পারলোনা বাংলাদেশ মুস্তাফিজের শত উইকেট

পারলোনা বাংলাদেশ মুস্তাফিজের শত উইকেট

১৯৯৯ সালের ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে ‌ওয়াসিম আকরামের পাকিস্তানকে হারিয়ে রীতিমতো আলোড়ন তুলেছিল আমিনুল ইসলামের বাংলাদেশ। তখন দারুণ এক দল পাকিস্তান। ওয়াসিম আকরামের পাশাপাশি ওয়াকার ইউনুস, শোয়েব আখতার আগুন জ্বালাচ্ছিলেন। বিশ্ব ক্রিকেটের দুর্দান্ত সব বোলারকে সামলে সেবার বাংলাদেশ ৬২ রানে হারিয়েছিল পাকিস্তানকে।

চলতি বিশ্বকাপে বাংলাদেশ তিনটি ম্যাচ ইতিমধ্যেই জিতেছে। শুক্রবার লর্ডসে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ম্যাচ বাংলাদেশের কাছে ২০ বছর আগের এক ইতিহাসের পুনরাবৃত্তির। বিশ্বকাপ থেকে আগেই ছিটকে গিয়েছে বাংলাদেশ। অঙ্কের হিসেবে বেঁচে ছিল পাকিস্তানের শেষ চারে পৌঁছনোর আশা।

টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় পাকিস্তান। ৫০ ওভারের শেষে পাকিস্তান থামল ৯ উইকেটে ৩১৫ রানে। মাশরাফিদের ৭ রানে অলআউট করলে পাকিস্তান চলে যেত শেষ চারে। বাংলাদেশ খুব সহজেই সেই রান করে ফেলায় সেমিফাইনালের দরজা বন্ধ হয়ে যায় পাকিস্তানের জন্য। পাকিস্তানী ওপেনার ইমাম উল হক ১০০ রান করেন। বাবর আজম ৯৬ রানে ফেরেন প্যাভিলিয়ানে। সেঞ্চুরি না পেলেও বাবর আজম গড়েন রেকর্ড। সাবেক ক্রিকেটার জাভেদ মিয়াঁদাদকে টপকে পাকিস্তানের হয়ে এক বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি রান করার মালিক এখন তিনি। ১৯৯২ বিশ্বকাপে ৪৩৭ রান করেছিলেন মিয়াঁদাদ। বাবর করলেন ৪৭৪ রান।

বাংলাদেশের বোলাররা নিজেদের সেরাটা দিতে পারেননি এদিন। তবে ব্যতিক্রম মুস্তাফিজুর রহমান। হারিস সোহেলকে ফিরিয়ে ৫৪ ম্যাচে ১০০ উইকেট নেন তিনি। জিতলে‌ও বাবর আজমের রেকর্ড গড়ার দিনে, সেমিফাইনালের আগেই লর্ডস ছাড়তে হচ্ছে পাকিস্তানকে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD