ফুটবল জোয়ারে ভাসছে চট্টগ্রাম

ফুটবল জোয়ারে ভাসছে চট্টগ্রাম

বন্দরনগরী চট্টগ্রামে আজ থেকে শুরু হচ্ছে শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপ। আট দলের এই টুর্নামেন্টকে ঘিরে আবেগ আর উচ্ছ্বাসে ভাসছে চট্টগ্রাম। নতুনভাবে সেজেছে এমএ আজিজ স্টেডিয়ামও। টুর্নামেন্টের তৃতীয় আসরে আজ শনিবার একটিই ম্যাচ হবে। গতবারের চ্যাম্পিয়ন মালদ্বীপের টিসি স্পোর্টসের মুখোমুখি হবে প্রথম আসরের শিরোপাধারী স্বাগতিক চট্টগ্রাম আবাহনী। ম্যাচটি শুরু হবে সন্ধ্যা সাতটায়।

উৎসবে মেতে ওঠার আগেই অনেকটা যেন বিনা মেঘে বজ্রপাত! হঠাৎ করেই টুর্নামেন্ট থেকে নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছে ঢাকা আবাহনী। তবে দ্রুতই ঢাকা আবাহনীর শূন্যস্থান পূরণ করতে সমর্থ হন আয়োজকরা। ঢাকা আবাহনীর জায়গায় ভারতের কেরালা এফসি খেলবে বলেও নিশ্চিত হয়েছে।

টুর্নামেন্টের চিফ কো-অর্ডিনেটর সাইফ পাওয়ারটেকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তরফদার রুহুল আমিন জানান, টুর্নামেন্টের ফিকশ্চার তৈরি হওয়ার পর ঢাকা আবাহনীর এমন সিদ্ধান্তের কারণে সাময়িক ধাক্কা খেলেও আমরা সেটার সমাধান করতে পেরেছি। ঢাকা আবাহনীর জায়গায় খেলবে ভারতের কেরালা এফসি। আশা করছি আন্তর্জাতিক এই টুর্নামেন্ট হবে প্রাণবন্ত।

টুর্নামেন্টের একমাত্র ভেন্যু এমএ আজিজ স্টেডিয়ামকে পরিণত করা হয়েছে সবুজ গালিচায়। নতুন করে লাগানো হয়েছে ফ্লাডলাইট। টুর্নামেন্টকে সামনে রেখে বাড়ানো হয়েছে মাঠের নিরাপত্তা।

এই আসরকে জমজমাট করতে চট্টগ্রাম মহানগরের ৪১টি ওয়ার্ড এবং অন্যান্য উপজেলায় চালানো হচ্ছে ব্যাপক প্রচারণা। ব্যানার, ফেস্টুন, লিফলেট বিতরণ ও মাইকিংয়ের মাধ্যমে প্রচারের ব্যবস্থা করেছে আয়োজক কমিটি। তবে ঢাকা আবাহনী শেষ মুহূর্তে নাম প্রত্যাহার করায় অনেকে হতাশা প্রকাশ করেছেন। ঘরের মাঠের দল চট্টগ্রাম আবাহনীকে সমর্থন দেয়ার জন্য উন্মুখ হয়ে আছেন সমর্থকরা।

পাঁচটি দেশের আট ক্লাবের অংশগ্রহণে মোট ১৫টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। ১১ অক্টোবর টুর্নামেন্টের ড্র অনুষ্ঠিত হয়। ৩০ অক্টোবর হবে ফাইনাল। আটটি দলকে দুটি গ্রুপে ভাগ করা হয়েছে। গ্রুপ ‘এ’তে স্বাগতিক চট্টগ্রাম আবাহনী ছাড়াও আছে মালদ্বীপের টিসি স্পোর্টস, ভারতের মোহনবাগান ও লাওসের ইয়াং এলিফ্যান্টস। সূচি অনুযায়ী গ্রুপ ‘বি’তে ছিল ঢাকা আবাহনী, বসুন্ধরা কিংস, মালয়েশিয়ার তেরেঙ্গা এফসি ও ভারতের চেন্নাইয়ান সিটি। ঢাকা আবাহনী নাম প্রত্যাহার করে নেয়ায় একই সূচিতে খেলবে ভারতের কেরালা এফসি ক্লাব।

বেশিসংখ্যক দর্শক যাতে মাঠে এসে উপভোগ করতে পারেন, সেজন্য টুর্নামেন্টের টিকিটের দাম রাখা হয়েছে পূর্ব গ্যালারি ১০ টাকা। আর উত্তর ও দক্ষিণ গ্যালারির টিকিটের মূল্য ২০ টাকা।

এবারের আসরে অংশগ্রহণকারী দলগুলোকে প্রাইজমানি বাবদ দেয়া হবে ১০ হাজার ডলার। এছাড়া টুর্নামেন্টের রানার্সআপ দল পাবে ২৫ হাজার ডলার ও চ্যাম্পিয়ন দলদ ৫০ হাজার ডলার অর্থ পুরস্কার পাবে।

২০১৫ সালে প্রথম আসরে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল চট্টগ্রাম আবাহনী। ২০১৭ সালে দ্বিতীয় আসরে শিরোপা জিতেছিল মালদ্বীপের ক্লাব টিসি স্পোর্টস।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD