বাংলাদেশের মেয়েদের

নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে টানা দ্বিতীয় ম্যাচে হারলো বাংলাদেশ দল। ভারতের পর শক্তিশালী অস্ট্রেলিয়ার কাছেও হারলো সালমা খাতুনরা। আজ বৃহস্পতিবার ‘এ’ গ্রুপে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে অসিদের কাছে ৮৬ রানের বড় ব্যবধানে হারে বাংলাদেশ। সংক্ষিপ্ত ভার্সনে রান বিবেচনায় এটাই বাংলাদেশ দলের বড় পরাজয়। প্রথম ম্যাচে ভারতের কাছে ১৮ রানে হেরেছিলো রুমানা-জাহানারা।

ক্যানবেরাতে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নামে অস্ট্রেলিয়া। ব্যাট হাতে দুর্দান্ত সূচনা করেন অস্ট্রেলিয়ার দুই ওপেনার আলিসা হিলি ও বেথ মুনি । নারী ক্রিকেটে সংক্ষিপ্ত ভার্সনে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে যেকোন উইকেটে রেকর্ড ১৫১ রানের (১০২বল) উদ্বোধনী জুটি গড়েন হিলি ও মুনি। যেকোন উইকেটে অস্ট্রেলিয়ার আগের রেকর্ড রান ছিলো অবিচ্ছিন্ন ১৪৭। ২০০৫ সালে টনটনে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে চতুর্থ উইকেটে ঐ রান করেছিলেন কারেন রোল্টন ও কেট ব্লাকওয়েল। নারী টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট ইতিহাসে সেটি দ্বিতীয় ম্যাচ ছিলো।

জুটিতে রেকর্ড গড়ার পথে পাওয়া প্লেতে ৫৩ রান তুলেন হিলি-মুনি। দলের স্কোর ১শতে নিতে ৬৪ বল খেলেন তারা। এ সময় ২৬ বলে টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের ১১তম হাফ-সেঞ্চুরির স্বাদ নেন হিলি। তবে আরেক ওপেনার মুনি হাফ-সেঞ্চুরি করতে ৪০ বল খেলেন।

১৭তম ওভারের শেষ বলে থামে হিলি-মুনি জুটির পথচলা। বাংলাদেশ স্পিনার ও অধিনায়ক সালমা খাতুনের বলে পয়েন্টে সানজিদা ইসলামকে ক্যাচ দেন হিলি। ৫৩ বলে ১০টি চার ও ৩টি ছক্কায় ৮৩ রান করেন হিলি।

হিলির বিদায়ে ক্রিজে মুনির সঙ্গী হন এ্যাশলি গার্ডনার । শেষ চার ওভারে ৩৮ রান যোগ করেন মুনি-গার্ডনার। তাই ২০ ওভারে ১ উইকেটে ১৮৯ রানের বড় সংগ্রহ পায় অস্ট্রেলিয়া। ৯টি চারে ৫৮ বলে অপরাজিত ৮১ রান করেন মুনি। ৯ বলে ৩টি চার ও ১টি ছক্কায় অপরাজিত ২২ রান করেন গাডর্নার। বাংলাদেশের সালমা ৩৯ রানে ১ উইকেট নেন।

১৯০ রানের বড় টার্গেট তাড়া করতে নেমে শুরুতেই হোচট খায় বাংলাদেশ। ২৬ রান তুলতে তিন টপ-অর্ডার ব্যাটসম্যান প্যাভিলিয়নে ফিরেন। মুরশিদা খাতুন ৮, শামিমা সুলতানা ১৩ ও সানজিদা ইসলাম ৩ রান করেন।

মিডল-অর্ডারের তিন ব্যাটসম্যান উইকেটরক্ষক নিগার সুলতানা-ফারজানা হক ও রুমানা আহমেদ পরিস্থিতি সামলে উঠার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু তাদের রান তোলার গতি ছিলো খুবই মন্থর। সুলতানা ছিলেন টেস্ট মেজাজে। ৩২ বলে ২টি চারে করেন ১৯ রান।

যেখানে শুরুতে আস্কিং রান রেট ছিলো সাড়ে ৯এর কাছে, সেখানে ওয়ানডে মেজাজে খেলেন ফারজানা ও রুমানা। ফারজানা ৪টি চারে ৩৫ বলে ৩৬ ও রুমানা ১টি চারে ১২ বলে ১৩ রান করেন। তাদের পর আর কোন ব্যাটসম্যানই দু’অংকে পা দিতে পারেননি। ফলে ২০ ওভারে ৯ উইকেটে কোন মতে দলীয় স্কোর তিন অংক পেরিয়ে ১০৩ রান করে। অস্ট্রেলিয়ার মেগান চুট ২১ রানে ৩ উইকেট নেন। ম্যাচ সেরা হয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার হিলি।

আগামী ২৯ ফেব্রুয়ারি মেলবোর্নে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD