বিশ্বকাপে পাকিস্তানের কাছে অজেয় ভারত

বিশ্বকাপে পাকিস্তানের কাছে অজেয় ভারত

খেলা শুরুর আগের হুঙ্কার কিংবা বৃষ্টি কোনোকিছুই পাকিস্তানের পরাজয় ঠেকাতে পারলো না। বিশ্বকাপে ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি ঘটিয়ে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে জয়ের ধারা অব্যাহত রাখলো টিম ইন্ডিয়া। তাতে বিশ্বকাপে পাকিস্তানের কাছে অজেয়ই থাকলো ভারত। এই নিয়ে সাতটি বিশ্বকাপ ম্যাচে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের মুখোমুখি হয়ে সাতবারই জয় তুলে নিল ভারত। ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে সরফরাজ আহমেদের দলকে ডাকওয়ার্থ-লুইস মেথডে ৮৯ রানে পরাজিত করে বিরাট কোহলির দল ভারত।

বৃষ্টি বিঘ্নিত বিশ্বকাপের হাইভোল্টেজ ম্যাচে টসে হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ভারত নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ৩৩৬ রান তোলে৷ দুরন্ত সেঞ্চুরি করেন রোহিত শর্মা। তাঁকে সঙ্গ দিয়ে ফিরটি করেন লোকেশ রাহুল ও বিরাট কোহলি। জবাবে ব্যাট করতে নেমে পাকিস্তান ৩৫ ওভারে ৬ উইকেটে ১৬৬ রান তোলার পর বৃষ্টির জন্য খেলা বন্ধ হয়ে যায়। নতুন করে খেলা শুরু হওয়ার পর ডাকওয়ার্থ-লুইস নিয়মে পাকিস্তানের সামনে জয়ের লক্ষ্য দাঁড়ায় ৪০ ওভারে ৩০২ রান। অর্থাৎ বাকি ৫ ওভারে ৪ উইকেট হাতে নিয়ে ১৩৬ রান করতে হত সরফরাজের দলকে।

ভারতের জয় কার্যত তখনই নিশ্চিত হয়ে যায়। নিয়মরক্ষার শেষ পাঁচ ওভার ব্যাট করে পাকিস্তান কোনও উইকেট না হারিয়ে ইনিংসে আরও ৪৬ রান যোগ করে। ৪০ ওভারে ৬ উইকেটে তাদের সংগ্রহ থামে ২১২ রানে।

ফখর জামান, বাবর আজম ও ইমাদ ওয়াসিম পালটা লড়াই চালালেও বাকিরা পুরোপুরি ব্যর্থ। দুই অলরাউন্ডার বিজয় শঙ্কর ও হার্দিক পান্ডিয়ার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে উইকেট তোলেন ‘চায়নাম্যান’ কুলদীপ যাদব।

এর আগে টসে হেরে, ভারতের হয়ে ওপেন করতে নেমে লোকেশ রাহুল ৭৮ বলে ৫৭ রান করেন। রোহিত শর্মা ১১৩ বলে ১৪০ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলেন। উদ্বোধনী জুটিতে দু’জনে বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড গড়েন। তিন নম্বরে ব্যাট করতে নেমে বিরাট কোহলি ৬৫ বলে ৭৭ রান করে ক্রিজ ছাড়েন। হার্দিক পান্ডিয়া ১৯ বলে করেন ২৬ রান। পাকিস্তানের হয়ে ৪৭ রানে ৩ উইকেট নেন মোহাম্মদ আমির।

পাকিস্তান ইনিংসের শুরুতেই ওপেনার ইমাম উল হকের উইকেট হারায়। প্রথমবার বিশ্বকাপের ম্যাচে মাঠে নেমে প্রথম বলেই ইমামের উইকেট তুলে নেন বিজয় শঙ্কর। বাবর আজম ৪৮ ও ফখর জামান ৬২ রান করে কুলদীপের শিকার হন। ইমাদ ওয়াসিম ৪৬ ও শাদব খান ২০ রানে অপরাজিত থাকেন।

ভারতের হয়ে দু’টি করে উইকেট নেন বিজয় শঙ্কর, হার্দিক পান্ডিয়া ও কুলদীপ চাহাল। রেকর্ড গড়া দুরন্ত শতরানের সুবাদে ম্যাচের সেরা ক্রিকেটার নির্বাচিত হন রোহিত শর্মা৷

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD