প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে তামিমের ৫ হাজার

প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে তামিমের ৫ হাজার

তৃতীয় ওয়ানডেতে এমন মাইলফলকে পৌঁছান তিনি। এর  আগে সিরিজ নির্ধারণী এই ম্যাচে নামার আগে ৩৮ রানে পিছিয়ে ছিলেন তামিম।

এই মাইলফলকে পৌঁছাতে তামিম ইকবাল খেলেছেন ১৫৮টি ইনিংস। সমান সংখ্যক ইনিংস খেলে ইংল্যান্ডের অধিনায়ক এউইন মরগান ৫ হাজারি ক্লাবের সদস্য হয়েছিলেন। বুধবার ইনিংসের ২২তম ওভারের পঞ্চম বলে ওকসকে স্কয়ার লেগের উপর দিয়ে বাউন্ডারির মাধ্যমে এই রান স্পর্শ করেন তামিম ইকবাল। বিদায় নেওয়ার আগে করেন ৪৫ রান।

আজকের ম্যাচের আগে তামিমের রান ছিল ১৫৮ ম্যাচে ৩২.২২ গড়ে ৪ হাজার ৯৬২। যেখানে আছে ৭টি সেঞ্চুরি ও ৩৩টি হাফ সেঞ্চুরি টেস্ট, ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে দেশের শীর্ষ রান সংগ্রাহকও তামিম।

৫ হাজার রানের মাইলফলক ছুঁতে তামিম ইকবাল সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলেছেন জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে। ৩৬ ম্যাচে তাদের বিপক্ষে ড্যাশিং এই ওপেনারের সংগ্রহ ১২১৪ রান। সবমিলিয়ে ১৫৯টি ম্যাচ খেলা তামিম ইকবাল ঘরের মাঠে খেলেছেন ৮৭টি ওয়ানডে, দেশের বাইরে খেলেছেন ৫০টি এবং নিরপেক্ষ ভেন্যুতে খেলেছেন ২২টি ম্যাচ।  এই ম্যাচের মধ্য ঘরের মাঠে তামিম ইকবাল ৮৬ ইনিংসে ৫ সেঞ্চুরি ও ১৮ হাফসেঞ্চুরিতে সংগ্রহ করেছিলেন ২৮৬৫ রান।  দেশের বাইরে তিনি খেলেছেন ৫০টি ইনিংস। যেখানে ১২ সেঞ্চুরি ও ২ হাফসেঞ্চুরিতে রান পেয়েছেন ১৬২৫।  অন্যদিকে নিরপেক্ষ ভেন্যুতে খেলা ২২টি ইনিংস থেকে তার রান এসেছে তিন হাফসেঞ্চুরিতে ৫১৭টি।
পাঁচ হাজারি ক্লাবের গর্বিত সদস্য হওয়ার পথে তামিম ইকবাল সবচেয়ে দ্রুত রান করেছিলেন চার থেকে পাঁচ হাজার রান করতেই।  ৩৭ ইনিংসে তামিমের ব্যাট থেকে আসে এক হাজার রান, ৭০ ইনিংসে তামিম পৌঁছান দুই হাজারী ক্লাবে। তিন হাজারি ক্লাবের সদস্য হতে তিনি খেলেছেন ১০২টি ইনিংস। অন্যদিকে ১৩৭ ইনিংস খেলে চার হাজাররানের সদস্য পদ পান ড্যাশিং এই ওপেনার। সর্বশেষ বুধবার নিজ শহরে ১৫৮ ইনিংস খেলে প্রথম বাংলাদেশী হিসেবে ৫ হাজার ক্লাবের সদস্য হয়েছেন তিনি।
তামিমের আগে ওয়ানডে ক্রিকেটে মোট ৭৭ জন ব্যাটসম্যান ৫ হাজারি ক্লাবের সদস্য হয়েছেন। টেস্ট খেলুড়ে দেশগুলোর বাকি সব সদস্য এই ক্লাবের সদস্য হলেও এই প্রথম বাংলাদেশি কোনও ক্রিকেটারের নাম যুক্ত হলো পাঁচ হাজারি ক্লাবে। তিনি এই ক্লাবের ৭৮তম সদস্য।

সবচেয়ে দ্রুত পাঁচ হাজার রানের মাইলফলকে পৌঁছেছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার তারকা ক্রিকেটার হাশিম আমলা। ডারবানে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সঙ্গে ২০১৫ সালে ৫ হাজারি ক্লাবের সদস্য হন ১০১ ইনিংস খেলে। তার চেয়ে ৫৭ ইনিংস বেশি খেলে তামিম বুধবার এই মাইলফলক স্পর্শ করলেন।

তামিম ইকবালের আগে সর্বশেষ পাঁচ হাজারি ক্লাবের সদস্য হন ভারতের বিস্ফোরক ব্যাটসম্যান রোহিত শর্মা। ১৪২ ম্যাচে তার রান সংখ্যা ৫০০৮। ৪২.০৮ গড়ে ১০ সেঞ্চুরি ও ২৮ হাফসেঞ্চুরিতে তিনি এই মাইফলকে পৌঁছান।

বাংলাদেশের সর্বোচ্চ ৫ সংগ্রাহক

নামম্যাচইনিংসমোট রানসর্বোচ্চসে./হা.সেগড়
তামিম ইকবাল১৫৯*১৫৮৫০০৭১৫৪৭/৩৩৩২.৩০
সাকিব আল হাসান১৬৩*১৫৪৪৫৬২১৩৪*৬/৩১৩৫.০৯
মুশফিকুর রহিম১৬৪*১৫০৪০০৯১১৭৪/২২৩১.০৭
মোহাম্মদ আশরাফুল১৭৫১৬৮৩৪৬৮১০৯৩/২০২২.৩৭
মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ১৩১*১১৩২৮৪৮১২৮*২/১৬৩৪.৩১

Related Articles

1 Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD