চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি: ফাইনাল কাল

চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি: ফাইনাল কাল

রবিবার সকাল থেকে একদা ব্রিটিশ শাসকদের দ্বারা দ্বিখন্ডিত দুটি দেশের মানুষ উত্তেজনার আঁচে ফুটতে ফুটতে জ্বলন্ত উনুনের মতো ফুটবে থাকবে। আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালে এই দুটি দেশের ক্রিকেটারদের এই সম্মুখসমর শুধুমাত্র ব্যাট বলের লড়াই নয়, এই ম্যাচের সঙ্গে জড়িত ভারত ও পাকিস্তানের প্রায় ১৪০ কোটি মানুষের আবেগ, সম্মান ও আত্মমর্যাদা। আসন্ন সুপার সানডেতে ব্রিটিশ রাজধানী লন্ডনের দ্য ওভালে দ্বৈরথে মুখোমুখি হবে ভারত-পাকিস্তান।
দু’দেশের মানুষ সকাল থেকে মন্দির-মসজিদে প্রার্থনা করবেন প্রিয় দলের জয় দেখার জন্য। প্রায় সোয়া শ’কোটি ভারতবাসীর প্রকৃত দেশাত্মবোধ জেগে ওঠে ক্রিকেট মাঠে ‘টিম ইন্ডিয়া’ খেললে। গ্রুপে তিনটি ম্যাচে একচ্ছত্র দাপট দেখিয়ে জেতা ইংল্যান্ডকে সেমি ফাইনালে পাকিস্তান হারিয়েছিল ১৩ ওভার বাকি থাকতে ৮ উইকেটের ব্যবধানে। এই রেজাল্ট কোনও ক্রিকেট বিশেষজ্ঞের দূরতম কল্পনাতেও প্রশ্রয় পায়নি। ওপেনার ফকর জামান, হাসান আলি, রুমন রইসদের এই টুর্নামেন্ট শুরুর আগে কে চিনত? আবার এই পাকিস্তান দলই গত ৪ জুন চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি’র প্রথম ম্যাচে ভারতের কাছে কাটা কলাগাছের মতো নেতিয়ে লুটিয়ে পড়ে হেরেছে। সেই পরাজয়কে একপেশে বললে খুব কম বলা হয়।
নিয়মিত প্র্যাকটিসে তেমন ঘাম না ঝরিয়েও কোহলি ব্রিগেড কিন্তু এই টুর্নামেন্টে পিক ফর্মে রয়েছে। টপ ব্যাটিং অর্ডার চাবুক ফর্মে রয়েছে। ভুবনেশ্বর, বুমরাহ, কেদার, অশ্বিনরা মনে হয় না পাক ব্যাটসম্যানদের মাথা তুলতে দেবেন, তবে মোহাম্মদ আমির চোট সারিয়ে দলে ফিরলে পাক পেস আক্রমণকে ইংল্যান্ডের মাঠে এই নির্জীব উইকেটেও সমীহ করতে হবে। যদিও ব্যাটিং শক্তিতে রোহিত, শিখর, বিরাট, যুবি, ধোনিরা পাক ব্যাটসম্যানদের তুলনায় ‘ম্যান এগেইনস্ট ম্যান’ সুপিরিয়র। তাই ফাইনালে ভারত হেরে গেলে সেটা অঘটন রূপেই বিবেচিত হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD