অভিষেক টেষ্টে আইরিশদের লড়াকু হার

অভিষেক টেষ্টে আইরিশদের লড়াকু হার

অভিষেক টেস্টে ম্যাচ সেরা কেভিন ও’ব্রায়েনের সেঞ্চুরির পরও পাকিস্তানের কাছে ৫ উইকেটে হারলো স্বাগতিক আয়ারল্যান্ড।

ডাবলিন টেস্টে ম্যাচের শেষ ইনিংসে ১৬০ রানের টার্গেটে নেমে পাকিস্তান ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলেছিল ১৪ রানেই। কিন্তু অভিষিক্ত ইমাম-উল-হক ও বাবর আজম জুটি দলকে এগিয়ে নেয় জয়ের পথে।

৩ উইকেট হাতে নিয়ে ১৩৯ রানে এগিয়ে থেকে শেষ দিন শুরু করেছিল আয়ারল্যান্ড। তবে আর আর লড়াই চালিয়ে যেতে পারেনি তারা।

দেশের টেস্ট অভিষেকে সেঞ্চুরির কীর্তি গড়া কেভিন ও’ব্রায়েন ফেরেন আগের দিনের ১১৮ রানেই। ৩৩৯ রানে গুটিয়ে যায় আইরিশরা। ৬৬ রানে ৫ উইকেট নিয়ে মোহাম্মদ আব্বাস স্বাগতিক শিবিরে ধ্বস নামান। ষষ্ঠ টেস্টে এই পেসার দ্বিতীয়বার ইনিংসে ৫ উইকেট নিলেন।

রান তাড়ায় নামা পাকিস্তানকে নতুন বলে নাড়িয়ে দেন দুই আইরিশ পেসার টিম মারটাঘ ও বয়েড র‌্যানকিন। প্রথম ইনিংসে চার উইকেট নেওয়া মারটাঘ ফেরান আজহার আলি ও আসাদ শফিককে। মাঝে র‌্যানকিনের শিকার হারিস সোহেল। ৫ ওভারের মধ্যে ৩ উইকেট হারিয়ে বিপর্যয়ে পড়ে পাকিস্তান।

পাকিস্তানের সামনে তখন কঠিন চ্যালেঞ্জ। আর আইরিশদের সামনে ইতিহাসের হাতছানি। শেষ পর্যন্ত তরুণ দুই ব্যাটসম্যানের ব্যাটে সেই চ্যালেঞ্জ জিতেছে পাকিস্তান।

অভিষিক্ত ওপেনার ইমাম-উল-হক ও বাবর আজম চতুর্থ উইকেটে ১২৬ রানের জুটিতে ম্যাচের ভাগ্য গড়ে দেন। বাবর ৫৯ রানে রান আউট হলে ভাঙে এই জুটি। শেষ পর্যন্ত আইরিশরা পরাজয় মানে ইমাম উল হকের অপরাজিত ৭৪ রানের কাছে। ৫ উইকেটে ১৬০ রান করে জয় পায় পাকিস্তান।

প্রধান নির্বাচক ইনজামাম-উল-হকের ভাতিজা বলে ইমামের টেস্ট দলে জায়গা পাওয়া নিয়ে ছিল অনেক সমালোচনা। অভিষেকে দলকে জেতানো অপরাজিত ইনিংসে বাঁহাতি ব্যাটসম্যান দিলেন সমলোচনার জবাব আর যোগ্যতার প্রমাণ।

এর আগে, আয়ারল্যান্ডের ১৩০ রানের জবাবে প্রথম ইনিংসে ৯ উইকেটে ৩১০ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা করেছিল পাকিস্তান।

" class="prev-article">Previous article

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD