আগস্টেই সিপিএল খেলতে যাওয়ার কথা

আগস্টেই সিপিএল খেলতে যাওয়ার কথা

বাংলাদেশ যুবদলে ছিলেন ব্যাটিং অলরাউন্ডার। আর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তিনিই এখন বিশেষজ্ঞ অফস্পিনার, যিনি কিনা প্রয়োজনে ব্যাটিংও করে দিতে পারেন। দেশের মাটিতে সব শেষ টেস্ট সিরিজে ধূমকেতুর মতো আবির্ভূত এ তরুণের সামনেই রয়েছে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দুই টেস্টের সিরিজ। নিজেদের মাঠে খেলা মানেই মেহেদী হাসান মিরাজের ওপর ভরসা। তবে তিনি নিজেকে তৈরি করা নিয়েই ব্যস্ত। আছেন ফিটনেস ট্রেনিংয়ে। নিজের ভাবনার কথা বলেছেন, মেহেদী হাসান মিরাজ।

প্রশ্ন : ফিটনেস ক্যাম্প শুরু হয়েছে। একটানা এত দিন ফিটনেস নিয়ে কাজ করার সুযোগ তো খুব একটা পান না। ক্যাম্পটা কেমন হচ্ছে?
মেহেদী হাসান মিরাজ : আসলেই আমরা ফিটনেস নিয়ে কাজ করার সময় তো খুব বেশি পাই না। বছরে যদি ফিটনেসের জন্য ২০-২৫ দিন সময় পাই, তাহলে সেটা ফিটনেসের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। শেষবার জাতীয় দলের ক্যাম্প দেখেছি, তখন আমার অভিষেক হয়নি। ওই একটা ক্যাম্প করে আমরা এক বছর ক্রিকেট খেলেছি। ওটা খুব ভালো কন্ডিশনিং ক্যাম্প ছিল। আমি দেখেছি, তখন এইচপির ক্যাম্পে ছিলাম। তো, ওই ক্যাম্পের পর থেকে সবাই টানা ক্রিকেট খেলে যাচ্ছে। এখন আবার নতুন করে শুরু হয়েছে।

প্রশ্ন : এখন টেস্টেও উন্নতি করছে বাংলাদেশ। সব শেষ হোম সিরিজে ইংল্যান্ডের মতো দলকে হারিয়েছে। আসন্ন অস্ট্রেলিয়া সিরিজ নিয়ে কোনো ভাবনা?
মেহেদী মিরাজ : এটা কিন্তু এখন সবাই জানে যে শুধু ওয়ানডে না, টেস্টেও আমরা ভালো খেলছি। গত এক বছর ধরে ভালো খেলছি, টেস্টও জিতেছি। ইংল্যান্ডকে হারিয়েছি, শ্রীলঙ্কার মাটিতে টেস্ট জিতেছি। আমার মনে হয়, বিশ্বের বড় দলগুলোর বিপক্ষে আমরা ভালোমতো লড়াই করতে পারব। আমরা বিশ্বাস রাখি, আমরা বড় বড় দলকে হারানোরও ক্ষমতা রাখি, যেটা আমরা প্রমাণ করেছি।
প্রশ্ন : অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে হোম সিরিজে নিশ্চয়ই স্পিনসহায়ক উইকেট চাইবেন?
মেহেদী মিরাজ : যে উইকেটেই খেলি না, আমাদের টার্গেট থাকবে ভালো ক্রিকেট খেলা। উইকেট তো আর আমাদের হাতে নেই। তবে আমরা যদি ইংল্যান্ড সিরিজের মতো উইকেট পাই, তাহলে আমাদের স্পিনারদের জন্য ভালো হবে।
প্রশ্ন : আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার কেবলই শুরু হলো। এরই মধ্যে বিশ্বের বড় দলগুলোর বিপক্ষে খেলার চ্যালেঞ্জ নিতে হলো। কিভাবে সামলাচ্ছেন নিজেকে?
মেহেদী মিরাজ : আসলে আমি সব সময়ই চ্যালেঞ্জ নিতে পছন্দ করি। আমাদের সামনে অনেকটি ভালো সিরিজ আছে। আশা করছি ভালো কিছু হবে। এ কন্ডিশনিং ক্যাম্পটা খুব কাজে দেবে। তিন সপ্তাহের এ ক্যাম্পে আমরা নিজেদের ঝালাই করে নিতে পারব। ক্যাম্পে কষ্ট করলে ফিটনেসে উন্নতির পাশাপাশি স্কিল বাড়ানোর কাজটাও সহজ হবে।

প্রশ্ন : আপনার ক্যারিয়ার প্রিমিয়ার লিগ খেলতে যাওয়ার কী হলো?
মেহেদী মিরাজ : ১ আগস্ট সিপিএল খেলতে যাওয়ার কথা। সিইও (নিজাম উদ্দিন চৌধুরী) স্যারকে জানিয়ে রেখেছি। বোর্ড থেকে একটা চিঠি (অনুমতিপত্র) নিতে হয়। আশা করি দ্রুতই সেটা পেয়ে যাব। কোচ, আকরাম স্যার, সুজন স্যার বলেছেন ফিটনেস ক্যাম্প শেষ করে আমি যেতে পারব। চিঠি পেলেই যাব।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD