এবার‌ বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি পরীক্ষা

এবার‌ বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি পরীক্ষা

নয় বছর পর বিদেশের মাটিতে ওয়ানডে সিরিজ জয়ের অনুপ্রেরণা নিয়েই এবার ৩ ম্যাচের টি-টোয়েন্ট সিরিজের চ্যালেঞ্জে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে নামছে বাংলাদেশ দল। আগামীকাল বুধবার সেন্ট কিটসের ওয়ার্নার পার্কে প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ৬টায়। ২০০৯ সালে এই ভেন্যুতেই টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক হিসেবে যাত্রা শুরু করে ৫ উইকেটে স্বাগতিকদের বিপক্ষে হার দেখেছিলেন সাকিব। ৯ বছর পর সেখানেই প্রতিশোধ নেয়ার চ্যালেঞ্জ সাকিবের। বাকি দুই টি-টোয়েন্টি হবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায়। সেখানে ৫ ও ৬ আগস্ট সকাল ৬টায় বাকি দুই টি-টোয়েন্টি হবে সেন্ট্রাল ব্রোওয়ার্ড রিজিওনাল পার্ক স্টেডিয়াম টার্ফ গ্রাউন্ডে।

ব্যক্তিগত নৈপুণ্যে নিশ্চিতভাবেই দেশসেরা ক্রিকেটার সাকিব। ব্যাটে-বলে তার বিকল্প খুঁজে পায়নি বাংলাদেশ। কিন্তু অধিনায়ক হিসেবে এখন পর্যন্ত দলের জন্য আহামরি কোন সাফল্য বয়ে আনতে পারেননি তিনি। বিশেষ করে দ্বিতীয় দফায় জাতীয় দলের নেতৃত্ব পাওয়ার পর থেকে দলগত সাফল্য এনে দিতে হিমশিম খাচ্ছেন সাকিব। গত জুনে আফগানিস্তানের কাছে ৩-০ ব্যবধানে হোয়াইটওয়াশের লজ্জা পায় সাকিবের দল। দ্বিতীয় দফায় তিনি টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক হন গত বছর অক্টোবরে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে এবং ২-০ ব্যবধানে হোয়াইটওয়াশ হওয়ার মধ্য দিয়ে তার যাত্রা শুরু হয়। তারপর থেকে সবমিলিয়ে ৭ ম্যাচে দলকে নেতৃত্ব দিয়ে একটিই মাত্র জয় এনে দিতে পেরেছেন সাকিব। গত মার্চে শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠিত ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে লঙ্কানদের বিপক্ষে সেই জয় পেয়েছিল বাংলাদেশ। ওয়ানডে সিরিজ জয় অনুপ্রেরণা হবে সাকিবদের। কিন্তু যে মাশরাফির নেতৃত্বে এমন অবিস্মরণীয় সাফল্য, তিনি তো টি-টোয়েন্টি সিরিজে নেই। তবে সাকিবের জন্য আশার কথা পেসস্তম্ভ মুস্তাফিজুর রহমানকে তিনি এই সিরিজে পাবেন তার সহযোদ্ধা হিসেবে। মুস্তাফিজ ইনজুরি কাটিয়ে ফিরে ওয়ানডে সিরিজে বেশ ভাল বোলিং করেছেন। এছাড়া সবশেষ সিরিজ খেলা দলটিতে আর কোন পরিবর্তন আসেনি। সাকিবের জন্য ট্রাম্পকার্ড হতে পারেন মুস্তাফিজই।

এখন পর্যন্ত ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৬ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ দল। এর মধ্যে একটি পরিত্যক্ত হলেও দুটিতে জয় তুলে নিতে পেরেছিল বাংলাদেশ আর তিনটিতে হারতে হয়। ২০০৯ সালে এই সেন্ট কিটসে একবারই ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি খেলেছে বাংলাদেশ। সেই ম্যাচে‌ও উইন্ডিজের দ্বিতীয় সারির দলের কাছে ৫ উইকেটে হেরেছিল বাংলাদেশ দল। ৯ বছর পর একই ভেন্যুতে প্রতিশোধ নেয়ার ম্যাচ সাকিবের। সেজন্য ওয়ানডে সিরিজের জয় আত্মবিশ্বাসী রাখবে টাইগারদের। তবে টি-টোয়েন্টি ব্যর্থতা আবার চোখ রাঙ্গাচ্ছে সফরকারীদের। আর স্বাগতিক ক্যারিবীয়রা বর্তমান সময়ে যেকোন ফরমেটের চেয়ে টি-টোয়েন্টি অনেকটাই ভাল দল। নিজেদের মাঠে তারা আরও অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠবে এটাই স্বাভাবিক। ক্যারিবীয়রা বেশ ফর্মেও আছে টি-টোয়েন্টি ফরমেটে।

সে যাই হোক প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচেই জয়ের লক্ষ্য নিয়ে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। ওয়েস্ট ইন্ডিজও ওয়ানডে সিরিজে পরাজয়ের গ্লানি ভুলে ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যয়েই মাঠে নামবে।

" class="prev-article">Previous article

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD