পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশের নারীদের সহজ জয়

পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশের নারীদের সহজ জয়

সিরিজের একমাত্র ‌ওয়ানডেতে সহজেই পাকিস্তানকে হারিয়েছে বাংলাদেশের নারী ক্রিকেটাররা। কক্সবাজারের শেখ কামাল আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে ১২৬ বল হাতে রেখে ৬ উইকেটে জয় তুলে নেয় সালমা-রুমানারা। টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ৯৪ রানে অলআউট হয় পাকিস্তানের মেয়েরা। জবাবে, ২৯ ‌ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ৯৫ রান তুলে জয় পায় বাংলাদেশ।

অবশ্য টি-টোয়েন্টি সিরিজের তিন ম্যাচে ব্যাটিং বা বোলিং কোনোটাতেই চেনা রূপে ছিলো না বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল। এ বছরেই নারী এশিয়া কাপ ও বিশ্ব টি-টোয়েন্টির বাছাইপর্বের চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ মুখ থুবড়ে পড়ে পাকিস্তানের বিপক্ষে। পেতে হয় হোয়াইটওয়াশের লজ্জা।

তবে পাকিস্তানের এ সফরের একমাত্র ওয়ানডে ম্যাচে ঘুরে দাঁড়িয়েছে রুমানা আহমেদের দল। খাদিজা তুল কুবরার স্পিন ঘূর্ণি ও ফারজানা হক-রুমানা আহমেদের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে ৬ উইকেটের সহজ জয়ই পেয়েছে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশের পক্ষে নারী ক্রিকেটে প্রথমবারের মতো ছয় উইকেট নেন খাদিজা। তার অফস্পিনে ধরাশায়ী হয়ে মাত্র ৯৪ রানে অলআউট হয় পাকিস্তান। যা কিনা মাত্র ৪ উইকেট হারিয়েই ছুঁয়ে ফেলে বাংলাদেশ।

রান তাড়া করতে নেমে শুরুটা খুব একটা ভালো করতে পারেনি নারী দল। ইনিংসের প্রথম বলেই সাজঘরে ফেলেন আয়েশা রহমান। দলীয় ছয় রানের মাথায় রানআউটে কাটা পড়েন অারেক ওপেনার শারমিন আক্তার।

টি-টোয়েন্টি সিরিজের এক ম্যাচেও ৯০ রান করতে না পারা বাংলাদেশ দলের জন্য তখন ৯৫ রানের লক্ষ্যটাও যেনো দূরের পথ। তবে সে পথকে সহজ করে দেন তিন নম্বরে নামা ফারজানা হক ও চার নম্বরে নামা অধিনায়ক রুমানা আহমেদ।

দুজনের ৮১ রানের তৃতীয় উইকেট জুটিতে জয় নিশ্চিত হয়ে যায় বাংলাদেশের। অধিনায়ক রুমানা সাজঘরে ফেরেন ৩৪ রান করে। দুই বল পরে ৪৮ রান করে সাজঘরের পথ ধরেন ফারজানা।

হুট করে দুই উইকেট হারালেও কক্ষ্যচ্যুত হয়নি বাংলাদেশের জয়। লতা মন্ডল এবং ফাহিমা খাতুনের ব্যাটে ২৯ ওভারে লক্ষ্য পৌঁছে যায় বাংলাদেশ।

এর আগে, টসে জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা খারাপ করেনি পাকিস্তান। মাত্র ১ উইকেট হারিয়েই ৫০ রান করে ফেলেছিল সফরকারীরা।

১৫তম ওভারে প্রথমবারের মতো আঘাত হানেন খাদিজা। এরপর একে একে পাকিস্তান শিবিরে ত্রাস হয়ে দেখা দেন এই ডানহাতি স্পিনার। পাকিস্তান শেষের ৫ উইকেট হারায় মাত্র ১০ রানে। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ২৯ রান করেন অধিনায়ক জাভেরিয়া খান। এছাড়া আয়েশা জাফর ও মুনীবা আলির ১৮ ব্যতীত আর কেউই দুই অঙ্ক ছুঁতে পারেননি।

ওয়ানডে ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মতো পাঁচ উইকেট নেয়া খাদিজা ৯.৫ ওভারে মাত্র ২০ রানে তুলে নেন ৬ উইকেট। এছাড়া রুমানা আহমেদ ২, জাহানারা আলম ১ ও লতা মন্ডল নেন ১টি করে উইকেট।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD