সিরিজে হার বাংলাদেশের

সিরিজে হার বাংলাদেশের

দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশকে ৬ উইকেটে হারিয়ে এক ম্যাচ আগেই সিরিজ জিতল আফগানিস্তান। জিম্বাবুয়ে ছাড়া অন্য কোনো টেস্ট খেলুড়ে দেশের বিপক্ষে আফগানদের এটিই প্রথম সিরিজ জয়। ভারতের দেরাদুনে মঙ্গলবার বাংলাদেশের দেয়া ১৩৫ রানের টার্গেট ৭ বল বাকি রেখেই স্পর্শ করে আফগানরা।

আটসাট ব্যাটিংয়ের পর সংগ্রামী বোলিং। স্বল্প পুঁজি নিয়েও লড়াই করছিল বাংলাদেশ। বোলাররা শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত বাংলাদেশকে ম্যাচে রেখেছিল। ফিল্ডাররাও দারুণ সমর্থন করেছিল। কিন্তু মোহাম্মদ নবীর ঝোড়ো ব্যাটিংয়ে স্বপ্নভঙ্গ বাংলাদেশের। ৬ উইকেটের জয়ে সিরিজ জিতল আফগানিস্তান। আর এক ম্যাচ হাতে রেখেই হোয়াইট ‌ওয়াশের শঙ্কায় এখন সাকিব আল হাসানের দল। এ সিরিজ জয়ে নতুন ইতিহাস গড়ল আফগানরা। জিম্বাবুয়ে বাদে কোনো টেস্ট খেলুড়ে দলের বিপক্ষে সিরিজ জয়ের রেকর্ড ছিল না ওদের। দেরাদুনের মাটিতে সেই ইতিহাস গড়লেন নবী-রশিদ খানরা।

টস জিতে ব্যাটিং করতে নেমে রাজীব গান্ধী স্টেডিয়ামে ৮ উইকেটে বাংলাদেশের পুঁজি মাত্র ১৩৪ রান। জবাবে ৬ উইকেট হাতে রেখে ৭ বল আগেই লক্ষ্য ছুঁয়ে ফেলে আফগানিস্তান। বাংলাদেশের স্কোর আরও বড় হতে পারত। কিন্তু ওই পুরোনো রোগে আক্রান্ত ব্যাটসম্যানরা। ১২০ বলের খেলায় ৫৩ বলই ছিল ডট।

মোহাম্মদ নবী শেষটা রাঙালেও জয়ের ভিত গড়ে দিয়েছিলেন বাংলাদেশের জন্য ‘জুজু’ হয়ে থাকা রশিদ খান। প্রথম ম্যাচে নিয়েছিলেন ৩ উইকেট। আর দ্বিতীয় ম্যাচে নেন তিনি ৪টি। এক ওভারেই রশিদ নেন ৩ উইকেট। খেলার ১৬ তম ‌ওভারে, সাকিবের পর সাজঘরে ফেরেন বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৩ রান করা তামিম ইকবাল। পরের বলে উল্টো বল বুঝতে ব্যর্থ হয়ে লেগ বিফোর হন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। রশিদ খান, বাংলাদেশের কফিনে শেষ পেরেকটি ঠুকেন সৌম্য সরকারের উইকেট তুলে নিয়ে। ১২ রানে ৪ উইকেট রশিদের, তাই ম্যাচ সেরা বাছাই করতে কোনো কষ্টই হয়নি ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD