আজ সন্ধ্যায় সিরিজ নির্ধারণ

আজ সন্ধ্যায় সিরিজ নির্ধারণ

আগের ম্যাচেই সিরিজ জয়ের সুযোগ ছিল বাংলাদেশের। গায়ানায় দ্বিতীয় ওয়ানডে জিতলে এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ জিতত টাইগাররা। কিন্তু শেষ দিকে স্নায়ুর চাপ নিতে না পেরে হার সঙ্গী করে সফরকারীরা। তবে আজ শেষ সুযোগটা কাজে লাগাতে মরিয়া দল। এমনটাই জানিয়েছেন অফ স্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজ।

দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ২৭১ রান তাড়ায় একটা সময় বাংলাদেশের দরকার ছিল ৩০ বলে ৪০ রান। হাতে ৭ উইকেট। পরে সমীকরণটা দাঁড়ায় ১৩ বলে ১৪ রানে। হাতে তখন ৬ উইকেট। এই ম্যাচও শেষ পর্যন্ত ৩ রানে হেরে যায় বাংলাদেশ।

১-১ সমতা নিয়ে আজ সেন্ট কিটসে তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সেন্ট কিটসের ওয়ার্নার পার্কে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় শুরু হবে ম্যাচটি।

মিরাজ মানছেন, আগের ম্যাচে সিরিজ জয়ের সুযোগটা তাদের কাজে লাগানো উচিত ছিল। কিন্তু সুযোগ যে একেবারে শেষ হয়ে যায়নি, সেটাও মনে করিয়ে দিলেন তিনি।

ম্যাচের আগের দিন অনুশীলনের ফাঁকে মিরাজ বলেছেন, ‘আসলে অবশ্যই আমাদের সুযোগ ছিল। তারপরও আমি বলব, আমরা সিরিজ থেকে ছিটকে যাইনি। এখনো আমাদের সুযোগ আছে। আমাদের আরেকটা ম্যাচ সুযোগ আছে, জিততে পারলে আমরা সিরিজ জিতব।’

শেষ ওভারে যেনো ব্যাট করতেই ভুলে যায় বাংলাদেশ। অতীতে অনেকবারই এমন হার সঙ্গী হয়েছে। মিরাজ তাই ৩ রানের হারের কোনো অজুহাত দিচ্ছেন না। এটাকে নিজেদের ব্যর্থতা হিসেবেই দেখছেন। পরেরবার একইরকম ভুল আর করতে চান না বলেও জানান। ‘আমি বলব যে, আসলে এটা আমরা নিজেরাই ভুল করেছি, এটা আমাদেরই ব্যর্থতা ছিল। তবে আমরা সবাই নিজেরা নিজেদের মধ্যে কথা বলেছি, আলোচনা করেছি। পরেরবার এরকম পরিস্থিতি আসলে সুন্দরভাবে উত্তরণের চেষ্টা করব’।

সেন্ট কিটসের উইকেট গায়ানার মতো ধীরগতির হওয়ার সম্ভাবনা কম। মাঠও অনেক ছোট। যদিও গত দুই বছরে এখানে কোনো আন্তর্জাতিক ম্যাচ হয়নি, সবশেষ ওয়ানডে ম্যাচটাও ২০১২ সালে।

সেন্ট কিটসের উইকেট নিয়ে মিরাজ বলেছেন, ‘উইকেট দেখেছি। আসলে আমার কাছে মনে হয়েছে, আল্লাহর রহমতে সবকিছু ঠিক থাকলে আমরা ভালো কিছু করব। আমি এখানে প্রথম এসেছি। যারা অভিজ্ঞ খেলোয়াড় আছে, তারা অনেক খেলেছে এখানে। আশা করি, ভালোই হবে।’

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD