ফুটবলের সেরা তিন পুরষ্কারের কথা

ফুটবলের সেরা তিন পুরষ্কারের কথা

বিশ্ব ফুটবলে বেশকিছু পুরষ্কার প্রচলিত আছে। তবে সম্মান কিংবা আকর্ষণের ক্ষেত্রে মাত্র তিনটি পুরষ্কার সবার দৃষ্টি কেড়ে নিয়েছে। বিশ্ব জুড়ে আলোচনা কিংবা মাতামাতি এই তিনটি পুরষ্কার ঘিরেই। বছরব্যাপি একক ব্যক্তির দলীয় এবং দেশীয় পারফরমেন্সের উপর ভিত্তি করে এই পুরষ্কারগুলো দেয়া হয়। মোটামুটি পুরষ্কারগুলো প্রায় একই রকম হলে‌ও জয়ের জন্য রীতিমতো ভোটে অন্যকে পরাস্ত করে জিততে এই পুরস্কার। এই তিন পুরষ্কারের প্রথমটির নাম ‘ফিফা দ্য বেস্ট’, ‘ব্যালন ডি’অর’ এবং ‘উয়েফা বেস্ট প্লেয়ার’।

ফিফা ১৩ সদস্যের জুরি বোর্ড মৌসুম শেষে ১০ জনের একটি তালিকা করেন। বিশ্বের কিংবদন্তি ফুটবলাররা আছেন এই জুরি বোর্ডে। তারা হলেন- সামি আল জাবের (সৌদি আরব), ইমানুয়েল এমুনিকি (নাইজেরিয়া), চা বাম-কুম (দক্ষিণ কোরিয়া), ফ্যাবি‌ও কাপেলো (ইটালি), দিদিয়ের ড্রগবা (আইভোরি কোস্ট), কাকা (ব্রাজিল), ফ্রাঙ্ক ল্যাম্পার্ড (ইংল্যান্ড), লোথার ম্যাথুস (জার্মানি), আলেসান্দ্রো নেস্টা (ইটালি), কার্লোস আলবার্তো পেরেইরা (ব্রাজিল), রোনাল্ডো (ব্রাজিল), এন্ডি রক্সবার্গ (স্কটল্যান্ড) এবং উইন্টন রুফার (নিউজিল্যান্ড)।

নাম প্রকাশের পর তিনজনকে ভোট দিতে পারবেন সাধারণ সমর্থক, সাংবাদিক এবং জাতীয় দলের কোচ ‌ও অধিনায়করা। প্রথমে যাকে ভোট দেবেন তার নামে যোগ হবে পাঁচ পয়েন্ট, পছন্দের দ্বিতীয় জন পাবেন তিন এবং শেষের জন পাবেন এক পয়েন্ট করে। সর্বোচ্চ পয়েন্ট অর্জনকারী তিনজনকে পুরস্কৃত করে থাকে ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্তা সংস্থা-ফিফা।

বিশ্ব ফুটবলের সেরা তিন পুরষ্কারের সবচে’ প্রাচীনটির নাম ব্যালন ডি’অর। ১৯৬৫ সালে ফ্রান্সের ম্যাগাজিন ‘ফ্রেঞ্চ ফুটবল’ এই পুরস্কারটি চালু করে। এটাই একমাত্র পুরষ্কার যা ধারাবাহিকতা ধরে রেখেছে। ২০০৯ সাল থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত ফিফার সঙ্গে যৌথভাবে বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়কে এই পুরস্কারটি দেয়া হয়েছে। তখন তার নাম ছিলো ‘ফিফা ব্যালন ডি’অর’। এই পুরস্কারটির বিশেষত্ব হলো শুধু এক মৌসুম নয়; পুরো বছরের পারফরমেন্স বিবেচনা করে সেরা খেলোয়াড়কে পুরস্কৃত করা হয়। আন্তর্জাতিক সাংবাদিক ফেডারেশনের সাংবাদিকদের ভোটে সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়ে থাকেন। পাঁচজন খেলোয়াড়কে ভোট করা যায়। প্রথম থেকে পঞ্চমের পয়েন্ট হলো- ছয়, চার, তিন, দুই এবং এক।

উয়েফা সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কারটি দিয়ে থাকে উয়েফা। ইউরোপে খেলা ফুটবলারদের এই পুরস্কারটি দেয়া হয়। উয়েফার সঙ্গে ইউরোপিয়ান স্পোর্টস মিডিয়া এবং ইউরোপিয়ান অ্যাসোসিয়েশন অফ ফুটবল পাবলিকেশন্স এই পুরস্কার দিয়ে থাকে। আগের মৌসুমে ক্লাব দলে খেলা সেরা ফুটবলারকে এই পুরষ্কারটি দেয়া হয়। উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলা নির্ধারিত ৮০ জন কোচ, ৫৫ জন সাংবাদিক এবং ইউরোপের ফুটবল ফেডারেশনগুলোর ভোটে উয়েফা বেস্ট প্লেয়ার অ্যা‌ওয়ার্ড দেয়া হয়ে থাকে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD