প্রাক্তন কোচদের নিয়ে ভাবনা নেই তামিমের

প্রাক্তন কোচদের নিয়ে ভাবনা নেই তামিমের

আসন্ন ত্রিদেশীয় সিরিজে স্বাগতিক বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ জিম্বাবুয়ে ও শ্রীলঙ্কা। দুই দলেই রয়েছে বাংলাদেশের দুই প্রাক্তন কোচ। বাংলাদেশ দলকে খুব কাছ থেকে দেখেছেন তারা। শক্তি-সামর্থ্য কিংবা দুর্বল জায়গাগুলো সম্পর্কে সবই জানা তদের। তাতে কোনো সমস্যা দেখছেন না টাইগার ‌ওপেনার তামিম ইকবাল। দেশসেরা ওপেনার মনে করেন, নির্দিষ্ট পরিকল্পনায় যেকোনো দলকেই যেকোনো পরিস্থিতিতে হারানো সম্ভব। প্রাক্তন কোচদের নিয়ে কোনো ভাবনাও নেই তাদের।

চন্ডিকা হাথুরুসিংহে বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচের দায়িত্ব ছেড়েছেন বেশিদিন হয়নি। শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলের দায়িত্ব নিতে বাংলাদেশের কোচিং পদ ছাড়েন। ২০১৬ সালের মে মাসে বাংলাদেশ দলের দায়িত্ব ছাড়েন বোলিং কোচ হিথ স্ট্রিক। ভারতের জাতীয় ক্রিকেট একাডেমিতে ফাস্ট বোলিং কোচের চাকরির জন্য বাংলাদেশ দলের দায়িত্ব ছাড়লেও সেখানে চাকরি পাননি। ওই বছরের অক্টোবরে তাকে নিয়োগ দেয় জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট বোর্ড।

হাথুরুসিংহে ও স্ট্রিকের শিষ্যরাই আসছে ত্রিদেশীয় সিরিজ মাতাতে। দুই প্রাক্তন কোচকে নিয়ে তামিম আজ মিরপুরে অনুশীলনে জানান, ‘যদি ভাবি, তাহলে এটা হয়তো একটা বড় ব্যাপার। তারা তিন-চার বছর বাংলাদেশে ছিলেন। তবে আমরা যদি না ভাবি, আমার মনে হয় না এটা কোনো বড় ব্যাপার।’

তিনি বলেন, ‘আপনি পরিকল্পনা দিতে পারেন, কিন্তু মাঠে তা প্রয়োগ না করতে পারলে তাতে কোনো লাভ নেই। তা কাজে আসবে না। আমরা যদি কোচের পরিকল্পনা প্রয়োগ করতে পারি, তাহলে অবশ্যই আমরা ভালো করবো।’

হাথুরুসিংহেকে ২০১৯ বিশ্বকাপ পর্যন্ত নিয়োগ দিয়েছিল বিসিবি। কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকা সফর শেষ করেই পদত্যাগ করেন লঙ্কান এই কোচ। দুই বছরে ৪৫০ দিন কাজ করার চুক্তিতে ২০১৪ সালে বাংলাদেশের বোলিং কোচের দায়িত্ব নিয়েছিলেন স্ট্রিক। ২০১৬ সালের মে মাসেই চুক্তি শেষ হয় স্ট্রিকের।

বাংলাদেশ এর আগে কখনো ত্রিদেশীয় সিরিজ জেতেনি। এবার ঘরের মাঠে নিজেদের ফেবারিট মনে করছেন তামিম। তবে প্রতিপক্ষকে যথেষ্ট সমীহও করছেন জাতীয় দলের বাঁহাতি এই ওপেনার। তিনি জানান, ‘আমার কাছে মনে হয়, খুবই আকর্ষণীয় একটা সিরিজ হবে। শ্রীলঙ্কা ভালো দল। এ ছাড়া জিম্বাবুয়েও তাদের দিনে ভয়ঙ্কর হতে পারে। আমাদের ফেবারিট হওয়া উচিত। আমরা ত্রিদেশীয় সিরিজ বেশি খেলিনি। শিরোপা জয়ে এটা একটা দারুণ সুযোগ হয়ে আসছে। যে দুই প্রতিপক্ষের সঙ্গে খেলা হবে, তাদেরকে আমরা ভালোভাবে চিনি। ওদের শক্তি ও দুর্বলতা সম্পর্কে জানি। ওরাও আমাদের জানে অবশ্য। আশা করব এই কদিনে আমরা দারুণ একটা প্রস্তুতি নিতে পারবো।’

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD