নেপালকে হারালেই ফাইনালে বাংলাদেশ

নেপালকে হারালেই ফাইনালে বাংলাদেশ

সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ টুর্নামেন্টে আজ মঙ্গলবার নেপালকে হারাতে পারলেই ফাইনালে উঠে যাবে বাংলাদেশের কিশোররা। ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কল্যাণী স্টেডিয়ামে দুপুর সাড়ে তিনটায় মুখোমুখি হবে দুই দল।

বয়সভিত্তিক এই আসরে লাল-সবুজদের সব থেকে বড় বাধার একটি নেপাল। অতীত বলছে হিমালয়ের দেশটির বিপক্ষে বেশিরভাগই দুঃসহ স্মৃতি লাল-সবুজদের। তবে সবশেষ মুখোমুখিতে জয়টা কিন্তু বাংলাদেশেরই। তাই নেপাল যদি পরিসংখ্যানে এগিয়ে থাকার আত্মবিশ্বাস নিয়ে খেলতে নামে, বাংলাদেশও কিন্তু নামবে শেষ দেখায় জয় আর বর্তমান চ্যাম্পিয়ন হবার সুখস্মৃতি নিয়ে।

২০১১ সালের সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ টুর্নামেন্টে ‘বি’ গ্রুপে বাংলাদেশের সঙ্গী হয়েছিলো নেপাল। গ্রুপ পর্ব থেকে নেপাল চ্যাম্পিয়ন আর বাংলাদেশ রানার্স আপ হিসেবে খেলেছিল সেমিফাইনাল। তবে সেমিফাইনালে পাকিস্তানের কাছে ২-০ গোলে হেরে যায় বাংলাদেশ। অন্যদিকে টাইব্রেকারে ভারতের কাছে পরাজিত হয় নেপাল। তৃতীয় স্থান দখলের লড়াই আবারো দেখা হয় বাংলাদেশ-নেপালের। ঐ ম্যাচে নেপাল ২-১ গোলে জয় পায়।

পরের আসরে দুই দল দুই গ্রুপ থেকে সেমিফাইনালে উঠে আবারো মুখোমুখি হয়। বাংলাদেশকে ৫-১ গোলের বড় ব্যবধানে হারিয়ে ফাইনালে উঠে যায় নেপাল। ২০১৫ সালে দুই দল খেলেছে দুই গ্রুপে। সেমিফাইনালেও দেখা হয়নি। সেবার নিজেদের দেশে প্রথম শিরোপার স্বাদ পায় লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। ২০১৭ সালে গ্রুপ পর্বে দেখা হয়নি দুই দলের। তবে আবারো সেমিতে লড়াই হয় নেপাল-বাংলাদেশের। যেখানে ৪-২ গোলের জয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করে নেপাল। ২০১৮ সালে দ্বিতীয়বারের মতো শিরোপা জিতে বাংলাদেশ দল। এই আসরে আবারো একই গ্রুপে খেলেছে দু’দল। গ্রুপ ‘এ’তে নেপালকে ২-১ গোলে হারিয়ে দেয় লাল সবুজরা।

এবারের আসরে এখন পর্যন্ত গ্রুপ পর্বে বাংলাদেশের পথচলাটা চ্যাম্পিয়নের মতোই। নিজেদের প্রথম ম্যাচে ভুটানকে ৫-২ গোলে উড়িয়ে দেবার পর আত্মবিশ্বাসের পারদটা উধ্বমূখি হতে থাকে রাকিব-মিরাদদের। দ্বিতীয় ম্যাচে তারা শ্রীলঙ্কাকে হারায় ৭-১ গোলের ব্যবধানে। আজ নেপাল বাধা পেরুতে পারলেই ফাইনাল নিশ্চিত লাল-সবুজদের।

কারণ গ্রুপের প্রতিটি দল খেলবে ৪ টি করে ম্যাচ। এরমধ্যে শ্রীলঙ্কা তিন ম্যাচ খেলে সংগ্রহ করেছে মাত্র তিন পয়েন্ট। সমান ম্যাচে ভুটান পয়েন্টের খাতাই খুলতে পারেনি। ২ ম্যাচে তিন পয়েন্ট থাকায় নেপালেরও এখনো সুযোগ আছে ফাইনালে খেলার। কিন্তু বাংলাদেশ যদি তাদের হারিয়ে দিয়ে মোট ৯ পয়েন্ট সংগ্রহ করে, তবে বাকি মাত্র এক ম্যাচে তিন পয়েন্ট সংগ্রহ করতে পারলেও নেপালের হবে ৬ পয়েন্ট। যেহেতু রাউন্ড রবিন লিগ পদ্ধতিতে হচ্ছে এবারের আসর। তাই গ্রুপের শীর্ষ দুই দল খেলবে ফাইনাল। আর সে রেসে ভারতের পরই আছে বাংলাদেশ। দু’দলেরই সমান ৬ পয়েন্ট। গোল গড়ে এগিয়ে টেবিলের শীর্ষে স্বাগতিকরা।

" class="prev-article">Previous article

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD