কোয়ার্টার ফাইনালে রাশিয়া

কোয়ার্টার ফাইনালে রাশিয়া

অধিনায়ক আকিনফেভের দৃঢ়তায় বিশ্বকাপের নকআউট পর্বের ঘটনাবহুল ম্যাচে ২০১০ সালের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন স্পেনকে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠলো স্বাগতিক রাশিয়া। নির্ধারিত ও অতিরিক্ত সময়ের খেলা ১-১ গোলে ড্র থাকার পর, টাইব্রেকারে ৪-৩ গোলে স্পেনকে হারায় স্বাগতিকরা।

https://www.youtube.com/watch?v=tr26BhyMEcM

রাশিয়া বিশ্বকাপে প্রথমবার অতিরিক্ত সময়ে খেলা, প্রথমবার পেনাল্টি শ্যূটআউট। অধিনায়ক ইগর আকিনফেভের কৃতিত্বে ইতিহাস গড়ে ১৯৮২ সালের পর আবারও কোয়ার্টার ফাইনালে স্বাগতিকরা। তাতে গোল মিস আর টাই মিসের মহড়ায় টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নেয় আরেক ফেভারিট স্পেন।

অথচ লুঝনিকি স্টেডিয়ামে, খেলার শুরুতে স্পেনের আক্রমণ ঠেকাতেই হিমশিম খেতে হয় রাশিয়াকে। তেমনি এক আক্রমণ ঠেকাতে গিয়ে ১২ মিনিটে নিজেদের জালেই বল জড়িয়ে দেন, রাশান ডিফেন্ডার সের্গেই ইগনাসেভিচ। বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি বয়সী খেলোয়াড় হিসেবে আত্মঘাতী গোল করার রেকর্ডও হয়ে যায় ৩৯ বছর বয়সী ইগনাসেভিচের।

এরপর নিজেদের মধ্যেই বল আদান-প্রদানে সময় কাটায় ‘লা রোজা’রা। সেই সুযোগে ৪১ মিনিটে স্পট কিকে ম্যাচে ১-১-এ সমতা ফেরান আরতেম ডিজুবা। ১৯৮৬ সালের পর বিশ্বকাপের নক আউট পর্বে প্রথম রুশ খেলোয়াড় হিসেবে গোল করলেন তিনি।

দ্বিতীয়ার্ধে গোল সংখ্যা বাড়ানোর চেষ্টা করেও সফল হয়নি স্প্যানিশরা। ইনিয়েস্তা কিংবা আসপাস মাঠে নেমে ম্যাজিক দেখালেও সাফল্য আসেনি।
রীতিমতো মিলিটারিদের মতো নিজেদের রণসীমানা পাহাড়া দেন রাশান ফুটবলার। অতিরিক্ত সময়েও কাবু করা যায়নি রাশান রণপ্রাচীরকে। স্পেনের প্রচেষ্টাগুলো একাই সামাল দেন, ম্যাচ সেরা আকিনফেভ।

আর পেনাল্টি শ্যূটআউট হয়ে রইলো ফার্নান্ডো হিয়েরোর দলের কপাল পোড়ার গল্প।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD