দিদিয়ের দেশামের রেকর্ড

দিদিয়ের দেশামের রেকর্ড

১৯৯৮ সালে বিশ্বকাপ জয়ে ফ্রান্সের অধিনায়ক হিসেবে ছিলেন দিদিয়ের দেশাম। ২০ বছর পর ফরাসিদের সেই শিরোপা পুনরুদ্ধার করালেন দেশাম। তবে এবার কোচ হিসেবে। তাতে অনন্য এক রেকর্ডের পাতায় নাম খেলালেন ফ্রান্সের কোচ। তৃতীয় অধিনায়ক ও কোচ হিসেবে বিশ^কাপ জয়ের কৃতিত্ব দেখালেন দিদিয়ের দেশাম।

কোচ হিসেবে বিশ্বকাপ জিতলেন, জিতেছিলেন অধিনায়ক হিসেবেও। অসাধারণ এই অর্জনে ইতিহাসের পাতায় সোনার অক্ষরে নাম লেখানে দিদিয়ের দেশাম। ফরাসিদের কাছে তিনি এখন জাতীয় বীর, চিরস্মরণীয় এক নাম।

সেমিফাইনালে বেলজিয়ামকে হারিয়েই বিশ্বকাপের ইতিহাসে জায়গা করে নিয়েছিলেন দেশাম। চতুর্থ খেলোয়াড় ও কোচ হিসেবে দুইবার বিশ্বকাপ ফাইনালে ওঠার রেকর্ড গড়েছিলেন তিনি। সামনে ছিলো মারিও জাগালো এবং ফ্রাঞ্জ বেকেনবাওয়ের অনন্য রেকর্ড। অধিনায়ক ও কোচ হিসেবে বিশ্বজয়ের স্বপ্ন। ক্রোয়েশিয়াকে হারিয়ে সেই স্বপ্নটা হাতের মুঠোয় পেয়ে যান দিদিয়ের দেশাম। জাগালো ও বেকেনবাওয়ারের পরা অধিনায়ক ও কোচ হিসেবে বিশ্বকাপ জেতার অভিজাত তালিকায় এবার জায়গা করে নিলেন দিদিয়ের দেশাম।

তারকা বহুল একটা দলকে এক সুতোয় গাথা সহজ নয়। খেলোয়াড়দের নিয়মের মধ্যে রাখা, পরিকল্পনা অনুযায়ী খেলানোর মত কঠিন কাজ গুছিয়েছেন দক্ষ হাতে। কোচ হিসেবে সবসময়ই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন নির্ভিক সৈনিকের মত।

তার নিয়মের মধ্যে ছিলো পুরো দলের একসাথে খাওয়া-দাওয়া করা। মোবাইল ব্যবহারও ছিলো অনেক সীমাদ্ধতা। অবশ্য এসবে মোটেই আপত্তি ছিলোনা খেলোয়াড়দের। কারণ খেলোয়াড়দের কাছে সেই আস্থা অনেক আগেই অর্জন করেছেন দেশাম। হয়ত বাস্তবতাও ছাড়িয়ে গেছে তার কল্পনাকে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD