টেস্ট সিরিজে ডাবল লিড ইংল্যান্ডের

টেস্ট সিরিজে ডাবল লিড ইংল্যান্ডের

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে পোর্ট এলিজাবেথ টেস্ট জিতে সিরিজে ডাবল লিড নিলো সফরকারী ইংল্যান্ড। তৃতীয় টেস্টে ইংলিশরা ইনিংস ও ৫৩ রানের ব্যবধানে হারিয়েছে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকাকে। ফলে চার ম্যাচের সিরিজে ২-১ তে এগিয়ে গেল জো রুটের দল।

চতুর্থ দিন শেষেই টেস্ট জয়ের মঞ্চ তৈরি করে রেখেছিলো ইংল্যান্ড। ম্যাচ জিততে ৪ উইকেট প্রয়োজন ছিলো তাদের। আর ইনিংস হার এড়াতে আরও ১৮৮ রান প্রয়োজন ছিলো দক্ষিণ আফ্রিকার। ফলো-অনে পড়ে দ্বিতীয় ইনিংসে চতুর্থ দিন শেষে ৬ উইকেটে ১০২ রান করতে পারে প্রোটিয়ারা। পেসার ভারনন ফিল্যান্ডার ১৩ ও কেশব মহারাজ ৫ রানে অপরাজিত ছিলেন।

পঞ্চম দিনের তৃতীয় বলেই আউট হন ফিল্যান্ডার। ইংল্যান্ড পেসার স্টুয়ার্ট ব্রডের শিকার হয়ে ১৩ রানেই থেমে যান তিনি। উইকেটে গিয়ে মহারাজকে বেশিক্ষণ সঙ্গ দিতে পারেননি কাগিসো রাবাদা ও এনরিখ নর্টি। রাবাদা ১৬ ও নর্টি ৫ রান করে ফিরেন। ফলে ১৩৮ রানেই নবম উইকেট হারিয়ে ম্যাচ হারের দোঁড়গোড়ায় পৌঁছে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। প্রতিপক্ষের শেষ শিকার করে জয়ের উল্লাসে মাততে তর সইছিলো না ইংল্যান্ডের।

কিন্তু ইংল্যান্ডের জয়কে দীর্ঘায়িত করেন মহারাজ ও ডেন পিটারসন। শেষ উইকেটে টি-২০ স্টাইলে রান তুলতে থাকেন মহারাজ ও পিটারসন। যার মাধ্যমে ইনিংস হার এড়ানোর পথে হাটতে থাকে দক্ষিণ আফ্রিকা। দু’প্রান্ত দিয়ে বোলার পরিবর্তন করেও প্রোটিয়াদের শেষ উইকেটের পতন ঘটাতে পারছিলেন না ইংল্যান্ডের বোলাররা।

শেষ পর্যন্ত দুভার্গ্যের শিকার হন মহারাজ ও পিটারসন। রান আউটের ফাঁদে পড়ে বিচ্ছিন্ন হন তারা। শেষ জুটিতে ৭৩ বলে ৯৯ রান যোগ করেন মহারাজ-পিটারসন। রান আউট হবার আগে ১০টি চার ও ৩টি ছক্কায় ১০৬ বলে ৭১ রান করেন মহারাজ। এই ইনিংস খেলার পথে টেস্টে ক্রিকেটে এক ওভারে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ডে ভাগ বসান তিনি। ইংল্যান্ডের অধিনায়ক জো রুটের করা ৮২তম ওভার থেকে ২৮ রান নেন মহারাজ। এর মধ্যে বাই থেকে ছিলো ৪ রান। তারপরও টেস্ট ক্রিকেটে এক ওভারে সর্বোচ্চ রানে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বরপুত্র ব্রায়ান লারা ও অস্ট্রেলিয়ার জজ বেইলির পাশে নাম তুলেন মহারাজ। ২০০৩-০৪ মৌসুমে লারা ও ২০১৩-১৪ মৌসুমে বেইলি এক ওভারে ২৮ রান করে নিয়েছিলেন।

শেষ পর্যন্ত প্রোটিয়াদের দ্বিতীয় ইনিংস থামে ২৩৭ রানে। ৬টি চারে ৪০ বলে অপরাজিত ৩৯ রান করেন পিটারসন। ইংল্যান্ডের অধিনায়ক জো রুট ৪টি ও মার্ক উড ৩টি উইকেট নেন।

ম্যাচের সেরা হন প্রথম ইনিংসে অপরাজিত ১৩৫ রান করা ইংল্যান্ডের ওলি পপ। আগামী ২৪ জানুয়ারি জোহানেসবার্গে অনুষ্ঠিত হবে সিরিজের চতুর্থ ও শেষ টেস্ট। ইংল্যান্ডের ৯ উইকেটে ৪৯৯ রানের জবাবে প্রথম ইনিংসে দক্ষিণ আফ্রিকা ২০৯ রানে অলআউট হয়েছিল।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD