রেকর্ডের সামনে সৌম্য সরকার

রেকর্ডের সামনে সৌম্য সরকার

মার মার কাট কাট করেই গত বিশ্বকাপে আলো ছড়িয়েছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকার। ছয়টি ম্যাচেই জানান দিয়েছিলেন তার আগমণী বার্তা। তার ব্যাটের মূর্চ্ছনায় মুগ্ধ সবাই। তবে গত এক-দেড় বছর ছন্দে ছিলেন না বাংলাদেশের এই বাঁহাতি ওপেনার। বেশ কিছুদিন রান খড়ায় ভুগতে থাকা সৌম্যর সামনে এবার রেকর্ড ছোঁয়ার হাতছানি। তা করতে ২৪ বছর বয়সী এই ওপেনারেরপ্রয়োজন আর মাত্র ৭৫ রান। তা হলো বাংলাদেশের হয়ে ওয়ানডেতে দ্রুততম ১ হাজার রানের ক্লাবে প্রবেশ করার। মাত্র ৭৫ রান করতে পারলেই আরেক বাঁহাতি ওপেনার শাহরিয়ার নাফিসকে টপকে ওয়ানডেতে বাংলাদেশি ব্যাটসম্যান হিসেবে দ্রুততম এক হাজার রানের রেকর্ড গড়বেন সৌম্য। দেশের হয়ে এক নম্বর তো বটেই, বিশ্ব ক্রিকেটে ২৪তম দ্রুত ১০০০ রানের মালিক হবেন তিনি। চলতি বছরের শুরুতে নিউজিল্যান্ড সফরে ফর্মে ফেরার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন সৌম্য। কিন্তু চলমান ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম ম্যাচে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে মাত্র ৫ রানে আউট হন। এরপর নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ফেরেন স্বরূপে, করেন ৬১ রান। তৃতীয় ম্যাচে আইরিশদের বিপক্ষে বিধ্বংসী সৌম্য ৬৮ বলে ১১টি চার আর দুটি ছক্কায় করেন অপরাজিত ৮৭ রান। বাংলাদেশের জার্সিতে এখন পর্যন্ত ২৬টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলে সৌম্যর সংগ্রহ ৯২৫ রান। আর ২০০৬ সালে ২৯ ম্যাচ খেলে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে দ্রুততম এক হাজার রানের রেকর্ড গড়েছিলেন শাহরিয়ার নাফিস। যে রেকর্ড ১১ বছর ধরে অক্ষুণœ রয়েছে। সৌম্যর সামনে সুযোগ রয়েছে নাফিসকে ছাড়িয়ে যাওয়ার। এজন্য আরও ৩টি ইনিংস খেলার সুযোগ পাচ্ছেন তিনি। আগামীকাল বুধবার ত্রিদেশীয় সিরিজের শেষ ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। সৌম্য বর্তমানে যে ফর্মে আছেন তাতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বুধবারের ম্যাচেই তিনি এই রেকর্ড গড়ে ফেলতে পারেন। ক্রিকেট বিশ্বে দ্রুততম ১ হাজার রানের কীর্তি ক্যারিবীয়ান কিংবদন্তি স্যার ভিভ রিচার্ডসের। তিনি ১৯৮০ সালের ২২ জানুয়ারি ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিডনিতে ক্যারিয়ারের ২২তম ম্যাচে এই রেকর্ড গড়েছিলেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD