বয়কটের সিদ্ধান্ত অস্ট্রেলিয়ার খেলোয়াড়দের

বয়কটের সিদ্ধান্ত অস্ট্রেলিয়ার খেলোয়াড়দের

আগামীকাল দলে ডাক পাওয়া ক্রিকেটাররা সবাই হাজির হবেন ব্রিসবেনে। মঙ্গলবার থেকে শুরু অনুশীলন। আজ বিশেষ সভা শেষে ক্রিকেটাররা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, ব্রিসবেনে শুরু অনুশীলনে যোগ দেবেন তারা। কিন্তু তাতে সমস্যা শেষ হয়ে যায়নি। ক্রিকেটাররা বলেছেন, এর মধ্যে সমঝোতা চুক্তি না হলে ১২ জুলাই শুরু দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে যাবে না অস্ট্রেলিয়া ‘এ’ দল!
অস্ট্রেলিয়া ‘এ’ দলের অধিনায়ক উসমান খাজা বলেছেন, ‘এটা (সফর বয়কট করা) মোটেও সহজ কিছু নয়। ব্যক্তিগতভাবে আমি সত্যিই ক্রিকেট খেলার জন্য মুখিয়ে আছি। অনেক দিন হলো খেলিনি। বাকিরাও নিশ্চয়ই তা-ই চায়। কিন্তু আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ। আমরা তবু অনুশীলনে যোগ দিচ্ছি। আমরা আমাদের কাজটা চালিয়ে যাব, প্রস্তুত হব। আশা করি, এর মধ্যে কিছু একটা সমাধান বের হবে। কিন্তু তা না হলে আমাদের কঠোর সিদ্ধান্ত নিতে হবে।’

সেই সিদ্ধান্ত যে দক্ষিণ আফ্রিকা সফর বয়কট করা হবে, তা স্পষ্ট করে জানিয়ে দিয়েছেন অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটারদের সংগঠন এসিএর প্রধান নির্বাহী অ্যালিস্টার নিকলসন।
সফরটা ‘এ’ দলের হলেও অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটের জন্য তা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আগামী বছর ফেব্রুয়ারিতে চার টেস্টের সিরিজ খেলতে দক্ষিণ আফ্রিকায় যাবে মূল দল। ১৯৭০ সালের পর এই প্রথম দক্ষিণ আফ্রিকায় এক সফরে চারটি টেস্ট খেলার কথা আছে তাদের। সেই সফরের আগাম প্রস্তুতি ‌‌‌‌‘এ’ দলের এই সফর।
এই সফরে দুটি চার দিনের ম্যাচ শেষে একটি ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজ হওয়ার কথা। যাতে যোগ দেবে ভারতের ‘এ’ দল। অস্ট্রেলিয়া ভারতে আবার ফিরে যাবে ওয়ানডে সিরিজ খেলতে। ফলে ‘এ’ দলের এই সফরটাও কাজে দেবে ওই ওয়ানডে সিরিজের সময়।
ভারত সফরের আগেই অস্ট্রেলিয়ার বাংলাদেশে আসার কথা দুটি টেস্ট খেলতে। এরপর নভেম্বরে অ্যাশেজ। এর সবই এখন অনিশ্চয়তার মুখে। আপাতত সবচেয়ে সংকটে ‘এ’ দলের দক্ষিণ আফ্রিকা সফর। ক্রিকেটাররা জানিয়ে দিয়েছেন, আগামী শুক্রবারের মধ্যে অন্তত সমঝোতা চুক্তি না হলে এই সফরে তাঁরা যাবেন না।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD