প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞ সাকিব, স্ত্রী’র অনুপ্রেরনায় উদ্ধুদ্ধ

প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞ সাকিব, স্ত্রী’র অনুপ্রেরনায় উদ্ধুদ্ধ

শামীম চৌধুরী : নিজেদের চাই ৮ উইকেট, আর প্রতিপক্ষের দরকার ১৫৬ রান। সময়ের সেরা ২ অজি ব্যাটসম্যান তখন অবিচ্ছিন্ন ওয়ার্নার ৭৫ রানে,স্মিথ সেখানে ২৫। যে দু’জনের নামের পাশে ৩৮টি সেঞ্চুরি ( স্মিথ ২০,ওয়ার্নার ১৮)। ১০ মাস আগে বেন স্ট্রোকসকে শিকার করে,তাকে স্যালুট দেয়ার সেই ছবিটা যে চোখে ঝাপসা হবার উপক্রম ! তৃতীয় দিনের শেষ বিকেলে ম্যাচের নিয়ন্ত্রন যখন হাতছাড়া হওয়ার শঙ্কা প্রবল, তখন স্ত্রী শিশিরের একটা কথায় দারুন ভাবে দলকে ফেরানোর প্রেরনা পেয়েছেন সাকিব। ওয়ার্নার ( ১১২),স্মিথকে ( ৩৭) শিকারে বাঁ হাতে শান দিতে পেরেছেন স্ত্রীর একটি কথায়‘ আমাকে সবচেয়ে বেশি উদ্বুদ্ধ করেছে আমার বউ। কিছুক্ষন আগে মেসেজ করল, আমি এখন ঘুমাতে পারি। আগের দিন বলেছিলাম মনে হয়েছে চান্স খুব একটা নেই। ও বলেছে,  তুমি পারবা। আমি জানি, তুমি পাঁচ উইকেট পেলেই হয়ে যাবে। আমি রাতে ঘুমানোর সময় চিন্তা করলাম, আসলেই তো।

আমি পাঁচ উইকেট পেলেই তো দলের সুযোগ থাকবে। ওপাশ থেকে আরেক জন দুই উইকেট নিলেই তো সাত-আট উইকেট পড়ে যাবে।’ তৃতীয় দিনের শেষ বেলায় পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে পড়েও চতুর্থ দিনে দর্শক উপস্থিতি দেখে দায়িত্ববোধটা বেড়ে গেছে সাকিবের‘ আজ যারা খেলা দেখতে এসেছে, তাদের সবার বিশ্বাস ছিল বাংলাদেশ জিতবে। ওদের সেই বিশ্বাস থাকলে আমাদের কেন থাকবে না?’ বাংলাদেশের ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় প্রেরন,সমর্থক এখন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বাাংলাদেশের টেস্ট জয়ের শুভক্ষনে প্রেসিডেন্ট বক্সে ছিলেন প্রধানমন্ত্রী উপস্থিত। বাংলাদেশ দলের জয় করেছেন উদযাপন, টিভি পর্দায় ভেসে উঠেছে প্রধানমন্ত্রীর সেই আবেগ ! বাংলাদেশ দলের জয় শেষে ক্রিকেটাররা যখন ড্রেসিং রুমে টিম সং ‘আমরা করব জয়’, সমস্বরে গাইছেন, তখন বাংলাদেশ দলের উৎসবকে অরো বেশি উৎসবমুখর করেছেন প্রধানমন্ত্রী । দিয়েছেন অভিনন্দন, বলেছেন কথা সাকিব,তামীম,মুশফিকুর,হাতুরুসিংহের সঙ্গে। এমন ক্রিকেটপ্রেমী প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন সাকিব‘ প্রধানমন্ত্রী সব সময় আমাদেরকে সাপোর্ট দেন, ক্রিকেট অনেক পছন্দ করেন। সেটাই দেখাতে এসেছিলেন।

উনি বললেন, কালকেও ( ম্যাচের তৃতীয় দিন) আসতে চেয়েছিলেন, ব্যস্ততার কারণে আসতে পারেননি। পাপন ভাই ( বিসিবি সভাপতি) বলেছেন দুই এক ওভার পেতে পারেন, তাই উনি তখন আর আসেননি। দলের জণ্য এমন সাপোর্ট দরকার। আমাদের এটা বাড়তি উৎসাহ দেয়। আমরা সবাই জানি, পুরো দেশ আমাদের সাথে আছে।’ এমন জয়ে প্রধানমন্ত্রীর উপস্থিতি দিয়েছে ভিন্ন মাত্রা। যে উপস্থিতিতে বিশেষ ঘোষনা দিয়েছে বোর্ড, আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে সেমিফাইনালে উঠে ইতিহাস রচনায় ৪ কোটি,আর অস্ট্রেলিয়াকে ঢাকা টেস্টে হারিয়ে ২ কোটিÑএই ৬ কোটি টাকার বিশেষ বোনাস ক্রিকেট দলের মধ্যে বন্টনের ঘোষনাটা দিয়েছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন এমপি। ঈদ উল আজহা পরিবার পরিজনের সঙ্গে উদযাপনের সুযোগ পাচ্ছেন না ক্রিকেটাররা, তারপরও বড় বোনাসে যে অন্য উদযাপন করার সুযোগ পাচ্ছেন মুশফিক,সাকিব,তামীমরা।

" class="prev-article">Previous article

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD