সেরার মুকুট ফিরে পেতে চান সালমা

সেরার মুকুট ফিরে পেতে চান সালমা

আইসিসি ওমেন্স প্লেয়ার র‌্যাংকিংয়ে প্রথম বাংলাদেশি ক্রিকেটার হিসেবে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের মুকুট পড়েছিলেন সালমা খাতুন। ২০১৫ সালের জানুয়ারিতে ২৯১ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে সবার শীর্ষে ওঠেন তিনি। ৬৪৯ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে একই সঙ্গে টি-টোয়েন্টির সেরা বোলারও হয়েছিলেন এ অফস্পিনার। কিন্তু বাস্তবতা হলো খুব বেশিদিন শীর্ষস্থান ধরে রাখতে পারেননি তিনি।
এ জন্য বেশি ম্যাচ না খেলাকেই দায়ী করলেন দেশসেরা অলরাউন্ডার সালমা খাতুন, ‘কত বেশি ম্যাচ খেলতে পারবো অনেকটা তার উপর নির্ভর করে আমি কতদূর যেতে পারবো। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে আমরা কয়টা টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছি? গেল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর থেকে অন্যান্য দেশ কিন্তু খেলেই যাচ্ছে।’
গত বছর বোলারদের তালিকায় শীর্ষে থাকা সালমা এখন নেই সেরা দশে। ৫৪০ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে তিনি আছেন ১৪তম অবস্থানে। অলরাউন্ডার হিসেবে তার অবস্থান এখন পঞ্চম। রেটিং পয়েন্ট কমে নেমেছে ২৪৯ এ।
আগের স্থানে ফিরতে হলে সালমাকে অসাধারণ কিছুই করে দেখাতে হবে আসন্ন ম্যাচগুলোতে, ‘বেশি ম্যাচ খেলার সুযোগ পেলে হয়তো আমি আবার আমার জায়গা ফেরত পাবো। সামনে আমাদের কয়েকটা ট্যুর আছে, এর মধ্যে আশা করি পারফর্ম করে তিন বা দুইয়ে চলে আসবো। আমার এমনই লক্ষ্য। শীর্ষে উঠতে হলে ধীরে ধীরে আগাতে হবে। স্থানটা ফিরে পেতে চাই।’
খেলার মধ্যে থেকে পারফরম্যান্সের গুণে রেটিং পয়েন্ট বাড়িয়ে (৩১১) শীর্ষে উঠেছেন অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার এলিশা পেরি। দ্বিতীয় অবস্থানে ক্যারিবীয় অলরাউন্ডার স্টেফিনো টেলর। তার রেটিং পয়েন্ট ২৯৬। সালমার সঙ্গে ব্যবধান এদের কেবলই বাড়ছে। তার আরেকটি কারণ মার্চে ভারতে অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ব্যাটে-বলে তেমন উজ্জ্বল ছিলেন না সালমা। অক্টোবরে আয়ারল্যান্ড সফরে যেতে পারেননি কাঁধের ইনজুরির কারণে।
সময়টা ভালো যাচ্ছে না এ স্পিন অলরাউন্ডারের। তবে খুব শিগগিরই চেনারূপে ফিরতে চান তিনি, ‘এখন খুব ভালো অনুভব করছি। ব্যাটিংয়ের পর বোলিং অনুশীলন শুরু করেছি। আশা করি এশিয়া কাপে খেলতে পারবো। সামনের সময়গুলোকে চ্যালেঞ্জ হিসেবেই নিচ্ছি। সিনিয়র ক্রিকেটার হিসেবে আমার উপর দলের প্রত্যাশা অনেক। ভালো খেলার চেষ্টা থাকবে।’
আগামী নভেম্বর-ডিসেম্বরে থাইল্যান্ডে অনুষ্ঠিতব্য টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের এশিয়া কাপে উন্নতি করতে চান সালমা। স্বাগতিক থাইল্যান্ড ছাড়াও এশিয়া কাপে অংশ নেবে বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা ও বাছাইপর্ব পেরিয়ে আসা নেপাল। জানুয়ারিতে রয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা সফর। পারফর্ম করে সালমা কী ফেরাতে পারবেন সেরার মুকুট? প্রশ্নটা সময়ের হাতেই তোলা থাক।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD