আইপিএলের ফাইনাল আগামীকাল

আইপিএলের ফাইনাল আগামীকাল

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) টুয়েন্টি টুয়েন্টি ক্রিকেটের দশম আসরের ফাইনালে আগামীকাল মুখোমুখি হচ্ছে রাইজিং পুনে সুপারজায়ান্ট ও মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। প্রথম শিরোপা জয়ের লক্ষ্য নিয়ে ফাইনাল খেলতে নামবে পুনে। পক্ষান্তরে মুম্বাইয়ের চোখ তৃতীয় শিরোপার দিকে। হায়দারাবাদে এই ফাইনালটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে আটটায়।
গেল আসরে সপ্তম স্থানে থেকে আইপিএল শেষ করেছিলো পুনে। তাই চলমান মৌসুম শুরুর আগেই অধিনায়কত্বে পরিবর্তন আনে পুনে ফ্র্যাঞ্চাইজি। মহেন্দ্র সিং ধোনিকে সড়িয়ে অস্ট্রেলিয়ার স্টিভেন স্মিথকে অধিনায়কের দায়িত্ব দেয় পুনে। এমনকি দলের শক্তি বাড়াতে নিলামে বেশ পারদর্শীতা দেখায় তারা। ইংল্যান্ডের অলরাউন্ডার বেন স্টোকসকে রেকর্ড মূল্যে দলে ভেড়ায় তারা। তাকে দলে নেয়ার কারণটা লিগ পর্বে প্রদর্শন করেছেন স্টোকস। ব্যাট-বল দিয়ে সেরা পারফরমেন্সই দেখিয়েছেন তিনি। তবে প্লে-অফে খেলা হয়নি তার। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজকে সামনে রেখে জাতীয় দলের ক্যাম্পে যোগ দিয়েছেন স্টোকস।
তবে কোয়ালিফাইয়ার-১এর বাঁধা পেরিয়ে যেতে খুব বেশি সমস্যা হয়নি পুনের। আজিঙ্কা রাহানে-মনোজ তিওয়ারির হাফ-সেঞ্চুরির সাথে সাবেক ধোনির ২৬ বলে অপরাজিত ৪০ রান লড়াই করার পুঁজি দেয় পুনেকে।
এরপর শুরুতেই অফ-স্পিনার ওয়াশিংটন সুন্দরের ধাক্কায় খেই হারিয়ে ফেলে মুম্বাই। পরবর্তীতে আর ম্যাচে ফিরতে পারেনি মুম্বাই। শারদুল ঠাকুরের পেস তোপে ১৬৩ রানের টার্গেটে ১৪২ পর্যন্ত সমর্থ হয় মুম্বাই। ১৬ রানে ৩ উইকেট নিয়ে ম্যাচ সেরা হয়েছেন সুন্দর। তাই স্টোকসের অভাব বুঝতে পারেনি পুনে।
তবে আগামী মৌসুম থেকে আইপিএলে থাকছে না পুনে ও গুজরাট লায়ন্স। কারন স্পট ফিক্সিং-এর দায়ে নিষিদ্ধ হওয়া দুই দল চেন্নাই সুপার কিংস ও রাজস্থান রয়্যালসকে ফিরিয়ে আনার সিদ্বান্ত নিয়েছে আইপিএল কর্তৃপক্ষ। আগামী মৌসুম থেকে পুনে ও গুজরাটের পরিবর্তে আইপিএলে দেখা যাবে চেন্নাই ও রাজস্থানকে।
তাই ভালোভাবে এই মৌসুম শেষ করার ইচ্ছা পোষণ করেছেন স্মিথ, ‘টুর্নামেন্টের সঠিক সময়ে সেরাটাই এখন প্রয়োজন। এটি সত্যিই এখন আমাদের জন্য উত্তেজনাপূর্ণ সময়।’
এবারের আসরে ১৪ ম্যাচে ৪২১ রান করেছেন স্মিথ। অধিনায়কত্ব হারালেও, ব্যাট হাতে প্রয়োজনীয় সময় ঠিকই জ্বলে উঠেছেন ধোনি। কোয়ালিফাইয়ার-১এ ধোনি ২৬ বলে অপরাজিত ৪০ রানের কল্যাণে লড়াই করার পুঁজি পায় পুনে।
টাইমস অব ইন্ডিয়ায় এক কলামে ভারতের সবেক অধিনায়ক সুনীল গাভাস্কার বলেন, ‘স্মিথের নেতৃত্বে পুনে ফাইনালে ওঠে। তবে অবশ্যই ধোনির সাহায্য নিয়ে।’
পুনের বোলিং-কে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিবেন বাঁ-হাতি জয়দেব উনাদকত। তার সাথে সহযোগিতায় থাকবেন অস্ট্রেলিয়ার ড্যান ক্রিস্টিয়ান-লেগ স্পিনার এডাম জাম্পা ও সুন্দর-ঠাকুর।
কোয়ালিফাইয়ার-১এ পুনের কাছে হারলেও, কোয়ালিফাইয়ার-২এ কলকাতা নাইট রাইডার্সকে উড়িয়ে ফাইনালের টিকিট পায় মুম্বাই। এই নিয়ে চতুর্থবারের মত ফাইনাল খেলবে মুম্বাই। এখন পর্যন্ত ১৬ ম্যাচে অংশ নিয়ে ১১ জয়কে সাথে নিয়ে ফাইনালে খেলতে নামবে মুম্বাই।
কলকাতার বিপক্ষে জয়ের পর মুম্বাই অধিনায়ক রোহিত শর্মা বলেন, ‘আমরা অনেক বেশি পরিশ্রম করেছি। শিরোপা জয় থেকে এখন আমরা এক ধাপ দূরে। পুনের বিপক্ষে আমাদের ভালো রেকর্ড নেই। তবে আর মাত্র একটি বাঁধা।’
এই মৌসুমে পুনের সাথে তিনবারের দেখায় সবগুলোতেই হেরেছে মুম্বাই।
২০১৩ ও ২০১৫ সালের চ্যাম্পিয়ন মুম্বাইয়ের হাতে রয়েছে একাই ম্যাচ ঘুড়িয়ে দেয়ার মত বহু খেলোয়াড়। বিদেশীদের মধ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাইরন পোলার্ড ও নিউজিল্যান্ডের পেসার মিচেল ম্যাকক্লেনাঘান অন্যতম। চলমান মৌসুমে সেটি বেশ কয়েকবারই প্রমান দিয়েছেন তারা।
পাশাপাশি ব্যাট হাতে দুর্দান্ত শুরু এনে দিয়েছেন ওপেনার উইকেটরক্ষক পার্থিব প্যাটেল। পরের দিকে রোহিতের সাথে পোলার্ড-দুই পান্ডে ভাই দলের জয়ে প্রধান ভূমিকাও রাখেন। তাই এরা পুনের বোলারদের জন্য চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়াবেন।
বোলিং-এ মুম্বাইয়ের সেরা অস্ত্র জসপ্রিত বুমরাহ। ডেথ ওভারে দুর্দান্ত সব ইর্য়কারে প্রতিপক্ষের ব্যাটসম্যানদের নাকানি-চুবানি দিচ্ছেন বুমরাহ। সাথে আছেন শ্রীলংকার লাসিথ মালিঙ্গা-ম্যাকক্লেনাঘান-করন শর্মার মত বোলার। ১৬ রানে ৪ উইকেট নিয়ে কলকাতাকে একাই ধসিয়ে দিয়েছিলেন করন। ফাইনালেও তার স্পিন বিষ দেখতে চাইবে মুম্বাই। এতে তৃতীয়বারের মত আইপিএলের শিরোপা জয় করতে সুবিধাই হবে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD