বাংলাদেশ-আফগানিস্তান একমাত্র টেস্ট কাল

বাংলাদেশ-আফগানিস্তান একমাত্র টেস্ট কাল

ফারদিন আল সাজু

আগামীকাল বৃহস্পতিবার একমাত্র টেস্টে আফগানদের মুখোমুখি হবে স্বাগতিক বাংলাদেশ। এই ম্যাচ দিয়েই শুরু হচ্ছে ৫ প্রোটিয়ার কোচিং স্টাফদের অধ্যায়। অন্যাদিকে রশিদ খানের নেতৃত্বে তরুণ দল নিয়ে বাংলাদেশের সাথে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে খেলতে নামছে আফগানিস্তান। একমাত্র টেস্ট ম্যাচটি শুরু হবে চট্রগ্রামের জহুর আহেম্মেদ স্টেডিয়ামে সকাল সাড়ে ১০ টায়।

বাংলাদশ ও আফগানিস্তানের দুই দলের টেস্ট খেলার ফারাক দেড় যুগ। যেখানে বাংলাদেশ টেস্ট খেলেছে ১১৪ টি বিপরীতে আফগানরা খেলেছে মাত্র ২ টি টেস্ট। তবে রশিদ খানের নেতৃত্বের তরুণ দল ভালোকিছু করবে বলে আশাবাদী টেস্ট ক্রিকেটে নবগত দলটি। রশিদ খানের সাথে আরেক লেগি কায়েস আহেম্মেদ। সাথে চায়নাম্যান জহির খান আর মোহাম্মদ নবীর অভিজ্ঞতা ভোগাতে পারে টাইগারদের। তাই বোলিং বিভাগে বেশ শক্তিশালী রশিদ বাহিনী। এছাড়াও টেস্ট ক্রিকেটে কম বয়সে অধিনায়ক হয়ে বিশ্বরেকর্ড গড়বেন রশিদ খান।

অন্যদিকে আফগানরা একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী মনে করেন সাকিবকে। বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার আছেন সেরা ফর্মে। তাকে নিয়ে আলাদা পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন অফগান কোচ অ্যান্ডি মোলস। তিনি তো বলেই বসেছিলেন সাকিবকে আটকানোর বিশেষ পরিকল্পনা আছে আমাদের। ওকে ধারাবাহিক হতে দেওয়া যাবে না। তার কথাতেই স্পস্ট যে সাকিব তাদের একমাত্র মাথাব্যাথার কারন। সাকিব ছাড়াও সেরা ব্যাটসম্যান মুশফিক ও মাহমুদুল্লাহ দলে আছেন। আছেন সৌম্য ও সাদমানের মত তরুন প্রতিভাবান খেলোয়াড়। সাকিবের সাথে স্পিন সামলাতে মিরাজ, তাইজুল, নাঈম রায়েছে আফগাদের ব্যাটিং ধ্বংস করতে। এছাড়াও এই সিরিজ দিয়ে ৫ প্রোটিয়া কোচিং স্টাফের কোচিং অধ্যায় শুরু হবে। এটা হবে প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গোর প্রথম অ্যাসেইমেন্ট।

এদিকে, টেস্ট শুরুর আগে মাঠে সাকিব আল হাসান আর রশিদ খানের উষ্ণ করমর্দন আসলে প্রতিকী। না হলে সাদা পোশাকে প্রথমবার নম্বর যুক্ত জার্সি গায়ে ফটোসেশনে সবাই যখন ব্যস্ত, তখন মুশফিক, মাহমুদুল্লাহরা ব্যস্ত নিজেদের ঝালিয়ে নিতে। কারণ, টেস্ট ক্রিকেটে নতুন প্রতিপক্ষ আফগানিস্তানের দলটি সীমিত ওভারের ক্রিকেটের মত ভয়ংকর হয়ে উঠতে পারে এই ফরমেটেও। তাই ‘পঁচা শামুকে’ পা কাঁটার ভয়ে সতর্ক টাইগার শিবির।

আফগানদের যেমন আছে বিশ্বের অন্যতম সেরা লেগস্পিনার রশিদ খান। আরো আছে মোহাম্মদ নবী কিংবা হালের সেনসেশন চায়নাম্যান জহির খান। তেমনি বাংলাদেশের আছে সাকিব, তাইজুল, নাঈমদের নিয়ে গড়া স্পিনিং গ্রুপ। তবে বিসিবি একাদশনের বিপক্ষে আফগানদের পারফরম্যান্স দিচ্ছে ভিন্ন ইংগিত। তেমনটা হলে, টেস্টেও ভয়ংকর হয়ে উঠতে পারে আফগানিস্তান। তাই অনুশীলনে একটুও ঘাটতি রাখতে নারাজ মুমিনুল, লিটনরা। এদিকে জয়ের মাধ্যমেই দেশের মাটিতে আধিপত্য ধরে রাখতে চান টাইগার দলপতি।

বোলিংয়ের পাশাপাশি ইহসানুল্লাহ, আসগর, নবীসহ নতুন ও অভিজ্ঞদের নিয়ে গড়া ব্যাটিং শক্তিটাতেও খুব একটা পিছিয়ে নেই আফগানিস্তান। আফগান অধিনায়ক বলেন, নিজেদের কন্ডিশনে বাংলাদেশ কঠিন প্রতিপক্ষ হলেও মাঠের লড়াইয়ে এগিয়ে থাকতে চান তারা।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD