সেঞ্চুরি দিয়ে বিদায় উদযাপন গেইলের

সেঞ্চুরি দিয়ে বিদায় উদযাপন গেইলের

আগেই জানিয়েছিলেন এটাই তার শেষ ম্যাচ। তবে সেই ম্যাচে যে এভাবে জ্বলে উঠবেন, তা ভাবা যায়নি। জামাইকার হয়ে ক্যারিয়ারের শেষ লিস্ট-এ ম্যাচে অধিনায়ক হিসাবে মাঠে নামেন ক্রিস গেইল। ব্যাট হাতে দুরন্ত সেঞ্চুরিতে দলকে জেতালেন এই ‌ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান গ্রেট। বল হাতে নিলেন একটি উইকেট‌ও। মূলত গেইলের দাপটেই বার্বাডোজকে রিজিওনাল সুপার-৫০’এর গ্রুপ ম্যাচে ৩৩ রানে পরাজিত করে জামাইকা।

ঘরোয়া ওয়ান ডে ক্রিকেটকে বিদায় জানালেও চারদিনের ম্যাচে মাঠে নামার ইচ্ছে আছে গেইলের। জামাইকার হয়ে সুযোগমতো কোনও একটি ফার্স্ট ক্লাস ম্যাচে মাঠে নামতে চান গেইল। ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে টেস্ট ক্রিকেটে ফেরারও ইচ্ছা প্রকাশ করেন তিনি। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের এই ফেরি‌ওয়ালা ওয়েস্ট ইন্ডিজের টি-টোয়েন্টি দলে ফিরেছেন বেশ কিছুদিন হল। আপাতত ওয়েস্ট ইন্ডিজের জার্সিতে আগামী বছর ওয়ান ডে বিশ্বকাপে অংশ নেওয়াই তাঁর টার্গেট।

ঘরোয়া টি-টোয়েন্টির পাশাপাশি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট‌ও চালিয়ে যাবেন। তবে পরিবারকে সময় দিতে আর ঘরোয়া লিস্ট-এ ক্রিকেট খেলবেন না গেইল। ক্যারিয়ারের শেষ ঘরোয়া লিস্ট-এ ম্যাচে ম্যাচ উইনিং সেঞ্চুরি করে বিদায়কে স্মরণীয় করে রাখেন তিনি। ১০টি চার ও ৮টি ছক্কার সাহায্যে ১১৪ বলে ১২২ রান করেন গেইল। প্রথমে ব্যাট করে জামাইকা ২২৬ রান তোলে। জবাবে বার্বাডোজ অলআউট হয় ১৯৩ রানে।

খেলা শেষে গেইল বলেন, ‘জামাইকার হয়ে শেষ ৫০ ওভারের ম্যাচে সেঞ্চুরি করে দারুণ লাগছে। অধিনায়ক হিসাবে শেষ ম্যাচে দলকে জেতানো অত্যন্ত আনন্দের। আমার মধ্যে এখনও যথেষ্ট রসদ আছে। তবে ক্রিকেটের বাইরেও একটা জীবন আছে। আমার একটা পরিবার রয়েছে। যাদের সময় দেওয়া আমার কর্তব্য। ২৫ বছর ধরে ক্রিকেট খেলতে পারা সাধারণ বিষয় নয়, সময় পেলে সাবাইনা পার্কে একটা চারদিনের ম্যাচ অবশ্যই খেলবো। আগামী বছর ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে বিশ্বকাপও খেলতে চাই।’

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD