সহজেই শ্রীলঙ্কাকে হারাল ভারত

সহজেই শ্রীলঙ্কাকে হারাল ভারত

রোহিত শর্মার রেকর্ড গড়া সেঞ্চুরিতে শ্রীলঙ্কার দেয়া ২৬৫ রানের লক্ষ্য ৭ উইকেট হাতে রেখেই ছুঁয়ে গ্রুপপর্বের লড়াই শেষ করলো ভারত। আগেই সেমিফাইনাল নিশ্চিত হওয়ায় শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে বেশ নির্ভার ছিলো বিরাট কোহলির দল। রোহিতের ইতিহাস গড়া এবং রাহুলের প্রথম সেঞ্চুরিতে ভর করে ৩৯ বল হাতে রেখেই জয় নিশ্চিত করে টিম ইন্ডিয়া।

রোহিত শর্মা এখন যা ধরছেন, তাতেই সোনা ফলাচ্ছেন। নতুন রেকর্ড গড়ছেন, তাঁর ব্যাটের দাপটে ভাঙতে বসেছে পুরনো সব রেকর্ড। আজ শনিবার শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে সেঞ্চুরি করে বিশ্বরেকর্ড গড়লেন ‘হিটম্যান’।

এক বিশ্বকাপে পাঁচ-পাঁচটি সেঞ্চুরি করার বিরল রেকর্ড এখন রোহিতের। চলতি বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সেঞ্চুরি করেছিলেন তিনি। পাকিস্তান, ইংল্যান্ড, বাংলাদেশের পরে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধেও তাঁর ব্যাট কথা কয়ে উঠলো। ১০৩ রান করে ফিরে যাওয়ার আগে লিডসের আনাচকানাচে ছড়িয়ে দিলেন দারুণ সব মণিমুক্তো।

বাংলাদেশের বিরুদ্ধেই কুমার সঙ্গকারাকে ছুঁয়েছিলেন রোহিত। চার বছর আগের বিশ্বকাপে পর পর চারটি সেঞ্চুরি করেছিলেন লংকান সাবেক উইকেটকিপার। আজ যেনো অন্য গ্রহের বাসিন্দা হয়ে গেলেন রোহিত। এক বিশ্বকাপে পাঁচটি সেঞ্চুরি করায় তাঁর আশপাশে কেউ নেই। চলতি বিশ্বকাপে ৬৪৭ রান করে রোহিত এখন, সাকিব আল হাসানকে পেছনে ফেলে সবার উপরে। শচীন তেন্ডুলকরের ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছেন। ২০০৩ বিশ্বকাপে ‘মাস্টার ব্লাস্টার’ ৬৭৩ রান করেছিলেন। সেই রেকর্ডও এখন ভাঙনের মুখে।

বিশ্বকাপে মোট ছ’টি সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন শচিন। রোহিতও ছুঁয়ে ফেললেন তাঁর ‘আইডল’কে। চার বছর আগে বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে সেঞ্চুরি করেছিলেন ভারতের সহ-অধিনায়ক। আর এই বিশ্বকাপে তো ইতিহাস গড়লেন— পাঁচ-পাঁচটি সেঞ্চুরি। রোহিতের পাশাপাশি লোকেশ রাহুলও সেঞ্চুরি করেন।

সেমিফাইনালের আগে বিরাট শ্রীলঙ্কার ২৬৪ রানের জবাবে রোহিত ও রাহুল ওপেনিং জুটিতে ১৮৯ রান যোগ করেন। তাতেই অর্ধেক জেতা হয়ে যায় ভারতের। বাকি কাজটা শেষ করেন বিরাট কোহালি-সহ বাকিরা। ৩৯ বল বাকি থাকতে সাত উইকেটে ম্যাচ জিতে নেয় ভারত।

লিডসে শুরুটা দারুণ করেছিলেন ভারতীয় বোলাররা। দ্রুত শ্রীলঙ্কার চারটি উইকেট তুলে নিয়ে ধাক্কা দিয়েছিলেন বুমরা-পান্ডিয়া-জাদেজারা। ভারতীয় বোলারদের দাপটে তাসের ঘরের মতো তখন ভেঙে পড়ে শ্রীলঙ্কার ব্যাটিং। বিপর্যয় থেকে শ্রীলঙ্কাকে উদ্ধার করেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ। পান্ডিয়াকে বাউন্ডারি হাঁকিয়ে সেঞ্চুরি করেন তিনি।

থিরিমানে ব্যক্তিগত ৫৩ রানে কুলদীপ যাদবের বলে আউট হলেও ম্যাথুজ ১১৩ রান করে বুমরার শিকারে পরিণত হন। শেষ পর্যন্ত ৫০ ওভারের শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ ৭ উইকেটে ২৬৪ রান।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD